মনে হচ্ছিল আমি বুঝি ভিলেন: যুবরাজ

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৪ মে ২০২০, ১৫:৫২:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতের ২০০৭ টি-টোয়েন্টি ও ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম নায়ক যুবরাজ সিং। '১১ বিশ্বমঞ্চে সেরা পারফরমার নির্বাচিত হন তিনি। '০৭ বৈশ্বিক টুর্নামেন্টেও সেই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন যুবি।

ফলে যুবরাজকে বড় মঞ্চের খেলোয়াড় বলে বিবেচনা করা হয়। স্বাভাবিকভাবেই ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাকে নিয়ে সমর্থকদের প্রত্যাশা ছিল মাত্রাতিরিক্ত, যা পূরণে ব্যর্থ হন ভারতীয় সাবেক তারকা অলরাউন্ডার।

শ্রীলংকার বিপক্ষে ফাইনালে ২১ বলে ১১ রানের মন্থর ইনিংস খেলেন যুবরাজ। বিশেষ করে এটি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেননি ভারতীয় সমর্থকরা। তাই লংকানদের কাছে শিরোপা হারায় তাকেই ভিলেন হিসেবে গণ্য করেন তারা।

বিশ্বকাপ জয়ের পর নায়ক হিসেবে যুবরাজকে ফুল দিয়ে বরণ করেন দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। তার পূজা করতেও পিছপা হননি তারা। সেই তারাই বিশ্বমঞ্চে ট্রফি হাতছাড়া হওয়ার পর তাকে খলনায়ক বানিয়ে ছাড়েন। বিশ্বকাপ হারার জন্য দায়ী করে যুবির বাড়িতে পাথরও ছুড়েন অতি পাঁড় সমর্থকরা।

সেই দুঃসহ যাতনার স্মৃতিচারণায় যুবরাজ বলেন, আমি কখনই নিজের দায় এড়িয়ে যাইনি। সেদিন সত্যিই ভালো খেলিনি। দুর্ভাগ্যের বিষয়, সেটি ছিল বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ। আর পাঁচটা সাধারণ ম্যাচ হলে হয়তো সমর্থকদের মধ্যে এতটা প্রতিক্রিয়া তৈরি হতো না। বাড়ি ফেরার পর মনে হচ্ছিল, আমি বুঝি ভিলেন। সবার ক্ষোভ দেখে বোধ হচ্ছিল, কাউকে খুন করেছি, এবার কারাগারে যেতে হবে।

তিনি বলেন, আমার বাড়িতে পাথর ছোড়া হয়। আমি ছয় ছক্কার ব্যাটটার ওপরে আমার ইন্ডিয়া ক্যাচটা ঝুলিয়ে রেখেছিলাম। মনে হয়, আমার ক্যারিয়ার বুঝি ওখানেই শেষ।

তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত