‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়ে শচীনের কটাক্ষ
jugantor
‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়ে শচীনের কটাক্ষ

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১২ জুলাই ২০২০, ২২:৪৪:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

লেগ বিফোর উইকেটের ক্ষেত্রে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া হলেও তা নিয়ে অনেক আগ থেকেই বিতর্ক রয়েছে। ‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়মের পরিবর্তন চাইলেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার।

সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্রায়ান লারার সঙ্গে এক অ্যাপে টেন্ডুলকার বলেছেন, ডিআরএস সিস্টেমের মাধ্যমে যদি স্পষ্ট দেখা যায় বল স্টাম্পে লেগেছে তখন মাঠে থাকা আম্পায়ার যাই বলুক না কেন, তা আউট। বলের কত শতাংশ উইকেটে লেগেছে, তা আর বিবেচনা করার দরকার নেই।

লারার সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় কথোপকথনে শচীন আরও বলেছেন, আইসিসির সঙ্গে ডিআরএস নিয়ে আমি কখনই একমত নই। এলবিডব্লিউয়ের ক্ষেত্রে মাঠে থাকা আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত পাল্টে দিতে বলের ৫০ শতাংশের বেশি স্টাম্পে লাগতে হবে। ব্যাটসম্যান বা বোলার তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য চায় একমাত্র অনফিল্ড সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট না হয়েই। তাই থার্ড আম্পায়ারের কাছে সিদ্ধান্ত যাওয়ার মানে তখন প্রযুক্তিই ঠিক করবে। টেনিসে যেমন দেখা হয়, বল কোর্টের ভিতরে পড়েছে, না বাইরে। এর মাঝামাঝি কিছু হয় না।

ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০০টি সেঞ্চুরি গড়া শচীন আরও বলেছেন, বলের কত শতাংশ স্টাম্পে লাগত তা বিবেচনা করা ঠিক হবে না। ডিআরএস যদি দেখায় যে বল স্টাম্পে লাগত, তবে আউট দেয়া উচিত। অনফিল্ড আম্পায়ার যাই মনে করুন না কেন। ক্রিকেটে প্রযুক্তি ব্যবহারের সেটাই তো উদ্দেশ্য। আমরা জানি প্রযুক্তি ১০০ শতাংশ ঠিক নয়। কিন্তু মানুষও তো ১০০ শতাংশ নির্ভুল নয়।

‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়ে শচীনের কটাক্ষ

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১২ জুলাই ২০২০, ১০:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লেগ বিফোর উইকেটের ক্ষেত্রে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া হলেও তা নিয়ে অনেক আগ থেকেই বিতর্ক রয়েছে। ‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়মের পরিবর্তন চাইলেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার। 

সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্রায়ান লারার সঙ্গে এক অ্যাপে টেন্ডুলকার বলেছেন, ডিআরএস সিস্টেমের মাধ্যমে যদি স্পষ্ট দেখা যায় বল স্টাম্পে লেগেছে তখন মাঠে থাকা আম্পায়ার যাই বলুক না কেন, তা আউট। বলের কত শতাংশ উইকেটে লেগেছে, তা আর বিবেচনা করার দরকার নেই।

লারার সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় কথোপকথনে শচীন আরও বলেছেন, আইসিসির সঙ্গে ডিআরএস নিয়ে আমি কখনই একমত নই। এলবিডব্লিউয়ের ক্ষেত্রে মাঠে থাকা আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত পাল্টে দিতে বলের ৫০ শতাংশের বেশি স্টাম্পে লাগতে হবে। ব্যাটসম্যান বা বোলার তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য চায় একমাত্র অনফিল্ড সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট না হয়েই। তাই থার্ড আম্পায়ারের কাছে সিদ্ধান্ত যাওয়ার মানে তখন প্রযুক্তিই ঠিক করবে। টেনিসে যেমন দেখা হয়, বল কোর্টের ভিতরে পড়েছে, না বাইরে। এর মাঝামাঝি কিছু হয় না।

ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০০টি সেঞ্চুরি গড়া শচীন আরও বলেছেন, বলের কত শতাংশ স্টাম্পে লাগত তা বিবেচনা করা ঠিক হবে না। ডিআরএস যদি দেখায় যে বল স্টাম্পে লাগত, তবে আউট দেয়া উচিত। অনফিল্ড আম্পায়ার যাই মনে করুন না কেন। ক্রিকেটে প্রযুক্তি ব্যবহারের সেটাই তো উদ্দেশ্য। আমরা জানি প্রযুক্তি ১০০ শতাংশ ঠিক নয়। কিন্তু মানুষও তো ১০০ শতাংশ নির্ভুল নয়।