সাকিবই ড্রেসিংরুমের দরজা ভেঙেছিলেন, ভারতীয় মিডিয়ার দাবি

  স্পোর্টস ডেস্ক ২১ মার্চ ২০১৮, ০৮:০০ | অনলাইন সংস্করণ

সাকিব আল হাসান

নিদাহাস ট্রফি শেষ হলেও তার রেশ এখনও কাটেনি। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে এখনও আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। নিন্দুকেরাও বসে নেই।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে, ত্রিদেশীয় সিরিজে শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলার দিনে ড্রেসিংরুমের দরজা নাকি সাকিব আল হাসানই ভেঙেছেন।

কিছু সংবাদমাধ্যমের দাবি, বাংলাদেশি ক্রিকেটাররাই নাকি ড্রেসিংরুম ভাঙচুর করেছে! কিন্তু আসলে যে কাচ ভেঙেছেন, তার নাম প্রকাশিত হয়েছে।

বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচ শেষে প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামের ড্রেসিংরুমের কাচের দরজা ভেঙে গিয়েছিল। বিখ্যাত আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থাগুলো ড্রেসিংরুমের ভাঙা কাচের ছবি প্রকাশ করেছে। কে বা কারা ভেঙেছিলেন ড্রেসিংরুমের কাচের দরজা, তা নিয়ে অভিযোগ আর পাল্টা অভিযোগ শুরু হয়ে গিয়েছিল।

প্রশ্ন উঠেছিল- ড্রেসিংরুমের মতো সুরক্ষিত জায়গার কাচ ভাঙল কে? কিছু সংবাদমাধ্যমের দাবি, বাংলাদেশি ক্রিকেটাররাই নাকি ড্রেসিংরুম ভাঙচুর করেছে!

শ্রীলংকার সাংবাদপত্র ‘দ্য আইল্যান্ড’-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, খেলার অব্যবহিত পরে ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড ক্যাটারারদের সঙ্গে কথাবার্তা বলেন। জানতে চেষ্টা করেন, ড্রেসিংরুমের কাচ ভেঙেছেন কে। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অবশ্য কিছু বোঝা যায়নি।

দ্বীপরাষ্ট্রের সংশ্লিষ্ট সংবাদপত্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, কর্মীরাই নাকি জানিয়েছেন, বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানই রয়েছেন এর নেপথ্যে। তিনি নাকি বলপূর্বক ড্রেসিংরুমের দরজা বন্ধ করতে গিয়েই বিপত্তি ঘটিয়েছেন। সেদিন ম্যাচ চলাকালীন মেজাজও হারাতে দেখা গিয়েছিল সাকিবকে।

আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে চটে গিয়ে সতীর্থদের মাঠছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। নিজের মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে সাকিব হয়তো ড্রেসিংরুমের দরজা প্রবল জোরে বন্ধ করতে গিয়েছিলেন। আর তা করতে গিয়েই ভেঙে যায় দরজার কাচ।

ঘটনাপ্রবাহ : ত্রিদেশীয় সিরিজ শ্রীলংকা ২০১৮

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter