‘দেশ-দলের জন্য সব করেন সৌরভ, কিছুই করেননি ধোনি’

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৯ মে ২০২০, ১১:৫৮:০২ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন দেশটির বিশ্বকাপজয়ী তারকা যুবরাজ সিংয়ের বাবা যোগরাজ সিং। একইসঙ্গে সর্বকালের অন্যতম সেরা ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ফের ধুয়ে দিলেন তিনি।

যোগরাজ মনে করেন, সৌরভ যে দল গড়েছিলেন, সেটার ফল পেয়েছেন ধোনি। তাকে নতুন করে পরিশ্রম করতে হয়নি।

ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ডে (২০০০ সাল) যখন জর্জরিত টিম ইন্ডিয়া, তখন দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব তুলে দেয়া হয় তরুণ সৌরভের হাতে। এরপরই ভারতীয় ক্রিকেটে আসে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। জাতীয় দলকে ১৪৬ ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দেন তিনি। এর মধ্যে ৭৬ ম্যাচে জেতে ভারত। আর ৬৫ ম্যাচে হার হজম করে।

এসময়ে সৌরভের নেতৃত্বে ৪৯ টেস্ট খেলে ২১ ম্যাচ জেতে ভারত। তন্মধ্যে ১১ জয় এসেছে বিদেশের মাটিতে। অধিনায়ক হিসেবে দেশকে ২০০২ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং ঐতিহাসিক ন্যাটওয়েস্ট শিরোপা উপহার দেন তিনি।

ক্যাপ্টেনের পালাবদলে সৌরভের হাতে গড়া যুবরাজ, হরভজন, জহির, নেহরা, পাঠান, শেবাগ, গম্ভীর সমৃদ্ধ এক শক্তিশালী দলকে লিড দেয়ার সুযোগ পান ধোনি। সেই সঙ্গে মাস্টার ব্লাস্টার টেন্ডুলকার, ব্যাটিং মায়েস্ত্রো কোহলি, রোহিত, ধাওয়ানের মতো ক্রিকেটারদের পেয়ে ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জেতেন তিনি। দেশকে ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও এনে দেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান।

ধোনির অধীনে ৬০টি টেস্ট খেলে ২৭ ম্যাচে জয় পায় তারা। ১৯৯ ওয়ানডে খেলে ১১০ ম্যাচ জেতেন মেন ইন ব্লুরা। এছাড়া ৭২ টি-টোয়েন্টির মধ্যে ৪১টিতে জয় তুলে নেন তারা।

ধোনি সাফল্য বেশি পেলেও সৌরভকে এগিয়ে রাখছেন যোগরাজ। তিনি বলেন, সৌরভ যখন অধিনায়ক হন, তখন টেস্ট ও ওয়ানডেতে অনেক নিচের দিকে ছিল দল। সেই টিমকে চাঙা করে বিশ্বকাপ জয়ের দাবিদার করেন উনি। যুবরাজ, কাইফ, জহির, হরভজন, শেবাগ, গম্ভীরের মতো তরুণ প্রতিভাকে দলে সুযোগ করে দেন প্রিন্স অব ক্যালকাটা। উনি নিজ দেশ, দল ও সতীর্থদের সম্পর্কে ভাবতেন। সবার কথা শুনতেন। প্রত্যেকের হয়ে লড়তেন। তাই ভারতীয় ক্রিকেট সর্বদা তাকে সম্মান করবে।

যোগরাজ বলেন, ভারতীয় ক্রিকেটের পরবর্তী প্রজন্ম তৈরি করে দিয়েছিলেন সৌরভ। সেই দলই ভারতকে বিশ্বকাপসহ একাধিক ট্রফি জিতিয়েছে। ধোনি আলাদা করে নতুন কিছু করেননি। কোনো সতীর্থের জন্য কিছু করেননি। তার অবদান জিরো, নেই বললেই চলে!

এর আগেও অসংখ্যবার ধোনির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন যোগরাজ। ২০১৫ বিশ্বকাপ দলে যুবরাজের না থাকার মূলে ক্যাপ্টেনকুলকেই নাটের গুরু বলেন তিনি। এখনও সময় সুযোগ পেলেই তাকে ধুয়ে দেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার কাম অভিনেতা।

কয়েকদিন আগেই যুবরাজের সঙ্গে ধোনি বিশ্বাসঘাতকতা করেছে বলে অভিযোগ করেন যোগরাজ। বর্তমান জাতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেও কাঠগড়ায় দাঁড় করান তিনি। পাশাপাশি নির্বাচকদের ঘাড়েও দায় চাপান এ স্পষ্টভাষী ব্যক্তিত্ব। তিনি বলেন, সবাই একজোট হয়ে আমার যুবরাজের পিঠে ছুরি মেরেছে। অবিস্মরণীয় প্রতারণা করেছে।

এতদসত্ত্বেও বরাবরই নীরব থাকেন ধোনি। এবার ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক কোনো জবাব দেন কিনা, তাই দেখার।

তথ্যসূত্র: টাইমস নাউ

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত