চেন্নাইয়ের কাছে হেরে প্লে-অফের স্বপ্ন ফিকে কলকাতার (ভিডিও)
jugantor
চেন্নাইয়ের কাছে হেরে প্লে-অফের স্বপ্ন ফিকে কলকাতার (ভিডিও)

  স্পোর্টস ডেস্ক  

৩০ অক্টোবর ২০২০, ০০:৩৬:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

১২ ম্যাচে মাত্র ৪ জয় ও ৮ পরাজয় নিয়ে প্লে-অফ থেকে বাদ পড়ে গেছে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। এবারের আসরে সবার আগে বিদায় ঘণ্টা বেজেছে চেন্নাইয়ের।

আর বৃহস্পতিবার রাতে সেই চেন্নাইয়ের কাছে হেরে প্লে-অফের স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেল কলকাতা নাইট রাইডার্সের।

আজ যে ম্যাচ জয়ে চেন্নাইয়ের কোনো লাভ ছিল না সেই ম্যাচই কলকাতার জন্য ছিল বাঁচা-মরার লড়াই।

আর সেই লড়াইয়ে হেরে গেল শাহরুখ খানের কেকেআর।

বুধবার রাতে দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ধোনি।প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নিতিশ রানার ৮৭ রানের ওপর ভর করে চেন্নাইকে ৫ উইকেটে ১৭৩ রানের লক্ষ্য দেয় কলকাতা।

শুরুতে করণ শর্মার শিকারে পরিণত হন কেকেআরের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান শুভমান গিল। ১৭ বলে ২৬ রানে করে শর্মার বলে বোল্ড হন তিনি।

এরপর নিতিশ রানা ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতে পারেনি চেন্নাইয়ের বোলারদের সামনে। নারিন ৭ রানে, রিংকু সিং ১১ রানে ফেরেন। অধিনায়ক এইউন মরগানকে ১৫ রানে ফেরান প্রোটিয়া বোলার এনগিডি।

একপ্রান্ত ধরে রেখে সতীর্থদের আশা-যাওয়া দেখেন নিতিশ। ৮৭ রানে নিতিশ রানার ইনিংস থামিয়ে দেন এনগিডি। ৬১ বলে ১০ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কার মারে এই ৮৭ রানের ইনিংস খেলেন নিতিশ।

এরপর গত ম্যাচগুলোতে ব্যর্থ হওয়া দলের সাবেক অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক ১০ বলে ২১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেললে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রানে থামে কলকাতার ইনিংস।

জবাবে ১৭৩ রানের লক্ষ্যে নেমে ১৯ বলে ১৪ রান করে বরুন চক্রবর্তীর বলে আউট হন শেন ওয়াটসন। এরপর আম্বাতি রাইডুর সঙ্গে চমৎকার জুটি গড়েন ঋতুরাজ গায়কোয়াড়।

রাইডু ২০ বলে ৩৮ রানের চমৎকার ইনিংস খেলে আউট হন সুনীল নারিনের বলে। অধিনায়ক ধোনি বাট হাতে নেমেই ১ রান করে সাজঘরে ফেরেন। তাকে সরাসরি বোল্ড করে দেন সেই বরুন।

তবে এতে জয় পেতে তেমন বেগ পেতে হয়নি চেন্নাইকে। ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ের৫৩ বলে অনবদ্য ৭২ রানের ইনিংসে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে যায় চেন্নাই। প্যাট কামিন্সের বলে বোল্ড হন গায়কোয়াড়। এরপর জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব নেন স্যাম কারান ও রবীন্দ্র জাদেজা। এই দুই ব্যাটসম্যান অপরাজিত থেকে ম্যাচ শেষ করেন। ম্যাচের শেষ বলে ছক্কা মেরে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন জাদেজা।

স্যাম কারান ১৩ ও জাদেজা ৩১ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ বলে ছয়ের পর চেন্নাইয়ের স্কোর গিয়ে দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ১৭৮ রান।

অর্থাৎ ৬ উইকেটে মরগানের কলকাতাকে হারাল ধোনির চেন্নাই।

এই হারের পর শেষ চারে ওঠার স্বপ্ন আরো ফিকে হয়ে গেল কলকাতার। কিংস ইলাভেন ছাপিয়ে পয়েন্ট টেবিলে চতুর্থ স্থানে যাওয়া হলো না নাইটদের।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন -

