জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে হুংকার ছুড়লেন টাইগার

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৩ জুন ২০২০, ১৩:০৪:৪৫ | অনলাইন সংস্করণ

প্রতিবাদের সুর ক্রমশ জোরালো হচ্ছে। শুধু যুক্তরাষ্ট্রে নয়, দ্রুত তা সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ছে। পুলিশি হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনায় ধিক্কার জানাচ্ছেন সমাজের সর্বস্তরের মানুষ।

পিছিয়ে নেই ক্রীড়াবিদরা। একের পর এক মহাতারকা নারকীয় এ ঘটনার নিন্দায় সরব হচ্ছেন। এবার গলফ সুপারস্টার টাইগার উডস রীতিমতো বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালেন। একটু দেরিতে হলেও অবশেষে এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ খুললেন তিনি।

৪৪ বছর বয়সী অ্যাথলেট টুইটারে লেখেন– আইন প্রয়োগকারীদের প্রতি আমার সর্বদা গভীর শ্রদ্ধা ছিল। তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয় সযত্নে উপলব্ধি করার- কোথায় ও কীভাবে বল প্রয়োগ করতে হবে। এ মর্মান্তিক ট্র্যাজেডি সব সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, গেল ২৫ মে মিনোপোলিসে সাবেক বাস্কেটবল তারকা ফ্লয়েডের গলা টানা প্রায় ৮ মিনিট হাঁটু দিয়ে চেপে রাখেন এক শেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা। ফলে শ্বাসরোধ হয়ে তার মৃত্যু হয়।

সঙ্গে সঙ্গে তা ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায়। পরিপ্রেক্ষিতে এ ন্যক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্র। অগ্নিস্ফূলিঙ্গের মতো ফুঁসে ওঠেন কালো বর্ণের মানুষগুলো। একাধিক দোকানপাট, স্থাপনায় লুটপাট, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন তারা।

এর রেশ আছড়ে পড়ছে গোটা বিশ্বে। রাজনীতি ও বিনোদন জগতের মানুষও তাতে সমর্থন দিচ্ছেন। এ মুহূর্তে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে নিজেদের বেশ কয়েকটি শহরে কারফিউ জারি এবং সেনা মোতায়েন করেছে মার্কিন প্রশাসন।

তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

ঘটনাপ্রবাহ : কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় অগ্নিগর্ভ যুক্তরাষ্ট্র

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত