ফের মুশফিকের সেঞ্চুরি, শূন্যতে আউট লিটন

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৫ মার্চ ২০২০, ১৪:১৭:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

সেরা ফর্মে আছেন জাতীয় দলের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। তার ব্যাট কথাই বলে যাচ্ছে অনবরত।

সম্প্রতি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দেশের হয়ে সাদা জার্সিতে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন তিনি। লাল-সবুজ জার্সিতেও ভালো খেলেছেন। যদিও পাক সফরে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে অটল থাকায় শেষ ওয়ানডেতে নামানো হয়নি তাকে।

তবে ফর্মের ধারাবাহিকতা ঠিক রেখেছেন ঘরোয়া লিগেও। আকাশি-নীল জার্সি গায়েও সেঞ্চুরি হাঁকালেন মুশি।

আবাহনীর হয়ে পারটেক্সের বিপক্ষে মুশফিক ঝলমলে ১২৭ রানের এক ইনিংস খেললেন আজ।

সে হিসাবে ঘরোয়া লিগে তিন বছরের সেঞ্চুরি খরা মিটল এই উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানের। তবে এদিন ব্যর্থ হয়েছেন ফর্মে থাকা লিটন দাস। জিম্বাবুয়ে সিরিজে তিন ফরম্যাটে রানের বন্যা বইয়ে দেয়া এই ওপেনার শূন্য রানে সাজঘরে ফিরেছেন।

রোববার পারটেক্সের বোলারদের তোপে একে একে সাজঘরে ফেরেন আবাহনীর টপ অর্ডার ব্যাটনম্যানরা। তবে মুশফিককে কুপোকাত করতে পারেননি তারা।

শুরুতে ৬ রানেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে আবাহনী। দলীয় ৬৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েন তারা।

এমন শোচনীয় অবস্থা থেকে দলকে একাই টেনে তুললেন মুশফিক। তাকে পূর্ণ সহায়তা করেন মোসাদ্দেক। ১১১ বল খেলে ৮ চার ও ৩ ছয়ে সেঞ্চুরি হাঁকান তিনি।

রনি হোসেনের বলে কাভার ড্রাইভে বাউন্ডারি মেরে তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছান মুশি। সেঞ্চুরির পরও ব্যাট সমানে চালাতে থাকেন মুশি। তবে পারটেক্সের পেসার জয়নুলের বলে ১২৭ রানে আউট হন তিনি।

ষষ্ঠ উইকেটে মুশফিক-মোসাদ্দেক জুটিতে ১৬০ রান যোগ করে বড় সংগ্রহ করে আবাহনী। মুশফিকের পর ৭৪ বলে ৪ চার ও ২ ছয়ে ৬১ রান করে আউট হন মোসাদ্দেক।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালে লিস্ট- এ ক্রিকেটে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন মুশফিক। অধিনায়ক হিসেবে খেলেছিলেন ১৩৪ রানের ইনিংস। ঢাকা লিগে ওটাই ছিল মুশফিকের সর্বশেষ সেঞ্চুরি।

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ-২০২০

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত