পাকিস্তান দলে বিভেদ তৈরিতে পিসিবির ওই কর্মকর্তা দায়ী: ইনজামাম
jugantor
পাকিস্তান দলে বিভেদ তৈরিতে পিসিবির ওই কর্মকর্তা দায়ী: ইনজামাম

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৬ অক্টোবর ২০২০, ১২:২৭:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

অস্থির পরিস্থিতি বিরাজ করছে পাকিস্তান ক্রিকেটে।

মিসবাহ-উল হককে দলের প্রধান নির্বাচকের পদ ছাড়ার পর গুঞ্জন চলছে, আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের আগেই টেস্ট অধিনায়ক হতে বাদ পড়ছেন আজহার আলি। তার জায়গায় নতুন অধিনায়ক হতে চলেছেন ডানহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

অথচ হাতে এখনও এক মাসের বেশি সময় রয়েছে। নিউজিল্যান্ড সফর উপলক্ষে এখনও দলও চূড়ান্ত করেনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

কিন্তু আজহার আলির টেস্ট অধিনায়কত্বের ভবিষ্যৎ নিয়ে এখনই প্রশ্ন তুলেছেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান।

বিষয়টিকে মোটেই ভালো চোখে দেখছেন না পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও সাবেক প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল হক।

তার মতে, দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে পিসিবির প্রধান নির্বাহী এই বক্তব্য দিয়েছেন।

ইনজামাম মনে করেন, ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে পাকিস্তান দল। এর আগে জিম্বাবুয়ে খেলতে এসেছে পাকিস্তানে। অন্তত এ সিরিজ শেষ পর্যন্ত পিসিবির ওই কর্মকর্তার এমন বক্তব্য না দেয়াই উচিত ছিল।

সম্প্রতি নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ইনজামাম বলেন, ‘পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়কত্ব নিয়ে এখন নতুন একটা বিতর্ক শুরু হয়েছে। পিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেছেন, নিউজিল্যান্ড সফরের টেস্ট দল ঘোষণার আগে আজহার আলির অধিনায়কত্ব পর্যালোচনা করা হবে। এ ধরনের বক্তব্য দলের মধ্যে বিভেদ তৈরি করতে পারে।’

এমন বক্তব্যে দলের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে ও দলের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ নষ্ট করবে বলে মনে করেন ইনজামাম।

এর পেছনে ইনজামামের যুক্তি, এখন অধিনায়কত্ব পেতে পদের সম্ভাবনায় থাকা যে কোনো ক্রিকেটার নিজের জন্য তদবিরের চেষ্টা করবে, যা দলের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ নষ্ট করবে। যদি অধিনায়ক পরিবর্তন করাই হয়, তা হলে জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর করা উচিত। মিডিয়ায় এ নিয়ে আগাম বক্তব্য দেয়ার মানে হয় না। এসব দলের মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

কোনো সিরিজ শুরুর আগে পিসিবি কেন এসব তথ্য গণমাধ্যমে ফাঁস করে সে প্রশ্ন তুলেন এ মুলতানের সুলতান।

পাকিস্তানের বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর, অধিনায়ক হওয়ার পর পিসিবিকে না জানিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন আজহার আলি। এটি নিয়ে পিসিবির কর্মকর্তাদের সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে থাকে আজহার আলির। পারফরম্যান্স নয়; এটিই আজহার আলিকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন অনেকে।

তথ্যসূত্র: ক্রিকট্র্যাকার

পাকিস্তান দলে বিভেদ তৈরিতে পিসিবির ওই কর্মকর্তা দায়ী: ইনজামাম

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৬ অক্টোবর ২০২০, ১২:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অস্থির পরিস্থিতি বিরাজ করছে পাকিস্তান ক্রিকেটে। 

মিসবাহ-উল হককে দলের প্রধান নির্বাচকের পদ ছাড়ার পর গুঞ্জন চলছে, আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের আগেই টেস্ট অধিনায়ক হতে বাদ পড়ছেন আজহার আলি। তার জায়গায় নতুন অধিনায়ক হতে চলেছেন ডানহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

অথচ হাতে এখনও এক মাসের বেশি সময় রয়েছে। নিউজিল্যান্ড সফর উপলক্ষে এখনও দলও চূড়ান্ত করেনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। 

কিন্তু আজহার আলির টেস্ট অধিনায়কত্বের ভবিষ্যৎ নিয়ে এখনই প্রশ্ন তুলেছেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান। 

বিষয়টিকে মোটেই ভালো চোখে দেখছেন না পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও সাবেক প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল হক। 

তার মতে, দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে পিসিবির প্রধান নির্বাহী এই বক্তব্য দিয়েছেন।

ইনজামাম মনে করেন, ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে পাকিস্তান দল।  এর আগে জিম্বাবুয়ে খেলতে এসেছে পাকিস্তানে।  অন্তত এ সিরিজ শেষ পর্যন্ত পিসিবির ওই কর্মকর্তার এমন বক্তব্য না দেয়াই উচিত ছিল। 

সম্প্রতি নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ইনজামাম বলেন, ‘পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়কত্ব নিয়ে এখন নতুন একটা বিতর্ক শুরু হয়েছে। পিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেছেন, নিউজিল্যান্ড সফরের টেস্ট দল ঘোষণার আগে আজহার আলির অধিনায়কত্ব পর্যালোচনা করা হবে। এ ধরনের বক্তব্য দলের মধ্যে বিভেদ তৈরি করতে পারে।’

এমন বক্তব্যে দলের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে ও দলের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ নষ্ট করবে বলে মনে করেন ইনজামাম।

এর পেছনে ইনজামামের যুক্তি, এখন অধিনায়কত্ব পেতে পদের সম্ভাবনায় থাকা যে কোনো ক্রিকেটার নিজের জন্য তদবিরের চেষ্টা করবে, যা দলের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ নষ্ট করবে। যদি অধিনায়ক পরিবর্তন করাই হয়, তা হলে জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর করা উচিত। মিডিয়ায় এ নিয়ে আগাম বক্তব্য দেয়ার মানে হয় না। এসব দলের মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

কোনো সিরিজ শুরুর আগে পিসিবি কেন এসব তথ্য গণমাধ্যমে ফাঁস করে সে প্রশ্ন তুলেন এ মুলতানের সুলতান। 
 
পাকিস্তানের বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর, অধিনায়ক হওয়ার পর পিসিবিকে না জানিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন আজহার আলি। এটি নিয়ে পিসিবির কর্মকর্তাদের সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে থাকে আজহার আলির। পারফরম্যান্স নয়; এটিই আজহার আলিকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন অনেকে।

তথ্যসূত্র: ক্রিকট্র্যাকার