১১ মাস পর বিশ্বকাপের ‘উইনিং বোনাস মানি’ পাচ্ছেন সাকিব-তামিমরা
jugantor
১১ মাস পর বিশ্বকাপের ‘উইনিং বোনাস মানি’ পাচ্ছেন সাকিব-তামিমরা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৯ মে ২০২০, ২১:৫১:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ শেষ হয়েছে ১১ মাস হল। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ক্রিকেটারদের উইনিং বোনাস মানি দিতে এতদিন গড়িমসি করে আসছিল। অবশেষে ক্রিকেটারদের সংগঠন ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) মধ্যস্থতায় সাকিব-তামিমদের প্রাইজামানির অর্থ দিতে সম্মত হয়েছে বিসিবি।

বিশ্বকাপ দলে থাকা ক্রিকেটাররা পাবেন প্রায় দুই কোটি টাকা। বিশ্বকাপে তিনটি ম্যাচ জেতার সুবাদে শুধু বোনাস হিসেবেই ১ লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার পাওয়ার কথা বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের।

নিয়ম অনুযায়ী, আইসিসির কাছ থেকে অর্থ বুঝে পাওয়ার ১৪ দিনের মধ্যে খেলোয়াড়দের অংশ পরিশোধে বাধ্য বোর্ড। কিন্তু আইসিসির সঙ্গে এ সংক্রান্ত চুক্তির কিছু ধারা নিয়ে ধোঁয়াশা থাকায় পাপ্য পরিশোধে গড়িমসি করছিল বিসিবি।

শুক্রবার ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে কোয়াব সভাপতি নাঈমুর রহমান দুর্জয় জানান, এই প্রাইজমানি খেলোয়াড়দের প্রাপ্য কিনা এ নিয়ে শুরুতে দ্বিধায় ছিল ক্রিকেট বোর্ড। আলোচনার পর সেই দ্বিধা কেটে গেছে। খেলোয়াড়দের প্রাইজমানি বুঝিয়ে দেয়ার প্রক্রিয়া ঈদের আগেই শুরু হয়েছে। বোর্ডের অফিস খুললেই খেলোয়াড়দের অ্যাকউন্টে অর্থ চলে যাবে।

১১ মাস পর বিশ্বকাপের ‘উইনিং বোনাস মানি’ পাচ্ছেন সাকিব-তামিমরা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৯ মে ২০২০, ০৯:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ শেষ হয়েছে ১১ মাস হল। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ক্রিকেটারদের উইনিং বোনাস মানি দিতে এতদিন গড়িমসি করে আসছিল। অবশেষে ক্রিকেটারদের সংগঠন ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) মধ্যস্থতায় সাকিব-তামিমদের প্রাইজামানির অর্থ দিতে সম্মত হয়েছে বিসিবি।

বিশ্বকাপ দলে থাকা ক্রিকেটাররা পাবেন প্রায় দুই কোটি টাকা। বিশ্বকাপে তিনটি ম্যাচ জেতার সুবাদে শুধু বোনাস হিসেবেই ১ লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার পাওয়ার কথা বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের।

নিয়ম অনুযায়ী, আইসিসির কাছ থেকে অর্থ বুঝে পাওয়ার ১৪ দিনের মধ্যে খেলোয়াড়দের অংশ পরিশোধে বাধ্য বোর্ড। কিন্তু আইসিসির সঙ্গে এ সংক্রান্ত চুক্তির কিছু ধারা নিয়ে ধোঁয়াশা থাকায় পাপ্য পরিশোধে গড়িমসি করছিল বিসিবি।

শুক্রবার ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে কোয়াব সভাপতি নাঈমুর রহমান দুর্জয় জানান, এই প্রাইজমানি খেলোয়াড়দের প্রাপ্য কিনা এ নিয়ে শুরুতে দ্বিধায় ছিল ক্রিকেট বোর্ড। আলোচনার পর সেই দ্বিধা কেটে গেছে। খেলোয়াড়দের প্রাইজমানি বুঝিয়ে দেয়ার প্রক্রিয়া ঈদের আগেই শুরু হয়েছে। বোর্ডের অফিস খুললেই খেলোয়াড়দের অ্যাকউন্টে অর্থ চলে যাবে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন