‘মুশফিক পাকিস্তান গেলে পরিবার কান্নাকাটি করবে, আমি বিশ্বাস করি না’
jugantor
‘মুশফিক পাকিস্তান গেলে পরিবার কান্নাকাটি করবে, আমি বিশ্বাস করি না’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২০:১২:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

মুশফিকুর রহিম

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, মুশফিকের বাড়ির লোকও (ভায়রা ভাই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ) তো পাকিস্তান সফরে গিয়ে খেলে এসেছে। আমি বলতে চাচ্ছি মাহমুদউল্লাহর বেলায় কিছু হবে না, মুশফিকের বেলায় খালি পরিবার কান্নাকাটি করবে নাকি! এরকম আমি বিশ্বাস করি না।

মঙ্গলবার পাপন আরও বলেন, মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে মুশফিক শুনতে পারে। এমনকি অন্যদের কাছ থেকেও শুনতে পারে। মানে সে সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে। পাকিস্তান সফরে যাওয়ার জন্য আমি কাউকে জোর করব না। আমি মনে করি সবার সঙ্গে কথাবার্তা বলে যাওয়া উচিত।

তিনি আরও বলেন, শুধু নিজের কথা ভাবলেই হবে না, দেশের কথাও চিন্তা করতে হবে। দেশের স্বার্থে মুশফিকের পাকিস্তান সফরে যাওয়া উচিত।

বিসিবি সভাপতি বলেন, প্রত্যেকেরই পরিবার আছে। সবার কাছেই তার পরিবার গুরুত্বপূর্ণ। তার চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। এটা মাথায় রাখতে হবে। মুশফিকরা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিভুক্ত। দেশের খেলা থাকলে তাদের খেলতে হবে। এখানে না বলার কিছু না নেই।

চলতি বছরে ইতিমধ্যে দুইবার পাকিস্তান সফর করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জানুয়ারিতে সফরে গিয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে আসে বাংলাদেশ দল। চলতি মাসের শুরুতে পাকিস্তান গিয়ে খেলে আসে টেস্ট ম্যাচ।

তামিম-মাহমুদউল্লাহরা পাকিস্তানে দুইবার সফরে গেলেও নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত মুশফিক পারিবারিক কারণ দেখিয়ে সফরে যাননি।

আগামী মাসে একটি ওয়ানডে ও একটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে ফের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। সেই সফরে মুশফিককে পাকিস্তান সফরে যেতে বললেন পাপন।

‘মুশফিক পাকিস্তান গেলে পরিবার কান্নাকাটি করবে, আমি বিশ্বাস করি না’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৮:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মুশফিকুর রহিম
মুশফিকুর রহিম। ফাইল ছবি

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, মুশফিকের বাড়ির লোকও (ভায়রা ভাই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ) তো পাকিস্তান সফরে গিয়ে খেলে এসেছে। আমি বলতে চাচ্ছি মাহমুদউল্লাহর বেলায় কিছু হবে না, মুশফিকের বেলায় খালি পরিবার কান্নাকাটি করবে নাকি! এরকম আমি বিশ্বাস করি না।

মঙ্গলবার পাপন আরও বলেন, মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে মুশফিক শুনতে পারে। এমনকি অন্যদের কাছ থেকেও শুনতে পারে। মানে সে সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে। পাকিস্তান সফরে যাওয়ার জন্য আমি কাউকে জোর করব না। আমি মনে করি সবার সঙ্গে কথাবার্তা বলে যাওয়া উচিত।

তিনি আরও বলেন, শুধু নিজের কথা ভাবলেই হবে না, দেশের কথাও চিন্তা করতে হবে। দেশের স্বার্থে মুশফিকের পাকিস্তান সফরে যাওয়া উচিত। 

বিসিবি সভাপতি বলেন, প্রত্যেকেরই পরিবার আছে। সবার কাছেই তার পরিবার গুরুত্বপূর্ণ। তার চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। এটা মাথায় রাখতে হবে। মুশফিকরা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিভুক্ত। দেশের খেলা থাকলে তাদের খেলতে হবে। এখানে না বলার কিছু না নেই।

চলতি বছরে ইতিমধ্যে দুইবার পাকিস্তান সফর করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জানুয়ারিতে সফরে গিয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে আসে বাংলাদেশ দল। চলতি মাসের শুরুতে পাকিস্তান গিয়ে খেলে আসে টেস্ট ম্যাচ। 

তামিম-মাহমুদউল্লাহরা পাকিস্তানে দুইবার সফরে গেলেও নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত মুশফিক পারিবারিক কারণ দেখিয়ে সফরে যাননি। 

আগামী মাসে একটি ওয়ানডে ও একটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে ফের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। সেই সফরে মুশফিককে পাকিস্তান সফরে যেতে বললেন পাপন। 

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর-২০২০

আরও খবর