উইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করল শ্রীলংকা

  স্পোর্টস ডেস্ক ০২ মার্চ ২০২০, ১৬:১০:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ হাসি হাসল শ্রীলংকা। তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৬ রানে হারিয়েছে তারা। এ নিয়ে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতলেন লংকানরা। একই সঙ্গে ওডিআই ক্রিকেটে দ্বিতীয়বারের মতো ক্যারিবীয়দের হোয়াইটওয়াশের লজ্জায় ডুবালেন তারা। সবশেষ ২০১৫ সালে স্বাগতিকদের হাতে ধবলধোলাই হন সফরকারীরা।

এরপর এ নিয়ে কোনো দলকে তৃতীয়বার ধোলাই করল শ্রীলংকা। উইন্ডিজ ছাড়া ২০১৯ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে একদিনের সিরিজ জেতে তারা। রোববার ক্যান্ডির পাল্লেকেল্লে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে সবক’টি উইকেট হারিয়ে ৩০৭ রানের পাহাড় গড়ে শ্রীলংকা। মাঝারি ব্যক্তিগত সংগ্রহে এ বিশাল পুঁজি সংগ্রহ করে তারা।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন কুশল মেন্ডিস। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ব্যাট থেকে আসে ৫১ রান। এছাড়া সমান ৪৪ রান করেন অধিনায়ক দিমুথ করনারত্নে ও কুশল পেরেরা। ক্যারিবিয়ানদের হয়ে ৪ উইকেট শিকার করেন আলজারি জোসেফ। ২ উইকেট নেন জেসন হোল্ডার।

হোয়াইটওয়াশ এড়াতে ৩০৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে জয়ের বন্দরে প্রায় পৌঁছেই গিয়েছিল উইন্ডিজ। তবে কাইরন পোলার্ড-নিকোলাস পুরান-ফাবিয়ান অ্যালেনদের থামিয়ে শ্রীলংকাকে রোমাঞ্চকর জয় এনে দেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩০১ রান তুলতে সক্ষম হন ক্যারিবিয়ানরা।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭২ রান করেন ওপেনার শাই হোপ। আরেক ওপেনার সুনীল আমব্রিস করেন ৬০ রান। এছড়া ৫০ রান করে আউট হন অধিনায়ক পুরান। এক রানের জন্য ফিফটি বঞ্চিত হোন পোলার্ড। শেষদিকে ১৫ বলে ৩ ছক্কা ও ২ চারে ৩৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন ফাবিয়ান।

শ্রীলংকার হয়ে ৪ উইকেট নেন ম্যাথিউস। লংকানদের জয়ের নায়ক তিনি। ম্যাচসেরা পুরস্কারও উঠেছে তার হাতে। আর ৩ ম্যাচেই ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলে প্লেয়ার অব দ্য সিরিজ হয়েছেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

তথ্যসূত্র: ক্রিকবাজ।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত