‘সশরীরে না গিয়েও ক্রিকেটাররা ত্রাণ দিতে পারে’
jugantor
‘সশরীরে না গিয়েও ক্রিকেটাররা ত্রাণ দিতে পারে’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২১ জুন ২০২০, ২২:৫৭:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় দলের সাবেক ও বর্তমান তিন ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজা, নাফীস ইকবাল ও নাজমুল ইসলাম অপু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর কোনো ক্রিকেটার যাতে মহামারীতে আক্রান্ত না হন সে জন্য ক্রিকেটারদের সংক্রমণ এড়াতে সশীরের না গিয়ে বিভিন্ন মারফতে ত্রাণ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

রোববার সাংবাদিকদের বিসিবি চিকিৎসক বলেছেন, মানবিক কারণে অবশ্যই করোনাকালীন সাহায্য-সহযোগিতা করা যাবে। তবে সেটা সশরীরে গিয়ে নয়। ক্রিকেটাররা এখন বেশি সতর্ক। মাশরাফিই সশরীরে ত্রাণ বিতরণ করেছেন, কারণ ক্রিকেট ব্যক্তিত্বের পাশাপাশি তিনি নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য। সে জন্য নিজ এলাকায় সাধারণ মানুষদের সশরীরে গিয়ে সাহায্য করেছেন।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান জাতীয় দলের আর কোনো ক্রিকেটার সশরীরে ত্রাণ বিতরণ করেননি। তারা কারও না কারও মাধ্যমে খাদ্য ও নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং অর্থ সাহায্য করে যাচ্ছেন। তবে আমরা এখন পর্যন্ত কোনো নির্দেশনা দেইনি। হয়তো এখন সময় এসেছে বোর্ড থেকে একটা নির্দেশনা দেয়ার।

মহামারী করোনাভাইরাসে অসহায় হয়ে পড়া মানুষের সহযোগিতার জন্য ফান্ড তৈরি করে সশরীরে গিয়ে সাহায্য-সহযোগিতা দিয়েছেন জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার নাজমুল ইসলাম অপু। ধারণা করা হচ্ছে করোনায় বিভিন্ন পেশার মানুষের সঙ্গে মেলামেশা করায় তিনি আক্রান্ত হয়েছে। যে কারণে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের এখন সশরীরে গিয়ে ত্রাণ দেয়ার থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিসিবি চিকিৎসক।

মাশরাফি আর নাজমুল ইসলাম অপুর পাশাপাশি শনিবার করোনা পরীক্ষায় ফল পজেটিভ আসে জাতীয় দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার নাফীস ইকবালের।

‘সশরীরে না গিয়েও ক্রিকেটাররা ত্রাণ দিতে পারে’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২১ জুন ২০২০, ১০:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় দলের সাবেক ও বর্তমান তিন ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজা, নাফীস ইকবাল ও নাজমুল ইসলাম অপু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর কোনো ক্রিকেটার যাতে মহামারীতে আক্রান্ত না হন সে জন্য ক্রিকেটারদের সংক্রমণ এড়াতে সশীরের না গিয়ে বিভিন্ন মারফতে ত্রাণ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

রোববার সাংবাদিকদের বিসিবি চিকিৎসক বলেছেন, মানবিক কারণে  অবশ্যই করোনাকালীন সাহায্য-সহযোগিতা করা যাবে। তবে সেটা সশরীরে গিয়ে নয়। ক্রিকেটাররা এখন বেশি সতর্ক। মাশরাফিই সশরীরে ত্রাণ বিতরণ করেছেন, কারণ ক্রিকেট ব্যক্তিত্বের পাশাপাশি তিনি নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য। সে জন্য নিজ এলাকায় সাধারণ মানুষদের সশরীরে গিয়ে সাহায্য করেছেন। 

তিনি আরও বলেন, বর্তমান জাতীয় দলের আর কোনো ক্রিকেটার সশরীরে ত্রাণ বিতরণ করেননি। তারা কারও না কারও মাধ্যমে খাদ্য ও নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং অর্থ সাহায্য করে যাচ্ছেন। তবে আমরা এখন পর্যন্ত কোনো নির্দেশনা দেইনি। হয়তো এখন সময় এসেছে বোর্ড থেকে একটা নির্দেশনা দেয়ার।

মহামারী করোনাভাইরাসে অসহায় হয়ে পড়া মানুষের সহযোগিতার জন্য ফান্ড তৈরি করে সশরীরে গিয়ে সাহায্য-সহযোগিতা দিয়েছেন জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার নাজমুল ইসলাম অপু। ধারণা করা হচ্ছে করোনায় বিভিন্ন পেশার মানুষের সঙ্গে মেলামেশা করায় তিনি আক্রান্ত হয়েছে। যে কারণে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের এখন সশরীরে গিয়ে ত্রাণ দেয়ার থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিসিবি চিকিৎসক। 

মাশরাফি আর নাজমুল ইসলাম অপুর পাশাপাশি শনিবার করোনা পরীক্ষায় ফল পজেটিভ আসে জাতীয় দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার নাফীস ইকবালের।