এখনও সেই ম্যাচের দুঃস্বপ্নে জেগে উঠি: লোকেশ রাহুল
jugantor
এখনও সেই ম্যাচের দুঃস্বপ্নে জেগে উঠি: লোকেশ রাহুল

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৬ এপ্রিল ২০২০, ১৩:৩৫:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল
ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল

সবশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের সেই পরাজয়ের কথা ভুলতে পারেননি ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল।

ম্যাচটি না জেতার আক্ষেপ প্রতিনিয়তই তাকে পীড়া দেয়।

স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে সে কথা জানালেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান।

সম্প্রতি এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে রাহুলকে জিজ্ঞেস করেন উপস্থাপক– কোন ম্যাচের স্মৃতি এখনও পীড়া দেয় আপনাকে?

রাহুল বলেন, এটি অবশ্যই বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল। সেই ম্যাচের ব্যর্থতা বারবার আমাকে কষ্ট দেয়। আমি সেই স্মৃতি ভুলে যেতে চাই। কিন্তু পারি না। আমি মনে করি, আমার মতো দলের অনেকেরই একই অনুভূতি। এখনও সেই ম্যাচ আমাদের তাড়িয়ে বেড়ায়।

তিনি বলেন, এটি মানতে অবশ্যই কষ্ট হয় যে, বিশ্বকাপের পুরোটা আসর এত ভালো খেলার পরও এমন একটা ম্যাচই সব স্বপ্ন শেষ করে দিল। আমি এখনও সেই ম্যাচের দুঃস্বপ্ন দেখে জেগে উঠি। ওই দিন সিনিয়র খেলোয়াড়দের মধ্যে কেমন অনুভূতি ছিল তা আমি কল্পনাও করতে পারি না।

উল্লেখ্য, ওয়ানডে বিশ্বকাপ-১৯ এ দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন লোকেশ রাহুল। সেমিফাইনালের আগের ম্যাচে অনবদ্য সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। সে ম্যাচে ১১১ রান ও তার আগেরটিতে ৭৭ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। কিন্তু সেমিফাইনালে মাত্র ১ রান করেই আউট হন তিনি। রাহুলসহ টপঅর্ডারদের ৪ জন সাজঘরে ফেরেন দলীয় ২৪ রানের মধ্যেই। ইংল্যান্ডের ছুড়ে দেয়া টার্গেট ২৪০ ছুঁতে পারেননি বিরাট কোহলিরা। সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয় ভারতকে।

 

এখনও সেই ম্যাচের দুঃস্বপ্নে জেগে উঠি: লোকেশ রাহুল

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৬ এপ্রিল ২০২০, ০১:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল
ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল

সবশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের সেই পরাজয়ের কথা ভুলতে পারেননি ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল।

ম্যাচটি না জেতার আক্ষেপ প্রতিনিয়তই তাকে পীড়া দেয়।

স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে সে কথা জানালেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান।

সম্প্রতি এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে রাহুলকে জিজ্ঞেস করেন উপস্থাপক– কোন ম্যাচের স্মৃতি এখনও পীড়া দেয় আপনাকে?

রাহুল বলেন, এটি অবশ্যই বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল। সেই ম্যাচের ব্যর্থতা বারবার আমাকে কষ্ট দেয়। আমি সেই স্মৃতি ভুলে যেতে চাই। কিন্তু পারি না। আমি মনে করি, আমার মতো দলের অনেকেরই একই অনুভূতি। এখনও সেই ম্যাচ আমাদের তাড়িয়ে বেড়ায়।

তিনি বলেন, এটি মানতে অবশ্যই কষ্ট হয় যে, বিশ্বকাপের পুরোটা আসর এত ভালো খেলার পরও এমন একটা ম্যাচই সব স্বপ্ন শেষ করে দিল। আমি এখনও সেই ম্যাচের দুঃস্বপ্ন দেখে জেগে উঠি। ওই দিন সিনিয়র খেলোয়াড়দের মধ্যে কেমন অনুভূতি ছিল তা আমি কল্পনাও করতে পারি না।

উল্লেখ্য, ওয়ানডে বিশ্বকাপ-১৯ এ দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন লোকেশ রাহুল। সেমিফাইনালের আগের ম্যাচে অনবদ্য সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। সে ম্যাচে ১১১ রান ও তার আগেরটিতে ৭৭ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। কিন্তু সেমিফাইনালে মাত্র ১ রান করেই আউট হন তিনি। রাহুলসহ টপঅর্ডারদের ৪ জন সাজঘরে ফেরেন দলীয় ২৪ রানের মধ্যেই। ইংল্যান্ডের ছুড়ে দেয়া টার্গেট ২৪০ ছুঁতে পারেননি বিরাট কোহলিরা। সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয় ভারতকে।