নিরপেক্ষতা জানালা দিয়ে ছুড়ে ফেলেছে আইসিসি: শোয়েব

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৪ মে ২০২০, ১৬:৫২:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিদ্রুপের শিকার হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন শোয়েব আখতার। তিনি বললেন, কীভাবে রাষ্ট্র বিশেষের স্বার্থ রক্ষা করে আইসিসি, এর মাধ্যমে সেটারই প্রমাণ পাওয়া গেল।

সম্প্রতি অতীত একজন ও বর্তমানের একজন ক্রিকেট তারকাকে পাশাপাশি রেখে সম্ভাব্য দ্বৈরথ সম্পর্কে অনুরাগীদের মতামত জানতে চায় আইসিসি। তাতে অস্ট্রেলিয়ার হালের ব্যাটিং মায়েস্ত্রো স্টিভ স্মিথের সঙ্গে পাকিস্তানের সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতারের লড়াই কেমন হতে পারে, তা জানতে চাওয়া হয়। এক্ষেত্রে সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে একটি পোস্ট করে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

সেটি রি-টুইট করে শোয়েব বলেন, এখন খেললে স্মিথকে তিনটি ভয়ংকর বাউন্সার দিতাম। এরপর চতুর্থ বলে তার উইকেট তুলে নিতাম।

মাত্র চার বলে স্মিথকে আউট করার শোয়েবের এ দাবি হাস্যকর বলে মনে করে আইসিসি। একটি ব্যঙ্গাত্মক ছবির সিরিজের মাধ্যমে সাবেক পাক তারকাকে বিদ্রুপ করে বিশ্ব ক্রিকেটের নীতি-নির্ধারণী সংস্থা। কিংবদন্তি বাস্কেটবল তারকা মাইকেল জর্ডানের দুটি মুখভঙ্গিমার সঙ্গে তার টুইটের ছবি পোস্ট করে তারা। সেটি দেখলে মনে হবে, সর্বকালের দ্রুতগতির বোলারের এমন দাবি শুনে হাসছেন মার্কিন বাস্কেটবল তারকা।

আইসিসির এমন ট্রোলের জবাবে পাল্টা পোস্ট করেন শোয়েব। ক্যাপশনে তিনি লেখেন, এটি প্রতীকী টুইট। বোঝা যাচ্ছে কীভাবে বিশ্ব ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা নিরপেক্ষতা জানালা দিয়ে ছুড়ে ফেলেছে। বিশেষত যেভাবে দেশ/দল/বোর্ড বিশেষের স্বার্থ রক্ষার চেষ্টা করে তারা, এখানে সেটাই প্রতীয়মান হচ্ছে।

পরে আরেকটি টুইটে কিছু পুরনো ভিডিও পোস্ট করেন শোয়েব। সেগুলোতে একের পর এক ভয়াল বাউন্সারে ব্যাটসম্যানকে আহত করতে দেখা যায় তাকে। ক্যাপশনে তিনি লেখেন, প্রিয় আইসিসি, অনুগ্রহ করে কোনো মিম বা ইমোজি খুঁজে বের কর। দুঃখিত, আমি এমন কিছুর সন্ধান পাইনি। সবই নিখাঁদ ভিডিও।

তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত