রশিদ খানের ঘূর্ণিতে হ্যাটট্রিক জয় পেল না দিল্লি
jugantor
রশিদ খানের ঘূর্ণিতে হ্যাটট্রিক জয় পেল না দিল্লি

  স্পোর্টস ডেস্ক  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৪:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলের ১৩তম আসরে হ্যাটট্রিক জয় হলো না দিল্লি ক্যাপিটালসের।

আবু ধাবির শেখ জায়েদ ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে জ্বলে উঠলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খান।

তার ঘূর্ণিতেপরাস্ত হয়ে ১৫ রানের ব্যবধানে হারল দিল্লি। রশিদ খান ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন।

টস জিতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার।

তার সেই সিদ্ধান্তকে সঠিক হিসেবে প্রমাণিত করে বোলাররা।

১৬২ রানে শেষ হয় হায়দারাবাদের ইনিংস।

১৬৩ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমে মাত্র ২ রানেই সাজঘরে ফেরেন ওপেনার পৃথ্বি শ। প্রথম ওভারেই তার উইকেটটি তুলে নেন সানরাইজার্সের সেরা পেসার ভুবনেশ্বর কুমার।

অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ারও ইনিংস বড় করতে পারেননি। রশিদ খানের ঘূর্ণি জাদুতে দিশেহারা হয়ে পড়েন দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। ২১ বল টিকেছেন তিনি। ব্যক্তিগত ১৭ রানের মাথায় রশিদ খানের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হন আয়ার।

অন্যপ্রান্ত ধরে রাখা দলের অন্যতম ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ানও রশিদ খানের ঘূর্ণির ফাঁদে ধরা দেন। তিনি করেন ৩১ বলে ৩৪ রান, যা দিল্লির ইনিংসের সর্বোচ্চ ।

রশিদ খানের পরবর্তী শিকারে পরিণত হন রিষভ পন্থ। ২৭ বলে ২৮ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। হার্ডহিটার শিমরন হেটমায়ারও ঝড়ো ইনিংস খেলতে পারেননি। ১২ বলে ২১ রান করে ভুবনেশ্বর কুমারের বলে আউট হন তিনি। ৯ বলে ১১ রান করে টি নটরাজনের বলে এলবিডব্লিউ হন মার্কাস স্টইনিজ।

শেষ দিকে কাগিসো রাবাদা ৭ বলে করেন ১৫ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রানে থেমে যায় দিল্লি।

ফলাফল ১৫ রানে জয় লাভ করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

সানরাইজার্স বোলারদের মধ্যে রশিদ খান ১৪ রানে ৩টি, ভুবনেশ্বর কুমার ২৫ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া খলিল আহমেদ ও টি নটরাজন ১টি করে উইকেট পেয়েছেন।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ৯.৩ ওভারের ওপেনিং জুটিতে ৭৭ রান তোলে সানরাইজার্স। ৩৩ বলে ৪৫ রান করে অমিত মিশ্রর বলে আউট হন ওয়ার্নার।

মন্থর গতিতে রান নিয়ে ৪৮ বলে খেলে ৫২ রান করে আউট হন জনি বেয়ারেস্ট।

তবে কেন উইলিয়াসনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রানে গতি মেলে। ২৬ বলে খেলেন ৪১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। ৭ বলে ১২ রান করে অপরাজিত থাকেন আইপিএলে অভিষেক হওয়া আবদুল সামাদ।

দিল্লি ক্যাপিটালসের বোলার কাগিসো রাবাদা ৪ ওভার বল করে ২১ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। অমিত মিশ্রও নেন ২ উইকেট।

রশিদ খানের ঘূর্ণিতে হ্যাটট্রিক জয় পেল না দিল্লি

 স্পোর্টস ডেস্ক 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলের ১৩তম আসরে হ্যাটট্রিক জয় হলো না দিল্লি ক্যাপিটালসের। 

আবু ধাবির শেখ জায়েদ ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে জ্বলে উঠলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খান। 

তার ঘূর্ণিতে পরাস্ত হয়ে ১৫ রানের ব্যবধানে হারল দিল্লি। রশিদ খান ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন।

টস জিতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার।

তার সেই সিদ্ধান্তকে সঠিক হিসেবে প্রমাণিত করে বোলাররা।

১৬২ রানে শেষ হয় হায়দারাবাদের ইনিংস। 

১৬৩ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমে মাত্র ২ রানেই সাজঘরে ফেরেন ওপেনার পৃথ্বি শ।  প্রথম ওভারেই তার উইকেটটি তুলে নেন সানরাইজার্সের সেরা পেসার ভুবনেশ্বর কুমার। 

অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ারও ইনিংস বড় করতে পারেননি। রশিদ খানের ঘূর্ণি জাদুতে দিশেহারা হয়ে পড়েন দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। ২১ বল টিকেছেন তিনি। ব্যক্তিগত ১৭ রানের মাথায় রশিদ খানের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হন আয়ার।

অন্যপ্রান্ত ধরে রাখা দলের অন্যতম ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ানও রশিদ খানের ঘূর্ণির ফাঁদে ধরা দেন। তিনি করেন ৩১ বলে ৩৪ রান, যা দিল্লির ইনিংসের সর্বোচ্চ । 

রশিদ খানের পরবর্তী শিকারে পরিণত হন রিষভ পন্থ। ২৭ বলে ২৮ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। হার্ডহিটার শিমরন হেটমায়ারও ঝড়ো ইনিংস খেলতে পারেননি। ১২ বলে ২১ রান করে ভুবনেশ্বর কুমারের বলে আউট হন তিনি। ৯ বলে ১১ রান করে টি নটরাজনের বলে এলবিডব্লিউ হন মার্কাস স্টইনিজ। 

শেষ দিকে কাগিসো রাবাদা ৭ বলে করেন ১৫ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রানে থেমে যায় দিল্লি।

ফলাফল ১৫ রানে জয় লাভ করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

সানরাইজার্স বোলারদের মধ্যে রশিদ খান ১৪ রানে ৩টি, ভুবনেশ্বর কুমার ২৫ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া খলিল আহমেদ ও টি নটরাজন ১টি করে উইকেট পেয়েছেন।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ৯.৩ ওভারের ওপেনিং জুটিতে ৭৭ রান তোলে সানরাইজার্স।  ৩৩ বলে ৪৫ রান করে অমিত মিশ্রর বলে আউট হন ওয়ার্নার।

মন্থর গতিতে রান নিয়ে  ৪৮ বলে খেলে ৫২ রান করে আউট হন জনি বেয়ারেস্ট। 

তবে কেন উইলিয়াসনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রানে গতি মেলে। ২৬ বলে খেলেন ৪১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।  ৭ বলে ১২ রান করে অপরাজিত থাকেন আইপিএলে অভিষেক হওয়া আবদুল সামাদ। 

দিল্লি ক্যাপিটালসের বোলার কাগিসো রাবাদা ৪ ওভার বল করে ২১ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। অমিত মিশ্রও নেন ২ উইকেট। 
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০