চেন্নাইয়ের কাছে হেরে প্লে-অফের স্বপ্ন ফিকে কলকাতার (ভিডিও)

 স্পোর্টস ডেস্ক 
৩০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

১২ ম্যাচে মাত্র ৪ জয় ও ৮ পরাজয় নিয়ে প্লে-অফ থেকে বাদ পড়ে গেছে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।  এবারের আসরে সবার আগে বিদায় ঘণ্টা বেজেছে চেন্নাইয়ের। 

আর বৃহস্পতিবার রাতে সেই চেন্নাইয়ের কাছে হেরে প্লে-অফের স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেল কলকাতা নাইট রাইডার্সের। 

আজ যে ম্যাচ জয়ে চেন্নাইয়ের কোনো লাভ ছিল না সেই ম্যাচই কলকাতার জন্য ছিল বাঁচা-মরার লড়াই।

আর সেই লড়াইয়ে হেরে গেল শাহরুখ খানের কেকেআর। 

বুধবার রাতে দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ধোনি। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নিতিশ রানার ৮৭ রানের ওপর ভর করে চেন্নাইকে ৫ উইকেটে ১৭৩ রানের লক্ষ্য দেয় কলকাতা।

শুরুতে করণ শর্মার শিকারে পরিণত হন কেকেআরের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান শুভমান গিল। ১৭ বলে ২৬ রানে করে শর্মার বলে বোল্ড হন তিনি।

এরপর নিতিশ রানা ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতে পারেনি চেন্নাইয়ের বোলারদের সামনে। নারিন ৭ রানে, রিংকু সিং ১১ রানে ফেরেন। অধিনায়ক এইউন মরগানকে ১৫ রানে ফেরান প্রোটিয়া বোলার এনগিডি।

একপ্রান্ত ধরে রেখে সতীর্থদের আশা-যাওয়া দেখেন নিতিশ। ৮৭ রানে নিতিশ রানার ইনিংস থামিয়ে দেন এনগিডি। ৬১ বলে  ১০ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কার মারে এই ৮৭ রানের ইনিংস খেলেন নিতিশ।

এরপর গত ম্যাচগুলোতে ব্যর্থ হওয়া দলের সাবেক অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক ১০ বলে ২১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেললে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রানে থামে কলকাতার ইনিংস।

জবাবে ১৭৩ রানের লক্ষ্যে নেমে ১৯ বলে ১৪ রান করে বরুন চক্রবর্তীর বলে আউট হন শেন ওয়াটসন। এরপর আম্বাতি রাইডুর সঙ্গে চমৎকার জুটি গড়েন ঋতুরাজ গায়কোয়াড়।

রাইডু ২০ বলে ৩৮ রানের চমৎকার ইনিংস খেলে আউট হন সুনীল নারিনের বলে। অধিনায়ক ধোনি বাট হাতে নেমেই ১ রান করে সাজঘরে ফেরেন। তাকে সরাসরি বোল্ড করে দেন সেই বরুন।

তবে এতে জয় পেতে তেমন বেগ পেতে হয়নি চেন্নাইকে।  ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ের ৫৩ বলে অনবদ্য ৭২ রানের ইনিংসে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে যায় চেন্নাই। প্যাট কামিন্সের বলে বোল্ড হন গায়কোয়াড়। এরপর জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব নেন স্যাম কারান ও রবীন্দ্র জাদেজা। এই দুই ব্যাটসম্যান অপরাজিত থেকে ম্যাচ শেষ করেন। ম্যাচের শেষ বলে ছক্কা মেরে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন জাদেজা।

স্যাম কারান ১৩ ও জাদেজা ৩১ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ বলে ছয়ের পর চেন্নাইয়ের স্কোর গিয়ে দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ১৭৮ রান।

অর্থাৎ ৬ উইকেটে মরগানের কলকাতাকে হারাল ধোনির চেন্নাই।

এই হারের পর শেষ চারে ওঠার স্বপ্ন আরো ফিকে হয়ে গেল কলকাতার। কিংস ইলাভেন ছাপিয়ে পয়েন্ট টেবিলে চতুর্থ স্থানে যাওয়া হলো না নাইটদের।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন -  

 

 

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২০