‘বিশ্বসেরা হওয়ার জন্য নেইমারের সবকিছুই আছে’
jugantor
‘বিশ্বসেরা হওয়ার জন্য নেইমারের সবকিছুই আছে’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৭ জুন ২০২০, ২২:০১:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নেইমার
নেইমার ফাইল ছবি

ব্রাজিলের অন্যতম সফল তারকা ফুটবলার কাফু বলেছেন, আগামীতে বর্ষসেরা ফুটবলার হওয়ার জন্য নেইমারের সবকিছুই আছে। আমি নিশ্চিত ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের দারুণ কাটবে। আমাদের নেইমার আছে। আরও বেশ কিছু তরুণ সম্ভাবনাময় খেলোয়াড় আছে।

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার দখল করে আছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এ দু'জনের মধ্যে আপনি কাকে সেরা ভাবেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে ব্রাজিলের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জেতা কাফু বলেন, ১৫ বছর ধরে তারা শীর্ষে অবস্থান করছে। একজন জিতেছে ছয়বার, অন্যজন পাঁচবার। তাদের মধ্যে থেকে একজন বেছে নেওয়াটা কঠিন। দু'জনই চমৎকার ফুটবলার।

রোনালদিনহো প্রসঙ্গে কাফু বলেন, সে খুব আনপ্রেডিক্টেবল ছিল। সে এমন কিছু করতে পারতো, যা আপনি কল্পনাই করতে পারবেন না। তাকে মার্ক করা ছিল প্রায় অসম্ভব।

নিজের জীবনের পঞ্চাশ বছরপূর্তিতে ফিফাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে কাফু জানান, কাতার ২০২২ সালের বিশ্বকাপে আমি শুভেচ্ছাদূত। তারপর কোচ হওয়ার বিষয়ে আমি ভাবতে পারি। তবে এখনও নিশ্চিত নয়। ফুটবলে অনেক বছর ধরে পাওয়া শিক্ষা অন্যের মাঝে ছড়িয়ে দেয়াটা দারুণ হবে।

‘বিশ্বসেরা হওয়ার জন্য নেইমারের সবকিছুই আছে’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৭ জুন ২০২০, ১০:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নেইমার
নেইমার ফাইল ছবি

ব্রাজিলের অন্যতম সফল তারকা ফুটবলার কাফু বলেছেন, আগামীতে বর্ষসেরা ফুটবলার হওয়ার জন্য নেইমারের সবকিছুই আছে। আমি নিশ্চিত ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের দারুণ কাটবে। আমাদের নেইমার আছে। আরও বেশ কিছু তরুণ সম্ভাবনাময় খেলোয়াড় আছে।

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার দখল করে আছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এ দু'জনের মধ্যে আপনি কাকে সেরা ভাবেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে ব্রাজিলের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জেতা কাফু বলেন, ১৫ বছর ধরে তারা শীর্ষে অবস্থান করছে। একজন জিতেছে ছয়বার, অন্যজন পাঁচবার। তাদের মধ্যে থেকে একজন বেছে নেওয়াটা কঠিন। দু'জনই চমৎকার ফুটবলার।

রোনালদিনহো প্রসঙ্গে কাফু বলেন, সে খুব আনপ্রেডিক্টেবল ছিল। সে এমন কিছু করতে পারতো, যা আপনি কল্পনাই করতে পারবেন না। তাকে মার্ক করা ছিল প্রায় অসম্ভব।

নিজের জীবনের পঞ্চাশ বছরপূর্তিতে ফিফাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে কাফু জানান, কাতার ২০২২ সালের বিশ্বকাপে আমি শুভেচ্ছাদূত। তারপর কোচ হওয়ার বিষয়ে আমি ভাবতে পারি। তবে এখনও নিশ্চিত নয়। ফুটবলে অনেক বছর ধরে পাওয়া শিক্ষা অন্যের মাঝে ছড়িয়ে দেয়াটা দারুণ হবে।