আইপিএলে খেলতে না পেরে পাকিস্তানিরা বড় সুযোগ হারাচ্ছে: আফ্রিদি
jugantor
আইপিএলে খেলতে না পেরে পাকিস্তানিরা বড় সুযোগ হারাচ্ছে: আফ্রিদি

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:১৯:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বিতীয় আসর থেকেই অনুপস্থিত পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা।

গত ১২ বছর ধরে টুর্নামেন্টে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি দিচ্ছেন না আয়োজকরা।

চলমান আসরে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের অনুপস্থিতি পোড়াচ্ছে দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদিকে।

তার মতে, আইপিএলে খেলতে না পেরে বড় সুযোগ হারাচ্ছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

সম্প্রতি আরব নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমনটিই জানালেন আফ্রিদি।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আইপিএল অনেক বড় একটি ব্র্যান্ড। বাবর আজম কিংবা অন্য কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটারের জন্য এটি দারুণ একটি সুযোগ হতে পারত। এখানে চাপের মুখে কীভাবে খেলতে হয় তা শিখতে পারত। ড্রেসিংরুমে বড় বড় তারকাদের উপস্থিতিতে থাকতে পারত। আমার মতে, আইপিএল না খেলায় অনেক বড় সুযোগ হারাচ্ছেন পাকিস্তানিরা।’

এ সময় ভারতের ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে ওঠেন আফ্রিদি।

তিনি বলেন, ‘কোনো সন্দেহ নেই ভারতে খেলা সবসময়ই উপভোগ করেছি আমি। ভারতের মানুষের কাছ থেকে যেই ভালোবাসা এবং সম্মান পেয়েছি আমি, তা সবসময়ই আমাকে উদ্বেলিত করে।’

২০০৮ সালে আইপিএলের প্রথম আসরে খেলেছিলেন শহীদ আফ্রিদি, শোয়েব আখতার, মিসবাহ-উল হক, ইউনিস খান, কামরান আকমলরা।

কিন্তু সে বছরের নভেম্বরে মুম্বাইয়ের হোটেল তাজে হওয়া সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আর পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি দেননি আইপিএলের আয়োজকরা।

আইপিএলে খেলতে না পেরে পাকিস্তানিরা বড় সুযোগ হারাচ্ছে: আফ্রিদি

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:১৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বিতীয় আসর থেকেই অনুপস্থিত পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। 

গত ১২ বছর ধরে টুর্নামেন্টে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি দিচ্ছেন না আয়োজকরা। 

চলমান আসরে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের অনুপস্থিতি পোড়াচ্ছে দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদিকে।

তার মতে, আইপিএলে খেলতে না পেরে বড় সুযোগ হারাচ্ছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

সম্প্রতি আরব নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমনটিই জানালেন আফ্রিদি।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আইপিএল অনেক বড় একটি ব্র্যান্ড। বাবর আজম কিংবা অন্য কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটারের জন্য এটি দারুণ একটি সুযোগ হতে পারত। এখানে চাপের মুখে কীভাবে খেলতে হয় তা শিখতে পারত। ড্রেসিংরুমে বড় বড় তারকাদের উপস্থিতিতে থাকতে পারত। আমার মতে, আইপিএল না খেলায় অনেক বড় সুযোগ হারাচ্ছেন পাকিস্তানিরা।’

এ সময় ভারতের ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে ওঠেন আফ্রিদি।

তিনি বলেন, ‘কোনো সন্দেহ নেই ভারতে খেলা সবসময়ই উপভোগ করেছি আমি। ভারতের মানুষের কাছ থেকে যেই ভালোবাসা এবং সম্মান পেয়েছি আমি, তা সবসময়ই আমাকে উদ্বেলিত করে।’

২০০৮ সালে আইপিএলের প্রথম আসরে খেলেছিলেন শহীদ আফ্রিদি, শোয়েব আখতার, মিসবাহ-উল হক, ইউনিস খান, কামরান আকমলরা।

কিন্তু সে বছরের নভেম্বরে মুম্বাইয়ের হোটেল তাজে হওয়া সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আর পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি দেননি আইপিএলের আয়োজকরা।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০