কোহলির পর্যায়ে যেতে বাবর আজমের অনেক পথ বাকি: ইউনিস খান
jugantor
কোহলির পর্যায়ে যেতে বাবর আজমের অনেক পথ বাকি: ইউনিস খান

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৮ মে ২০২০, ২২:২৪:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

বাবর আজম-বিরাট কোহলি
বাবর আজম-বিরাট কোহলি। ফাইল ছবি

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইউনিস খান বলেছেন, বিরাট কোহলির সঙ্গে এখনই বাবর আজমকে তুলনা করা ঠিক নয়। বাবরকে আরও কমপক্ষে পাঁচ বছর ধারাবাহিক পারফর্ম করতে হবে। ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি নিজেকে সব ধরনের পরিস্থিতিতে প্রমাণ করেছে।

পাকিস্তানের হয়ে টেস্টে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ইউনিস খান সম্প্রতি পিটিআইকে বলেছেন, বাবরের তুলনায় কোহলি অনেক বেশি অভিজ্ঞ। শীর্ষ ক্রিকেটে বাবরের চেয়ে বিরাটের সাত বছরের বেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং কোহলি তার ক্যারিয়ারের শীর্ষে রয়েছে।

ইউনিস খান আরও বলেন, বিরাট কোহলির মতো এত কম ম্যাচ খেলে এত বেশি সেঞ্চুরি কেউই করতে পারেনি। সে প্রতিটি পরিস্থিতিতে এবং সব প্রতিপক্ষ দলের বিপক্ষে রান করেছে। কোহলির সমপর্যায়ে যেতে বাবরের এখনও অনেক পথ বাকি আছে। সে মাত্র মাত্র পাঁচ বছর ধরে শীর্ষ ক্রিকেটে রয়েছে। তবে বাবর তিনটি ফরম্যাটেই খুব দুর্দান্ত ব্যাটিং করছে, তার ব্যাটিং গড়ও ভালো।

বিরাট কোহলি ২০০৮ সালের আগস্ট থেকে ভারতের হয়ে ৮৬ টেস্ট, ২৪৮ ওয়ানডে আর ৮২টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। সবমিলে ৪১৬ ম্যাচে ৭০টি সেঞ্চুরির সাহায্যে এক যুগে ২১ হাজার ৯০১ রান সংগ্রহ করেছেন।

অন্যদিকে পাকিস্তানের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক বাবর আজম ২০১৫ সালের মে থেকে পাকিস্তানের হয়ে ২৬টি টেস্ট, ৭৪টি ওয়ানডে আর ৩৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। সবমিলে ১৩৮ ম্যাচে ১৮টি সেঞ্চুরির সাহায্যে ৬ হাজার ৬৮০ রান করেছেন।

কোহলির পর্যায়ে যেতে বাবর আজমের অনেক পথ বাকি: ইউনিস খান

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৮ মে ২০২০, ১০:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাবর আজম-বিরাট কোহলি
বাবর আজম-বিরাট কোহলি। ফাইল ছবি

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইউনিস খান বলেছেন, বিরাট কোহলির সঙ্গে এখনই বাবর আজমকে তুলনা করা ঠিক নয়। বাবরকে আরও কমপক্ষে পাঁচ বছর ধারাবাহিক পারফর্ম করতে হবে। ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি নিজেকে সব ধরনের পরিস্থিতিতে প্রমাণ করেছে।

পাকিস্তানের হয়ে টেস্টে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ইউনিস খান সম্প্রতি পিটিআইকে বলেছেন, বাবরের তুলনায় কোহলি অনেক বেশি অভিজ্ঞ। শীর্ষ ক্রিকেটে বাবরের চেয়ে বিরাটের সাত বছরের বেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং কোহলি তার ক্যারিয়ারের শীর্ষে রয়েছে।

ইউনিস খান আরও বলেন, বিরাট কোহলির মতো এত কম ম্যাচ খেলে এত বেশি সেঞ্চুরি কেউই করতে পারেনি। সে প্রতিটি পরিস্থিতিতে এবং সব প্রতিপক্ষ দলের বিপক্ষে রান করেছে। কোহলির সমপর্যায়ে যেতে বাবরের এখনও অনেক পথ বাকি আছে। সে মাত্র মাত্র পাঁচ বছর ধরে শীর্ষ ক্রিকেটে রয়েছে। তবে বাবর তিনটি ফরম্যাটেই খুব দুর্দান্ত ব্যাটিং করছে, তার ব্যাটিং গড়ও ভালো।

বিরাট কোহলি ২০০৮ সালের আগস্ট থেকে ভারতের হয়ে ৮৬ টেস্ট, ২৪৮ ওয়ানডে আর ৮২টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। সবমিলে ৪১৬ ম্যাচে ৭০টি সেঞ্চুরির সাহায্যে এক যুগে ২১ হাজার ৯০১ রান সংগ্রহ করেছেন।

অন্যদিকে পাকিস্তানের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক বাবর আজম ২০১৫ সালের মে থেকে পাকিস্তানের হয়ে ২৬টি টেস্ট, ৭৪টি ওয়ানডে আর ৩৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। সবমিলে ১৩৮ ম্যাচে ১৮টি সেঞ্চুরির সাহায্যে ৬ হাজার ৬৮০ রান করেছেন।