তিন ফরম্যাটেই সাকিবের নেতৃত্ব দেয়ার গুণ রয়েছে: পাপন
jugantor
তিন ফরম্যাটেই সাকিবের নেতৃত্ব দেয়ার গুণ রয়েছে: পাপন

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:০৬:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলে বর্তমানে তিন ফরম্যাটে তিন অধিনায়ক। ওয়ানডেতে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। টেস্টে মুমিনুল হক সৌরভ আর টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব সামলাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

‌'এই তিন ফরম্যাটেই নেতৃত্ব দেয়ার সব গুণ সাকিব আল হাসানের রয়েছে।' সম্প্রতি ইউটিউব শোয়ে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটিই বলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তিনি বলেছেন, সাকিব তিন ফরম্যাটেই অধিনায়ক হতে পারে। এই সামর্থ্য ওর আছে। তিন ফরম্যাটে নেতৃত্ব দেয়ার ওর সব গুণই আছে। সাকিব নিঃসন্দেহে তিন ফরম্যাটেই হতে পারে। কিন্তু আমাদের মধ্যে এ রকম কোনো চিন্তা নেই, সব ফরম্যাটে সাকিব হবে।

তবে তিন ফরম্যাটে ভিন্ন ভিন্ন অধিনায়ক থাকার সুবিধাও নিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেছেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি– আমাদের আসলে ফরম্যাট অনুযায়ী অধিনায়ক আলাদা রাখতে পারলে ভালো হয়। এই পরিকল্পনাটা হচ্ছে আলাদা যদি দল থাকে। এখন পুরো টিম তো আর আলাদা হবে না। অন্তত প্রতি ফরম্যাটের জন্য যদি তিন-চারটা স্পেশালিস্ট খেলোয়াড় পাওয়া যায়। বিশেষ করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি, তা হলে আমাদের জন্য ভালো হয়। এই প্রক্রিয়া থেকেই অধিনায়ক আলাদা করা।

বিসিবি সভাপতি আরও বলেন, একটা জিনিস ঠিক করেছি যে, যাকেই যেটি দেয়া হয়, এটি আমরা দীর্ঘ সময়ের জন্য দেব। উদাহরণস্বরূপ আমরা যখন ওয়ানডেতে তামিম ইকবালকে দিয়েছি, সেটি আমরা দীর্ঘ সময়ের জন্য দিয়েছি। একটা সমস্যা হয় কী, কয়েক দিন পর পর পরিবর্তন করলে এটি অনেকে নিতেও চায় না। অস্বস্তি বোধ করে। ওরা বলে আমি সুযোগই পাইনি প্রমাণের। আমরা কিন্তু একটু দীর্ঘমেয়াদি-ই চিন্তা করছি।

তিন ফরম্যাটেই সাকিবের নেতৃত্ব দেয়ার গুণ রয়েছে: পাপন

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলে বর্তমানে তিন ফরম্যাটে তিন অধিনায়ক। ওয়ানডেতে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। টেস্টে মুমিনুল হক সৌরভ আর টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব সামলাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। 

‌'এই তিন ফরম্যাটেই নেতৃত্ব দেয়ার সব গুণ সাকিব আল হাসানের রয়েছে।' সম্প্রতি ইউটিউব শোয়ে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটিই বলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তিনি বলেছেন, সাকিব তিন ফরম্যাটেই অধিনায়ক হতে পারে। এই সামর্থ্য ওর আছে। তিন ফরম্যাটে নেতৃত্ব দেয়ার ওর সব গুণই আছে। সাকিব নিঃসন্দেহে তিন ফরম্যাটেই হতে পারে। কিন্তু আমাদের মধ্যে এ রকম কোনো চিন্তা নেই, সব ফরম্যাটে সাকিব হবে।

তবে তিন ফরম্যাটে ভিন্ন ভিন্ন অধিনায়ক থাকার সুবিধাও নিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেছেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি– আমাদের আসলে ফরম্যাট অনুযায়ী অধিনায়ক আলাদা রাখতে পারলে ভালো হয়। এই পরিকল্পনাটা হচ্ছে আলাদা যদি দল থাকে। এখন পুরো টিম তো আর আলাদা হবে না। অন্তত প্রতি ফরম্যাটের জন্য যদি তিন-চারটা স্পেশালিস্ট খেলোয়াড় পাওয়া যায়। বিশেষ করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি, তা হলে আমাদের জন্য ভালো হয়। এই প্রক্রিয়া থেকেই অধিনায়ক আলাদা করা। 

বিসিবি সভাপতি আরও বলেন, একটা জিনিস ঠিক করেছি যে, যাকেই যেটি দেয়া হয়, এটি আমরা দীর্ঘ সময়ের জন্য দেব। উদাহরণস্বরূপ আমরা যখন ওয়ানডেতে তামিম ইকবালকে দিয়েছি, সেটি আমরা দীর্ঘ সময়ের জন্য দিয়েছি। একটা সমস্যা হয় কী, কয়েক দিন পর পর পরিবর্তন করলে এটি অনেকে নিতেও চায় না। অস্বস্তি বোধ করে। ওরা বলে আমি সুযোগই পাইনি প্রমাণের। আমরা কিন্তু একটু দীর্ঘমেয়াদি-ই চিন্তা করছি।