ম্যারাডোনাকে নিয়ে পেলের আবেগঘন স্ট্যাটাস
jugantor
ম্যারাডোনাকে নিয়ে পেলের আবেগঘন স্ট্যাটাস

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ নভেম্বর ২০২০, ০০:৪২:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ফুটবলের আরেক জাদুকর পেলে।

বুধবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী চিরবিদায় নেয়ার পর ব্রাজিল কিংবদন্তি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেইসঙ্গে ১৯৮৬ বিশ্বকাপের ট্রফি হাতে ম্যারাডোনার একটি হাস্যোজ্জ্বল ছবিও পোস্ট দিয়েছেন তিনি।

সেখানে পেলে লেখেন, ‘আজ দুঃখের খবর। আমি আমার প্রিয় বন্ধুকে হারিয়েছি। আর বিশ্ব হারিয়েছে একজন কিংবদন্তি। আরও অনেক কিছু বলার আছে, তবে আপাতত ঈশ্বর তার পরিবারকে শক্তি দিন। একদিন, আমি আশা করি, আমরা এক সঙ্গে আকাশে (স্বর্গ) ফুটবল খেলব।’

ম্যারাডোনার জন্ম ১৯৬০ সালের ৩০ অক্টোবর আর্জেন্টিনার বুয়েনস এইরেসে। ম্যারাডোনার নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের শিরোপা জেতে।

ওই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার জোড়া গোলের একটি ‘গোল অব সেঞ্চুরি’র মর্যাদা পায়, আর অন্যটি ‘হ্যান্ড অব গড’ হিসেবে ব্যাপক আলোচিত।

ফিফার বিশ শতকের সেরা ফুটবলারের তালিকায় তিনি ও ব্রাজিলের পেলে যৌথভাবে প্রথম স্থান অধিকার করেন।

প্রসঙ্গত আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনা বুধবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এর আগে বেশ কয়েক দিন অসুস্থ ছিলেন তিনি।

তিগ্রে-তে নিজ বাসায় মারা যান ম্যারাডোনা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। গত মাসে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছিলেন ম্যারাডোনা। বুয়েনস এইরেসের হাসপাতালে তার মস্তিষ্কে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয়। মস্তিষ্কে জমাট বেঁধে থাকা রক্ত (ক্লট) অপসারণ করা হয়েছিল।

ম্যারাডোনাকে নিয়ে পেলের আবেগঘন স্ট্যাটাস

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ নভেম্বর ২০২০, ১২:৪২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ফুটবলের আরেক জাদুকর পেলে।

বুধবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী চিরবিদায় নেয়ার পর ব্রাজিল কিংবদন্তি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেই সঙ্গে ১৯৮৬ বিশ্বকাপের ট্রফি হাতে ম্যারাডোনার একটি হাস্যোজ্জ্বল ছবিও পোস্ট দিয়েছেন তিনি। 

সেখানে পেলে লেখেন, ‘আজ দুঃখের খবর। আমি আমার প্রিয় বন্ধুকে হারিয়েছি। আর বিশ্ব হারিয়েছে একজন কিংবদন্তি। আরও অনেক কিছু বলার আছে, তবে আপাতত ঈশ্বর তার পরিবারকে শক্তি দিন। একদিন, আমি আশা করি, আমরা এক সঙ্গে আকাশে (স্বর্গ) ফুটবল খেলব।’

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Pelé (@pele)

ম্যারাডোনার জন্ম ১৯৬০ সালের ৩০ অক্টোবর আর্জেন্টিনার বুয়েনস এইরেসে। ম্যারাডোনার নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের শিরোপা জেতে। 

ওই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার জোড়া গোলের একটি ‘গোল অব সেঞ্চুরি’র মর্যাদা পায়, আর অন্যটি ‘হ্যান্ড অব গড’ হিসেবে ব্যাপক আলোচিত। 

ফিফার বিশ শতকের সেরা ফুটবলারের তালিকায় তিনি ও ব্রাজিলের পেলে যৌথভাবে প্রথম স্থান অধিকার করেন। 

প্রসঙ্গত আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনা বুধবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এর আগে বেশ কয়েক দিন অসুস্থ ছিলেন তিনি।

তিগ্রে-তে নিজ বাসায় মারা যান ম্যারাডোনা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। গত মাসে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছিলেন ম্যারাডোনা। বুয়েনস এইরেসের হাসপাতালে তার মস্তিষ্কে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয়। মস্তিষ্কে জমাট বেঁধে থাকা রক্ত (ক্লট) অপসারণ করা হয়েছিল। 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ম্যারাডোনা আর নেই