‘পাকিস্তানকে বাদ দিতেই বিশ্বকাপে হেরেছে ভারত’

  স্পোর্টস ডেস্ক ৩১ মে ২০২০, ১৫:১২:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯-এ ভারত বনাম স্বাগতিক ইংল্যান্ডের ম্যাচ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করছেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিনার মুশতাক আহমেদ।

তিনি দাবি করেন, বিশ্বকাপ আসর থেকে পাকিস্তানের বিদায় ঘণ্টা বাজাতে ইংল্যান্ডের কাছে ইচ্ছা করে হেরেছে ভারত।

সম্প্রতি পাকিস্তানের টিভি চ্যানেল এআরওয়াই স্পোর্টসকে মুশতাক আহমেদ এমন বক্তব্য দিয়েছেন বলে জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

এআরওয়াই স্পোর্টসকে পাকিস্তানের এই সাবেক স্পিনার বলেছেন, গত বছরের বিশ্বকাপের সময় আমি ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সঙ্গে কাজ করছিলাম। ভারত যখন ইংল্যান্ডের কাছে হেরে গেল, তখন জেসন হোল্ডার, ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেলরা আমাকে বলছিল– এটিই স্বাভাবিক যে, ভারত চায় না পাকিস্তান সেমিফাইনালে খেলুক।

অবশ্য সেই ম্যাচে হারের পর থেকে এমন বক্তব্য বরাবরই দিয়ে আসছিলেন কয়েকজন সাবেক পাক ক্রিকেটার।

সম্প্রতি ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের আত্মজীবনীমূলক বইয়ের এক লেখার সূত্র ধরেই ফের বিষয়টি সামনে এসেছে।

পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার সিকান্দার সম্প্রতি টুইটারে দাবি করেন, বেন স্টোকস তার আত্মজীবনী বইতে লিখেছেন– বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটিতে তিনি বেশ অবাক হয়েছিলেন। তার ধারণা, সেদিন ভারত জেনেশুনেই ইংল্যান্ডের কাছে হেরেছিল। আর তা করেছিল বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তানকে সরিয়ে দিতেই।

এদিকে মুশতাকের মতো একই দাবি করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার আবদুল রাজ্জাক।

তিনি ভারতীয় দলকে সরাসরি দোষারোপ করে বলেছেন, এটি স্পষ্ট যে, সেদিন ভারতের ইচ্ছা করে হেরেছিল ইংল্যান্ডের কাছে। ধোনির মতো একজন, যে কিনা ইচ্ছেমতো মারতে পারে, সেই ধোনি সেদিন শুধু ডিফেন্স করে যাচ্ছিল। ওই ম্যাচে ধোনি ৩১ বলে ৪২ রান করেন।

প্রসঙ্গত গত বছরের ওয়ানডে বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ড থেকেই বাদ পড়ে বিশ্বকাপজয়ী টিম পাকিস্তান। তবে গ্রুপ পর্বের একপর্যায়ে ইংল্যান্ডের কাছে ভারতের জয়-পরাজয়ের ওপর সরফরাজদের সেমিফাইনালে ওঠার ভাগ্য ঝুলছিল। কিন্তু সে ম্যাচে ভারত হেরে যায়। নিশ্চিতভাবে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ মিশন শেষ হয়।

সেই ম্যাচে স্বাগতিকের কাছে ৩১ রানে হারে ভারত। জনি বেয়ারস্টোর ১১১ ও বেন স্টোকসের ৭৯ রানের ওপর ভর করে ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে ৩৩৭ রান টার্গেট ছুড়ে দেয়। জবাবে ভারত ৩০৬ রান করতে সক্ষম হয়।

ঘটনাপ্রবাহ : আইসিসি বিশ্বকাপ-২০১৯

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত