মাইলফলক ছুতে ১০ রান দূরে রোহিত, কোহলির ৮৫
jugantor
মাইলফলক ছুতে ১০ রান দূরে রোহিত, কোহলির ৮৫

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৬:৩২:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলের ১৩তম আসরের দশম ম্যাচে সোমবার মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের মুখোমুখি হচ্ছে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

কোন দল জিতবে সেই বিশ্লেষণের মধ্যে আলোচনায় দুই দলের অধিনায়কের একটি বিষয়। তাহলো - আজ কে কাকে ছাপিয়ে মাইলফলক স্পর্শ করবেন?

অবশ্য সেই দৌড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস অধিনায়ক রোহিত শর্মার জন্য বিষয়টি অনেক সহজই। তবে অনিশ্চয়তার এই খেলায় ব্যক্তিগত দ্বৈরথও কে আগে সেই মাইলফলক স্পর্শ করবেন তা বলা মুশকিল।

দুই অধিনায়কই অসাধারণ যে মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে তাহলো - আইপিএল ক্যারিয়ারে ৫ হাজারী ক্লাবে প্রবেশের দাঁড়প্রান্তে দাঁড়িয়ে রোহিত। আইপিএল ক্যারিয়ারে এখনও পর্যন্ত ১৯০ ম্যাচ খেলে ৩১.৭৮ গড় ও ১৩১.০৩ স্ট্রাইকরেটে ৪৯৯০ রান করেছেন রোহিত। অর্থাৎ মাত্র ১০ রান দূরে রয়েছেন রোহিত।

আর বিরাট কোহলি ৫ হাজারী ক্লাবের সদস্য হয়েছেন অনেক আগেই। তার লক্ষ্য ৯ হাজারী ক্লাবে প্রবেশের। অবশ্য তা আইপিএলে সামীমদ্ধ নয়। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ২৮৩ ম্যাচ খেলে ৮৯১৫ রান করেছেন কোহলি। আর ৮৫ রান করতে পারলেই বিশ্বের সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে ৯ হাজার রানের ক্লাবে প্রবেশ করবেন কোহলি।

যে কারণে ক্রিকেটপ্রেমীরা হয়তো দলের জয়-পরাজয়ের পাশাপাশি দুই অধিনায়কের ব্যক্তিগত রেকর্ডের দিকেই বেশি তাকিয়ে থাকবেন।

উল্লেখ্য, আইপিএলে এখন পর্যন্ত মাত্র দুই জন ব্যাটসম্যান ৫ হাজার রান পূর্ণ করতে পেরেছেন। একজন বিরাট কোহলি (৫৪২৭) ও অন্যজন সুরেশ রায়না (৫৩৬৮)।

এদিকে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ রানের মালিক ক্যারিবীয় জায়ান্ট ক্রিস গেইল (১৩২৯৬ রান)। তার পরেই তার সর্তীথ কাইরন পোলার্ডের অবস্থান। ৫১৪ ম্যাচে ১০২৩৮ রান করেছেন তিনি। এরপর রয়েছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৩৭০ ম্যাচে ৯৯২২ রান), শোয়েব মালিক (৩৮৯ ম্যাচে ৯৯০৬ রান), ডেভিড ওয়ার্নার (২৮৪ ম্যাচে ৯৩১৮ রান), অ্যারন ফিঞ্চ (২৮৯ ম্যাচে ৯০৮৮ রান)।

আজ ৮৫ রান করলে অ্যারন ফিঞ্চের পাশে নিজের নাম লেখাতে পারেন বিরাট কোহলি।

মাইলফলক ছুতে ১০ রান দূরে রোহিত, কোহলির ৮৫

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলের ১৩তম আসরের দশম ম্যাচে সোমবার মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের মুখোমুখি হচ্ছে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। 

কোন দল জিতবে সেই বিশ্লেষণের মধ্যে আলোচনায় দুই দলের অধিনায়কের একটি বিষয়।  তাহলো - আজ কে কাকে ছাপিয়ে মাইলফলক স্পর্শ করবেন?

অবশ্য সেই দৌড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস অধিনায়ক রোহিত শর্মার জন্য বিষয়টি অনেক সহজই। তবে অনিশ্চয়তার এই খেলায় ব্যক্তিগত দ্বৈরথও কে আগে সেই মাইলফলক স্পর্শ করবেন তা বলা মুশকিল।

দুই অধিনায়কই অসাধারণ যে মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে তাহলো - আইপিএল ক্যারিয়ারে ৫ হাজারী ক্লাবে প্রবেশের দাঁড়প্রান্তে দাঁড়িয়ে রোহিত।  আইপিএল ক্যারিয়ারে এখনও পর্যন্ত ১৯০ ম্যাচ খেলে ৩১.৭৮ গড় ও ১৩১.০৩ স্ট্রাইকরেটে ৪৯৯০ রান করেছেন রোহিত।  অর্থাৎ মাত্র ১০ রান দূরে রয়েছেন রোহিত।  

আর বিরাট কোহলি ৫ হাজারী ক্লাবের সদস্য হয়েছেন অনেক আগেই।  তার লক্ষ্য ৯ হাজারী ক্লাবে প্রবেশের।  অবশ্য তা আইপিএলে সামীমদ্ধ নয়।  টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ২৮৩ ম্যাচ খেলে ৮৯১৫ রান করেছেন কোহলি।  আর ৮৫ রান করতে পারলেই বিশ্বের সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে ৯ হাজার রানের ক্লাবে প্রবেশ করবেন কোহলি। 

যে কারণে ক্রিকেটপ্রেমীরা হয়তো দলের জয়-পরাজয়ের পাশাপাশি দুই অধিনায়কের ব্যক্তিগত রেকর্ডের দিকেই বেশি তাকিয়ে থাকবেন।

উল্লেখ্য, আইপিএলে এখন পর্যন্ত মাত্র দুই জন ব্যাটসম্যান ৫ হাজার রান পূর্ণ করতে পেরেছেন। একজন বিরাট কোহলি (৫৪২৭) ও অন্যজন সুরেশ রায়না (৫৩৬৮)। 

এদিকে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ রানের মালিক ক্যারিবীয় জায়ান্ট ক্রিস গেইল (১৩২৯৬ রান)।  তার পরেই তার সর্তীথ কাইরন পোলার্ডের অবস্থান।  ৫১৪ ম্যাচে ১০২৩৮ রান করেছেন তিনি।  এরপর রয়েছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৩৭০ ম্যাচে ৯৯২২ রান), শোয়েব মালিক (৩৮৯ ম্যাচে ৯৯০৬ রান), ডেভিড ওয়ার্নার (২৮৪ ম্যাচে ৯৩১৮ রান), অ্যারন ফিঞ্চ (২৮৯ ম্যাচে ৯০৮৮ রান)।

আজ ৮৫ রান করলে অ্যারন ফিঞ্চের পাশে নিজের নাম লেখাতে পারেন বিরাট কোহলি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০