দিল্লিকে বিশাল ব্যবধানে হারাল হায়দরাবাদ (ভিডিও)
jugantor
দিল্লিকে বিশাল ব্যবধানে হারাল হায়দরাবাদ (ভিডিও)

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৮ অক্টোবর ২০২০, ০০:৩৮:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বাঁচা-মরার লড়াইয়ের ম্যাচে মঙ্গলবার রাতে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিল্লি ক্যাপিটালসের মুখোমুখি হয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

আর সঠিক সময়ে ব্যাটিং-বোলিং সব ডিপার্টমেন্টে জ্বলে ওঠে হায়দরাবাদ।

ঋদ্ধিমান সাহা ও ডেভিড ওয়ার্নার ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২ উইকেটে ২১৯ রান করে হায়দরাবাদ।

ছুড়ে দেয়া ২২০ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে প্লে-অফ আজই নিশ্চিত করতে পারবে কিনা সেই শঙ্কার দেখা দেয়। কেননা জয় পেতে হলে নিজেদের রেকর্ডকেই ভাঙতে হবে দিল্লির।

প্লে অফ নিশ্চিত করতে হলে জয়ের রেকর্ড গড়তে হবে দিল্লি ক্যাপিটালসকে।

এর আগে গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ২০৯ রান চেজ করে জয় পেয়েছে দিল্লি।

আজকের ম্যাচ জিততে হলে আইপিএল ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান চেজ করতে হবে স্রেয়াশ আইয়ার ও শিখর ধাওয়ানদের।

আর হায়দরাবাদের বোলারদের দাপুটে বোলিংয়ে সেই রেকর্ড তো করতেই পারল না দিল্লি। ৮৮ রানে বিশাল ব্যবধানে হারতে হয়েছে শিখর ধাওয়ানদের। এ নিয়ে টানা তিন ম্যাচে হারল দিল্লি।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে রীতিমতো তাণ্ডব চালায় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ৯.৪ ওভারে স্কোর বোর্ডে ১০৭ রান জমা করেন ডেভিড ওয়ার্নার ও ঋদ্ধিমান সাহা। ৩৪ বলে ৮ চার ও দুই ছক্কায় ৬৬ রান করে আউট হন অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার।

তিনে নামা মনিশ পান্ডের সঙ্গে ফের ৬৩ রানের জুটি গড়েন ঋদ্ধিমান। ১৪.৩ ওভারে দলীয় ১৭০ রানে আউট হন ঋদ্ধিমান সাহা। তার আগে ১২টি চার ও দুই ছক্কায় ৮৭ রান করেন তিনি।

এরপর কেন উইলিয়ামসনকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে যান মনিশ পান্ডে। তার ৩১ বলে চারটি বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় গড়া অপরাজিত ৪৪ রানের ইনিংসের সুবাদে ২ উইকেটে ২১৯ রানের পাহাড় গড়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ১০ বলে ১১ রান করেন উইলিয়ামসন।

জবাবে ২২০ রানের টার্গেটে ব্যাট হাতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা লাগে দিল্লি শিবিরে।

প্রথম ২ ওভারে ১৪ রান যোগ করতেই শিখর ধাওয়ান ও মার্কাস স্টয়নিসকে হারায় দিল্লি। সেঞ্চুরির পর সেঞ্চুরি হাঁকানো শিখর ধাওয়ানকে শুন্যরানে ফেরান সন্দীপ শর্মা। নাদিমের বলে মাত্র ৫ রান যোগ করেই সাজঘরে ফেরেন স্টয়নিস। এরপর নিয়মিত বিরতিতে হারাতে থাকে দিল্লির উইকেট।

ঘূর্ণির ভেলকি দেখান আফগান স্পিনার রশিদ খান। হেটমায়ারকে (১৬ রান) বোল্ড করেন তিনি। আজিঙ্কা রাহানেকে ২৬ রানে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন রশিদ।

দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান আনে রিশভ পন্থের ব্যাট থেকে। তাকে ফেরান সন্দীপ শর্মা। শেষ দিকে ৯ বলে অপরাজিত ২০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তুষার দেশপাণ্ডে। তাতে রানের পাহাড় ডিঙানো সম্ভব হয়নি। বাকিরা সবাই টেলিফোন ইন্ডেক্সের মতো রান যোগ করে আউট হন।

ফলে এক ওভার বাকি থাকতেই ১৩১ রানে থেমে যায় দিল্লির ইনিংস। ৮৮ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় পায় হায়দরাবাদ।

হায়দরাবাদের পক্ষে সবচেয়ে সফল বোলার রশিদ খান। ৪ ওভার বল করে মাত্র ৭ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন তিনি। ২টি করে উইকেট নেন সন্দীপ শর্মা ও নটরাজান।

এই জয়ের সুবাদে ১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফের দৌড়ে টিকে রইল হায়দরাবাদ। টেবিলে তাদের অবস্থান ষষ্ঠ। ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দিল্লি আছে তৃতীয় স্থানে।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন -

দিল্লিকে বিশাল ব্যবধানে হারাল হায়দরাবাদ (ভিডিও)

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাঁচা-মরার লড়াইয়ের ম্যাচে মঙ্গলবার রাতে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিল্লি ক্যাপিটালসের মুখোমুখি হয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

আর সঠিক সময়ে ব্যাটিং-বোলিং সব ডিপার্টমেন্টে জ্বলে ওঠে হায়দরাবাদ।

ঋদ্ধিমান সাহা ও ডেভিড ওয়ার্নার ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২ উইকেটে ২১৯ রান করে হায়দরাবাদ।

ছুড়ে দেয়া ২২০ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে প্লে-অফ আজই নিশ্চিত করতে পারবে কিনা সেই শঙ্কার দেখা দেয়। কেননা জয় পেতে হলে নিজেদের রেকর্ডকেই ভাঙতে হবে দিল্লির।

প্লে অফ নিশ্চিত করতে হলে জয়ের রেকর্ড গড়তে হবে দিল্লি ক্যাপিটালসকে।  

এর আগে গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ২০৯ রান চেজ করে জয় পেয়েছে দিল্লি। 

আজকের ম্যাচ জিততে হলে আইপিএল ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান চেজ করতে হবে স্রেয়াশ আইয়ার ও শিখর ধাওয়ানদের।

আর হায়দরাবাদের বোলারদের দাপুটে বোলিংয়ে সেই রেকর্ড তো করতেই পারল না দিল্লি। ৮৮ রানে বিশাল ব্যবধানে হারতে হয়েছে শিখর ধাওয়ানদের। এ নিয়ে টানা তিন ম্যাচে হারল দিল্লি।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে রীতিমতো তাণ্ডব চালায় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ৯.৪ ওভারে স্কোর বোর্ডে ১০৭ রান জমা করেন ডেভিড ওয়ার্নার ও ঋদ্ধিমান সাহা। ৩৪ বলে ৮ চার ও দুই ছক্কায় ৬৬ রান করে আউট হন অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। 

তিনে  নামা মনিশ পান্ডের সঙ্গে ফের ৬৩ রানের জুটি গড়েন ঋদ্ধিমান।  ১৪.৩ ওভারে দলীয় ১৭০ রানে আউট হন ঋদ্ধিমান সাহা। তার আগে ১২টি চার ও দুই ছক্কায় ৮৭ রান করেন তিনি। 

এরপর কেন উইলিয়ামসনকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে যান মনিশ পান্ডে।  তার ৩১ বলে চারটি বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় গড়া অপরাজিত ৪৪ রানের ইনিংসের সুবাদে ২ উইকেটে ২১৯ রানের পাহাড় গড়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ১০ বলে ১১ রান করেন উইলিয়ামসন। 

জবাবে ২২০ রানের টার্গেটে ব্যাট হাতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা লাগে দিল্লি শিবিরে।

প্রথম ২ ওভারে ১৪ রান যোগ করতেই শিখর ধাওয়ান ও মার্কাস স্টয়নিসকে হারায় দিল্লি। সেঞ্চুরির পর সেঞ্চুরি হাঁকানো শিখর ধাওয়ানকে শুন্যরানে ফেরান সন্দীপ শর্মা। নাদিমের বলে মাত্র ৫ রান যোগ করেই সাজঘরে ফেরেন স্টয়নিস। এরপর নিয়মিত বিরতিতে হারাতে থাকে দিল্লির উইকেট। 

ঘূর্ণির ভেলকি দেখান আফগান স্পিনার রশিদ খান। হেটমায়ারকে (১৬ রান) বোল্ড করেন তিনি।  আজিঙ্কা রাহানেকে ২৬ রানে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন রশিদ।

দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান আনে রিশভ পন্থের ব্যাট থেকে। তাকে ফেরান সন্দীপ শর্মা। শেষ দিকে ৯ বলে অপরাজিত ২০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তুষার দেশপাণ্ডে। তাতে রানের পাহাড় ডিঙানো সম্ভব হয়নি। বাকিরা সবাই টেলিফোন ইন্ডেক্সের মতো রান যোগ করে আউট হন।

ফলে এক ওভার বাকি থাকতেই ১৩১ রানে থেমে যায় দিল্লির ইনিংস। ৮৮ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় পায় হায়দরাবাদ।

হায়দরাবাদের পক্ষে সবচেয়ে সফল বোলার রশিদ খান। ৪ ওভার বল করে মাত্র ৭ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন তিনি। ২টি করে উইকেট নেন সন্দীপ শর্মা ও নটরাজান।

এই জয়ের সুবাদে ১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফের দৌড়ে টিকে রইল হায়দরাবাদ। টেবিলে তাদের অবস্থান ষষ্ঠ। ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দিল্লি আছে তৃতীয় স্থানে।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন - 

 

 

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০