কাশ্মীর ইস্যুতে আফ্রিদিকে ধুয়ে দিলেন কানেরিয়া

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৬ মে ২০২০, ১৮:৪২:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করে ঝাঁঝালো বক্তব্য দিয়েছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক বুমবুম শহীদ আফ্রিদি। যা নিয়ে করোনাকালে দুই চিরবৈরি দেশে শোরগোল পড়ে যায়।

ওই মন্তব্যের পর আফ্রিদিকে এক হাত নেন ভারতের সাবেক ওপেনার ও বিজেপি নেতা গৌতম গম্ভীর। স্পিনার হরভজন সিং ও সুরেশ রায়নাও ছেড়ে কথা বলেননি আফ্রিদিকে।

এবার ওই একই ইস্যুতে আফ্রিদির কড়া সমালোচনা করলেন তার দেশের সতীর্থ খেলোয়াড় দীনেশ কানেরিয়া।

সম্প্রতি ভারতীয় টিভি চ্যানেল ইন্ডিয়া টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কানেরিয়া বলেছেন, আফ্রিদির উচিত এসব বিষয়ে আরও চিন্তাভাবনা করে কথা বলা। আমি মনে করি, এসব কথা ক্রিকেটারদের মুখে শোভা পায় না। বিষয়টি সম্পূর্ণ রাজনৈতিক ইস্যু। অবশ্য তিনি যদি রাজনীতিতে যোগ দিতে চান, তাহলে তার এখনই ক্রিকেট ছেড়ে দেয়া ভালো। রাজনীতিবিদদের মতো করা বলা আফ্রিদির সেই বক্তব্য বিশ্বে পাকিস্তান ক্রিকেটের নেতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরি করে।

করোনা মোকাবেলায় আফ্রিদির ফাউন্ডেশনে ভারতীয় ক্রিকেটারদের অনুদানের প্রসঙ্গও তোলেন এই সাবেক পাক লেগ স্পিনার।

তিনি বলেন, ভারতীয় ক্রিকেটারদের কাছে সাহায্য নিয়ে এখন তাদের প্রধানমন্ত্রীর ব্যাপারে নেতিবাচক মন্তব্য আফ্রিদির করা উচিত নয়। এটা কোন ধরনের বন্ধুত্ব আফ্রিদির?

উল্লেখ্য, কাশ্মীর ইস্যুতে কয়েকদিন আগে এক ভিডিওতে আফ্রিদি বলেছিলেন, বিশ্ব এখন মরণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। কিন্তু নরেন্দ্র মোদি এর চেয়েও বিপদজনক। তিনি কাশ্মীরে ৭ লাখ সেনা মোতায়েন করেছেন। যা পাকিস্তানের মোট সেনা সংখ্যার সমান।

প্রসঙ্গত, দীনেশ কানেরিয়া পাকিস্তানের জার্সি গায়ে ৬১টি টেস্ট ও ১৮টি ওয়ানডে খেলেছেন। টেস্টে ২৬১টি ও ওয়ানডে তে ১৫টি উইকেট জমা করেছেন ঝুলিতে। ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটে স্পট-ফিক্সিংয়ের দায়ে ক্রিকেট থেকে আজীবন নিষিদ্ধ হন এই পাক লেগ স্পিনার।

তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস, টাইমস নাউ নিউজ, আউটলুক

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত