বিশ্বকাপে ভারতের কাছে কেন হেরে যায় পাকিস্তান, জানালেন ওয়াকার

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৯ জুলাই ২০২০, ১৪:১৩:৩৫ | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথকে হাইভোল্টেজ ম্যাচগুলোর মধ্যে সবচেয় বড় বলে মনে করে ক্রিকেটবিশ্ব। কেউ কেউ তো পাক-ভারতের মুখোমুখিকেই অঘোষিত ফাইনাল বলে থাকেন।

কিন্তু অন্য সব টুর্নামেন্টে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই হলেও বিশ্বকাপে ভারতের সামনে পাকিস্তান দল কেমন যেন ছন্নছাড়া দলে পরিণত হয়।

অতীতের ফল তাই বলছে। মেগা এই ইভেন্টে এখন পর্যন্ত সাত ম্যাচের দেখায় সবকটিতেই পাকিস্তানকে হারিয়েছে টিম ইন্ডিয়া।

সর্বশেষ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেও সরফরাজদের নাস্তানাবুদ করেছে ভারত।

অথচ এই পাকিস্তানই দুই বছর আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির শিরোপা জিতে এসেছে।

বিশ্বকাপ এলেই চিত্রটা এভাবে উল্টে যা কেন? কী কারণে বিশ্বকাপে ভারতের সামনে চুপসে যায় পাকিস্তান?

এমন প্রশ্ন রাখা হয়েছিল পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও কিংবদন্তি পেসার ওয়াকার ইউনুসের কাছে।

জবাবে দুবার বিশ্বকাপে অংশ নেয়া এই কিংবদন্তি পেসার বলেন, হ্যাঁ, এটি মানতেই হচ্ছে যে, বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে কখনওই দাঁড়াতে পারেনি পাকিস্তান। ভারতের বিপক্ষে এখনও পর্যন্ত একটি ম্যাচও জিততে পারেনি পাকিস্তান। কিন্তু এ আমরাই অন্য ফরম্যাটে, অন্য পরিবেশে ভালো খেলেছি। ওদের হারিয়েছি। এতে একটা কথাই বলা যায়, ওই নির্দিষ্ট দিনে আমাদের চেয়ে অনেক ভালো খেলেছেন ভারতীয়রা।

বিশ্বকাপে ভারতের জয়ে অবশ্য নিজেদেরই দুষলেন ওয়াকার। তার ভাষ্য– ভালো খেলার মধ্যেই ম্যাচ ছেড়ে দিয়ে ভারতকে জয় পাইয়ে দিয়েছে পাকিস্তান।

১৯৯৬ ও ২০০৩ বিশ্বকাপে অংশ নেয়ার অভিজ্ঞা ঢেলে দেন এই সাবেক পাক পেসার।

তিনি বলেন, ‘১৯৯৬ সালে ব্যাঙ্গালুরু ও ২০০৩-এ দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষের ম্যাচে আমরা ভালোই খেলেছিলাম। ওই দুটো ম্যাচ আমরাও জিততে পারতাম। কিন্তু ম্যাচগুলো আমরা ছুড়ে দিয়ে এসেছিলাম। নির্দিষ্ট করে কোনো কারণে কথা বলা সম্ভব নয়, তবে আমার মনে হয় বিশ্বকাপ বলে চাপটা নেয়া সম্ভব হয়নি।’

ওয়াকার বলেন, ‘বিগত বিশ্বকাপে ভারত অনেক ইতিবাচক এবং স্মার্ট ক্রিকেট খেলেছে, যা পাকিস্তান করেনি। আর বারবার হারাটা হয়তো মনস্তাত্ত্বিক চাপের কারণ হয়ে গিয়েছিল।’

তথ্যসূত্র: ক্রিকেট টাইমস


সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত