ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্টে অঝোরে কাঁদলেন সাবেক ক্যারিবীয় তারকা (ভিডিও)
jugantor
ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্টে অঝোরে কাঁদলেন সাবেক ক্যারিবীয় তারকা (ভিডিও)

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১০ জুলাই ২০২০, ১৬:০২:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় গত মাসে পুলিশি নির্যাতনে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় বর্ণবাদের বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠে গোটা বিশ্ব।

'ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার' আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে শোবিজ ও ক্রীড়াঙ্গনেও।

সাউদাম্পটনে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে 'ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার' লোগো জার্সিতে লাগিয়ে খেলছেন খেলোয়াড়রা।

সেই ম্যাচেই কৃষ্ণাঙ্গ নির্যাতনের ঘটনা বর্ণনা দিতে গিয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন সাবেক ক্যারিবীয় তারকা ও বর্তমানে ধারাভাষ্যকার মাইকেল হোল্ডিং।

একপর্যায়ে তার মা-বাবা এই বর্ণবাদের শিকার জানিয়ে কেঁদে ফেলেন হোল্ডিং।

খেলার মধ্যেই একসময়ের এই গতিদানব স্কাই স্পোর্টসে মার্ক অস্টিনের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ছোটবেলায় কারও মাথায় চামড়ার রঙের পার্থক্য ঢুকিয়ে দিয়েই এই ঘৃণ্য বর্ণবাদকে প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। আমার বাবা-মা নিজ পরিবারেই বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন।

কাঁদতে কাঁদতে হোল্ডিং বলেন, বাবা-মায়ের কথা ভাবলে আবেগতাড়িত হয়ে পড়ি।

চোখের পানি মুছে একটু সময় নিয়ে নিজেকে সামলে নিয়ে আবার হোল্ডিং বলেন, আমার বাবা-মা কীসের মধ্য দিয়ে তাদের সময় পার করেছেন তা আমি জানি। আমার মায়ের সঙ্গে কথা বলত না তার পরিবার। একমাত্র কারণ, আমার বাবা একটু বেশি কালো ছিলেন। আর এই বর্ণবাদ আবার ফিরে এসেছে। বর্ণবাদ বিষয়টি দীর্ঘ ও ধীর প্রক্রিয়া। কিন্তু শম্ভুক গতির হলেও আমি আশা রাখি। পথটা ঠিক রাখতে হবে। বর্ণবাদ থামাতে হবেই।


ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্টে অঝোরে কাঁদলেন সাবেক ক্যারিবীয় তারকা (ভিডিও)

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১০ জুলাই ২০২০, ০৪:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় গত মাসে পুলিশি নির্যাতনে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় বর্ণবাদের বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠে গোটা বিশ্ব। 

'ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার' আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে শোবিজ ও ক্রীড়াঙ্গনেও।  

সাউদাম্পটনে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে 'ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার' লোগো জার্সিতে লাগিয়ে খেলছেন খেলোয়াড়রা। 

সেই ম্যাচেই কৃষ্ণাঙ্গ নির্যাতনের ঘটনা বর্ণনা দিতে গিয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন সাবেক ক্যারিবীয় তারকা ও বর্তমানে ধারাভাষ্যকার মাইকেল হোল্ডিং।

একপর্যায়ে তার মা-বাবা এই বর্ণবাদের শিকার জানিয়ে কেঁদে ফেলেন হোল্ডিং।

খেলার মধ্যেই একসময়ের এই গতিদানব স্কাই স্পোর্টসে মার্ক অস্টিনের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ছোটবেলায় কারও মাথায় চামড়ার রঙের পার্থক্য ঢুকিয়ে দিয়েই এই ঘৃণ্য বর্ণবাদকে প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। আমার বাবা-মা নিজ পরিবারেই বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন।

কাঁদতে কাঁদতে হোল্ডিং বলেন, বাবা-মায়ের কথা ভাবলে আবেগতাড়িত হয়ে পড়ি।

চোখের পানি মুছে একটু সময় নিয়ে নিজেকে সামলে নিয়ে আবার হোল্ডিং বলেন, আমার বাবা-মা কীসের মধ্য দিয়ে তাদের সময় পার করেছেন তা আমি জানি। আমার মায়ের সঙ্গে কথা বলত না তার পরিবার। একমাত্র কারণ, আমার বাবা একটু বেশি কালো ছিলেন। আর এই বর্ণবাদ আবার ফিরে এসেছে। বর্ণবাদ বিষয়টি দীর্ঘ ও ধীর প্রক্রিয়া। কিন্তু শম্ভুক গতির হলেও আমি আশা রাখি। পথটা ঠিক রাখতে হবে। বর্ণবাদ থামাতে হবেই।


 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ - ২০২০

৩০ জুলাই, ২০২০
২৬ জুলাই, ২০২০