মোদির সঙ্গে যেসব কথা হলো শচীনের
jugantor
মোদির সঙ্গে যেসব কথা হলো শচীনের

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১:৩৬:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

শচীন টেন্ডুলকার-নরেন্দ্রমোদি

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রকোপ যেমন বাড়ছে তেমনই আতংকের কারণ হয়েছে ভারতের।
করোনাভাইরাস মোকাবেলায় শচীন টেন্ডুলকারসহ দেশের বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

পরে এক বিবৃতিতে সেই আলোচনার বিস্তারিত জানিয়েছেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার।

ভিডিও কনফারেন্সে শুক্রবার মোদির সঙ্গে এই আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন ৪০ জন ক্রীড়াবিদ। ছিলেন ক্রীড়ামন্ত্রী কিরান রিজিজুও। পরে শচীন জানান, লকডাউনের এ সময়ে তিনি তার ব্যক্তিগত ভাবনা ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন ওই আলোচনায়।

তিনি বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি, কিরান রিজিজু ও অন্যান্য ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ হয়েছিল আমার। আমরা কীভাবে লকডাউন মোকাবেলা করছি, তা নিয়ে আমি আমার ব্যক্তিগত মতামত ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রবীণরা যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন, তাদের যত নেয়া, এ সময়ে তাদের গল্প এবং অভিজ্ঞতা শোনা-এ ব্যাপারগুলো ছিল, যা প্রধানমন্ত্রী অনুভব করছিলেন। ১৪ এপ্রিল লকডাউন উঠে যাওয়ার পর আমরা কেউ যেন নিরাপত্তার দেয়াল ভেঙে না ফেলি এবং সেই কঠিন সময় কীভাবে সামলাতে হবে, সে বিষয়গুলো তুলে ধরেন তিনি।’

এ আলোচনায় উঠে এসেছে লকডাউনের সময় মানসিকভাবে চাঙা থাকার গুরুত্বের কথাও।

শচীন বলেন, ‘এ পরিস্থিতিতে মানসিক ফিটনেস যে শারীরিক ফিটনেসের মতোই গুরুত্বপূর্ণ, তা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। ফিট থাকার জন্য আমি বাড়িতে কী করি, সেটাও জানিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে ভারতের বর্তমান-সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে আরও ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী, বিরেন্দর শেবাগ, যুবরাজ সিং, চেতেশ্বর পুজারা ও রোহিত শর্মা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কিংবদন্তি অ্যাথলেট পি টি উষা, ব্যাডমিন্টনের দুই যুগের দুই তারকা পুলেলা গোপিচাঁদ ও পি ভি সিন্ধু, তরুণ অ্যাথলেট হিমা দাস, কুস্তিগীর বাজরাং পুনিয়া, দাবার কিংবদন্তি বিশ্বনাথন আনন্দ।

মোদির সঙ্গে যেসব কথা হলো শচীনের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৪ এপ্রিল ২০২০, ০৯:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শচীন টেন্ডুলকার-নরেন্দ্রমোদি
শচীন টেন্ডুলকার-নরেন্দ্রমোদি। ফাইল ছবি

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রকোপ যেমন বাড়ছে তেমনই আতংকের কারণ হয়েছে ভারতের।
করোনাভাইরাস মোকাবেলায় শচীন টেন্ডুলকারসহ দেশের বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

পরে এক বিবৃতিতে সেই আলোচনার বিস্তারিত জানিয়েছেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার।

ভিডিও কনফারেন্সে শুক্রবার মোদির সঙ্গে এই আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন ৪০ জন ক্রীড়াবিদ। ছিলেন ক্রীড়ামন্ত্রী কিরান রিজিজুও। পরে শচীন জানান, লকডাউনের এ সময়ে তিনি তার ব্যক্তিগত ভাবনা ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন ওই আলোচনায়।

তিনি বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি, কিরান রিজিজু ও অন্যান্য ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ হয়েছিল আমার। আমরা কীভাবে লকডাউন মোকাবেলা করছি, তা নিয়ে আমি আমার ব্যক্তিগত মতামত ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছি।’ 

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রবীণরা যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন, তাদের যত নেয়া, এ সময়ে তাদের গল্প এবং অভিজ্ঞতা শোনা-এ ব্যাপারগুলো ছিল, যা প্রধানমন্ত্রী অনুভব করছিলেন। ১৪ এপ্রিল লকডাউন উঠে যাওয়ার পর আমরা কেউ যেন নিরাপত্তার দেয়াল ভেঙে না ফেলি এবং সেই কঠিন সময় কীভাবে সামলাতে হবে, সে বিষয়গুলো তুলে ধরেন তিনি।’

এ আলোচনায় উঠে এসেছে লকডাউনের সময় মানসিকভাবে চাঙা থাকার গুরুত্বের কথাও। 

শচীন বলেন, ‘এ পরিস্থিতিতে মানসিক ফিটনেস যে শারীরিক ফিটনেসের মতোই গুরুত্বপূর্ণ, তা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। ফিট থাকার জন্য আমি বাড়িতে কী করি, সেটাও জানিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে ভারতের বর্তমান-সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে আরও ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী, বিরেন্দর শেবাগ, যুবরাজ সিং, চেতেশ্বর পুজারা ও রোহিত শর্মা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কিংবদন্তি অ্যাথলেট পি টি উষা, ব্যাডমিন্টনের দুই যুগের দুই তারকা পুলেলা গোপিচাঁদ ও পি ভি সিন্ধু, তরুণ অ্যাথলেট হিমা দাস, কুস্তিগীর বাজরাং পুনিয়া, দাবার কিংবদন্তি বিশ্বনাথন আনন্দ।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস