বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে ভিলিয়ার্সের দলে ফেরা অনিশ্চিত
jugantor
বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে ভিলিয়ার্সের দলে ফেরা অনিশ্চিত

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৩ এপ্রিল ২০২০, ১৮:৪৫:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

এবি ডি ভিলিয়ার্স

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স বলেছেন, এই মুহুর্তে আমি ক্রিকেটে ফিরতে প্রস্তুত আছি।কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে পরিস্থিতি যা তাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে পরের বছর চলে যেতে পারে। যদি তাই হয় তাহলে অনেক বাস্তবতাই বদলে যাবে। বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে পরের বছর আমার শরীর কেমন থাকবে,কতটা ফিট থাকব তা বলতে পারব না।

দক্ষিণ আফ্রিকার একটি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রোটিয়া ব্যাটিং গ্রেট ডি ভিলিয়ার্স আরও বলেছেন, আমি অবশ্যই ফের জাতীয় দলের হয়ে খেলতে প্রস্তুত আছি। কিন্তু যদি ফিট না থাকি বা দলকে ৮০ ভাগ দিতে না পারি তাহলে জাতীয় দলে আর ফিরব না।

ফর্মের তুঙ্গে থাকা অবস্তায় ২০১৮ সালের মে মাসে সবাইকে চমকিয়ে হঠাৎ করেই জাতীয় দল থেকে অবসর নেন ডি ভিলিয়ার্স।

গত ডিসেম্বরে সাবেক সতীর্থ মার্কা বাউচার দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হওয়ার পর অবসর ভেঙে ডি ভিলিয়ার্সকে জাতীয় দলে ফেরার আগ্রহ দেখান তিনি।

ধারনা করা হচ্ছিল অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই এবি ডি ভিলিয়ার্সকে দক্ষিণ আফ্রিকার দলে ফেরানো হবে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বকাপ হওয়া নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে। করোনায় শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ যদি পিছিয়ে আগামী বছরে চলে যায় তাহলে অনিশ্চিত হয়ে যাবে ডি ভিলিয়ার্সের জাতীয় দলে ফেরা।

বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে ভিলিয়ার্সের দলে ফেরা অনিশ্চিত

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৩ এপ্রিল ২০২০, ০৬:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
এবি ডি ভিলিয়ার্স
এবি ডি ভিলিয়ার্স। ফাইল ছবি

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স বলেছেন, এই মুহুর্তে আমি ক্রিকেটে ফিরতে প্রস্তুত আছি।কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে পরিস্থিতি যা তাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে পরের বছর চলে যেতে পারে। যদি তাই হয় তাহলে অনেক বাস্তবতাই বদলে যাবে। বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে পরের বছর আমার শরীর কেমন থাকবে,কতটা ফিট থাকব তা বলতে পারব না। 

দক্ষিণ আফ্রিকার একটি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রোটিয়া ব্যাটিং গ্রেট ডি ভিলিয়ার্স আরও বলেছেন, আমি অবশ্যই ফের জাতীয় দলের হয়ে খেলতে প্রস্তুত আছি। কিন্তু যদি ফিট না থাকি বা দলকে ৮০ ভাগ দিতে না পারি তাহলে জাতীয় দলে আর ফিরব না। 

ফর্মের তুঙ্গে থাকা অবস্তায় ২০১৮ সালের মে মাসে সবাইকে চমকিয়ে হঠাৎ করেই জাতীয় দল থেকে অবসর নেন ডি ভিলিয়ার্স। 

গত ডিসেম্বরে সাবেক সতীর্থ মার্কা বাউচার দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হওয়ার পর অবসর ভেঙে ডি ভিলিয়ার্সকে জাতীয় দলে ফেরার আগ্রহ দেখান তিনি। 

ধারনা করা হচ্ছিল অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই এবি ডি ভিলিয়ার্সকে দক্ষিণ আফ্রিকার দলে ফেরানো হবে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বকাপ হওয়া নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে। করোনায় শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ যদি পিছিয়ে আগামী বছরে চলে যায় তাহলে অনিশ্চিত হয়ে যাবে ডি ভিলিয়ার্সের জাতীয় দলে ফেরা।

 

 

ঘটনাপ্রবাহ : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ-২০২০