বিফলে মায়াঙ্কের সেঞ্চুরি, রানের পাহাড় গড়েও হারল পাঞ্জাব
jugantor
বিফলে মায়াঙ্কের সেঞ্চুরি, রানের পাহাড় গড়েও হারল পাঞ্জাব

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:০৯:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্যাটিং-ঝড়ে কাঁপছে মরুরাজ্য আরব আমিরাত। ২০ ওভারের ম্যাচে ২০০ রান এখন আর পাহাড় নয়।

দুশর বেশি রান করেও হারতে হচ্ছে দলকে। এমনটিই দেখা গেল রোববার রাতে আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও রাজস্থান রয়্যালসের ম্যাচে।

২২৩ রান করেও জিততে পারল না লোকেশ রাহুলের দল। ৫০ বলে ১০৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস বিফলে গেল মায়াঙ্ক আগারওয়ালের।

সাঞ্জু স্যামসন ও অধিনায়ক স্মিথের ব্যাটে ভর করে ৪ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্টিভেন স্মিথের দল।

এ নিয়ে দুই ম্যাচের দুটিতেই জয় পেল রাজস্থান। তিন ম্যাচে দ্বিতীয়বার হারল পাঞ্জাব।

রোববার রাতে আইপিএলের নবম ম্যাচে ৪২ বলে ৭ ছক্কার মারে ৮৫ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন সাঞ্জু। অনেকের মতে, সাঞ্জুর ইনিংসকেও ছাপিয়ে গেছে অধিনায়ক স্মিথের টর্নেডো ইনিংস। পাঞ্জাবের বোলারদের তুলোধোনা করে ২৭ বলে ৫০ রান তুলে নেন তিনি।

যেখানে সাতটি বাউন্ডারির সঙ্গে দুটি ছক্কার মার ছিল তার। রাহুল তিওয়াতিয়ার ব্যাট থেকেও আসে হাফসেঞ্চুরি (৩১ বলে ৫৩ রান)।

পাঞ্জাবের বোলাররা রেহাই পাননি জোফরা আরচার থেকেও। শেষ মুহূর্তে নেমে ৩ বল খেলে দুটি ছক্কা মেরে ১৩ রাতে অপরাজিত থাকেন।

বলতে গেলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান রাহুল তিওয়াতিয়া ও জোফরা আরচারের শেষ দিকে মারা ৯ ছক্কায় টার্গেট পূরণ করে ফেলে রাজস্থান।

তিন বল বাকি থাকতেই ২২৬ রান তুলে নেয় রাজস্থান।

কিংস ইলেভেনের সেরা পেসার মোহাম্মদ শামি ৫৩ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়েছেন। ৩ ওভারে ৫২ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন শেলডন কটরেল। জিমি নিশাম ও মুরুগান অশ্বিনও ১টি করে উইকেট পেয়েছেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১৮০ রানের বিশাল জুটি গড়ে তোলেন। ৫৪ বলে ৬৯ রান করেন লোকেশ রাহুল। ৫০ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন মায়াঙ্ক।

নিকোলাস পুরান ৮ বল খেলে করেন ২৫ রান।

বিফলে মায়াঙ্কের সেঞ্চুরি, রানের পাহাড় গড়েও হারল পাঞ্জাব

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:০৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্যাটিং-ঝড়ে কাঁপছে মরুরাজ্য আরব আমিরাত। ২০ ওভারের ম্যাচে ২০০ রান এখন আর পাহাড় নয়।  

দুশর বেশি রান করেও হারতে হচ্ছে দলকে। এমনটিই দেখা গেল রোববার রাতে আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও রাজস্থান রয়্যালসের ম্যাচে।  

২২৩ রান করেও জিততে পারল না লোকেশ রাহুলের দল। ৫০ বলে ১০৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস বিফলে গেল মায়াঙ্ক আগারওয়ালের।  

সাঞ্জু স্যামসন ও অধিনায়ক স্মিথের ব্যাটে ভর করে ৪ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্টিভেন স্মিথের দল।

এ নিয়ে দুই ম্যাচের দুটিতেই জয় পেল রাজস্থান। তিন ম্যাচে দ্বিতীয়বার হারল পাঞ্জাব।

রোববার রাতে আইপিএলের নবম ম্যাচে ৪২ বলে ৭ ছক্কার মারে ৮৫ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন সাঞ্জু। অনেকের মতে, সাঞ্জুর ইনিংসকেও ছাপিয়ে গেছে অধিনায়ক স্মিথের টর্নেডো ইনিংস। পাঞ্জাবের বোলারদের তুলোধোনা করে ২৭ বলে ৫০ রান তুলে নেন তিনি। 

যেখানে সাতটি বাউন্ডারির সঙ্গে দুটি ছক্কার মার ছিল তার। রাহুল তিওয়াতিয়ার ব্যাট থেকেও আসে হাফসেঞ্চুরি (৩১ বলে ৫৩ রান)। 

পাঞ্জাবের বোলাররা রেহাই পাননি জোফরা আরচার থেকেও। শেষ মুহূর্তে নেমে ৩ বল খেলে দুটি ছক্কা মেরে ১৩ রাতে অপরাজিত থাকেন।

বলতে গেলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান রাহুল তিওয়াতিয়া ও জোফরা আরচারের শেষ দিকে মারা ৯ ছক্কায় টার্গেট পূরণ করে ফেলে রাজস্থান।  

তিন বল বাকি থাকতেই ২২৬ রান তুলে নেয় রাজস্থান।

কিংস ইলেভেনের সেরা পেসার মোহাম্মদ শামি ৫৩ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়েছেন। ৩ ওভারে ৫২ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন শেলডন কটরেল।  জিমি নিশাম ও মুরুগান অশ্বিনও ১টি করে উইকেট পেয়েছেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১৮০ রানের বিশাল জুটি গড়ে তোলেন। ৫৪ বলে ৬৯ রান করেন লোকেশ রাহুল। ৫০ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন মায়াঙ্ক।  

নিকোলাস পুরান ৮ বল খেলে করেন ২৫ রান।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০