আফ্রিদিকে ‘আপত্তিকর’ কথা বলেছিলেন আফগান বোলার
jugantor
আফ্রিদিকে ‘আপত্তিকর’ কথা বলেছিলেন আফগান বোলার

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭:৫৪:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকান প্রিমিয়ার লিগের (এলপিএল) ষষ্ঠ ম্যাচে সোমবার শহীদ আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন গল গ্ল্যাডিয়েটর্সের মুখোমুখি হয় কুশল পেরেরার নেতৃত্বাধীন ক্যান্ডি টাস্কার্স।

গ্ল্যাডিয়েটর্সের ইনিংসের ১৮তম ওভারে ক্যান্ডির আফগান পেসার নাভিন উল হকের সঙ্গে গ্ল্যাডিয়েটর্সের ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আমিরের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। ওই ওভারে নাভিনের চতুর্থ বলে বাউন্ডারি হাঁকানআমির। বাউন্ডারি হাঁকানোর পরই মেজাজ হারান ক্যান্ডির আফগান পেসার নাভিন উল হক। তিনি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আমিরকে উদ্দেশ্যে করে আক্রমণাত্মক কিছু একটা বলেন।

ইনিংসের শেষ ওভারে যখন নাভিন উল হক বোলিংয়ে আসেন তখনও সেই স্লেজিংয়ের রেশ ছিল। দুজনের মধ্যে আবারও বচসাহয়। মোহাম্মদ আমিরের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হওয়ায় নাভিন উল হককে সতীর্থরা থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। ক্যান্ডির হয়ে খেলা ভারতের সাবেক বিশ্বকাপজয়ী পেসার মুনাফ প্যাটেলও আফগান পেসার নভিনকে থামানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছুতেই কাজ হচ্ছিল না।

ক্যান্ডির বিপক্ষে ১৯৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৫ রানে হেরে যায় শহীদ আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন গল গ্ল্যাডিয়েটর্স। খেলা শেষ হওয়ার পরও দুই দলের ক্রিকেটাররা যখন লাইনে দাঁড়িয়ে হাত মেলাচ্ছিলেন, তখন শহীদ আফ্রিদি ক্যান্ডির আফগান পেসারকে জিজ্ঞেস করেন 'কেয়া হুয়া-কী হয়েছে!

আফ্রিদির এমন জিজ্ঞাসায় আপত্তিকর ভাষায় জবাব দেন আফগান ২১ বছর ৬৯ দিন বয়সী পেসার নাভিন উল হক। তখন আফ্রিদি বলেন, ‘ছেলে, তোমার জন্মের আগ থেকে আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করছি।’

১৯৯৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় নাভিন উল হকের। আফগান এ তরুণের জন্মের তিন বছর আগেই জাতীয় দলে অভিষেক হয় শহীদ আফ্রিদির। তার চেয়েও বড় কথা নাভিনের জন্মের আগ থেকেই ক্রিকেটে সুপারস্টার আফ্রিদি। ১৯৯৬ সালে ৪ অক্টোবর শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে মাত্র ৩৭ বলে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছিলেন শহীদ আফ্রিদি।

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির সঙ্গে তরুণ নাভিন-উল-হকের এমন অসম্মানজনক ও আপত্তিকর আচরণে হতাশ ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। একজন সিনিয়র ক্রিকেটারের সঙ্গে আফগান তরুণের এমন আচরণ ভালোভাবে নেননি অনেকেই।

আফ্রিদিকে ‘আপত্তিকর’ কথা বলেছিলেন আফগান বোলার

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকান প্রিমিয়ার লিগের (এলপিএল) ষষ্ঠ ম্যাচে সোমবার শহীদ আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন গল গ্ল্যাডিয়েটর্সের মুখোমুখি হয় কুশল পেরেরার নেতৃত্বাধীন ক্যান্ডি টাস্কার্স।

গ্ল্যাডিয়েটর্সের ইনিংসের ১৮তম ওভারে ক্যান্ডির আফগান পেসার নাভিন উল হকের সঙ্গে গ্ল্যাডিয়েটর্সের ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আমিরের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। ওই ওভারে নাভিনের চতুর্থ বলে বাউন্ডারি হাঁকান আমির। বাউন্ডারি হাঁকানোর পরই মেজাজ হারান ক্যান্ডির আফগান পেসার নাভিন উল হক। তিনি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আমিরকে উদ্দেশ্যে করে আক্রমণাত্মক কিছু একটা বলেন।

ইনিংসের শেষ ওভারে যখন নাভিন উল হক বোলিংয়ে আসেন তখনও সেই স্লেজিংয়ের রেশ ছিল। দুজনের মধ্যে আবারও বচসা হয়। মোহাম্মদ আমিরের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হওয়ায় নাভিন উল হককে সতীর্থরা থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। ক্যান্ডির হয়ে খেলা ভারতের সাবেক বিশ্বকাপজয়ী পেসার মুনাফ প্যাটেলও আফগান পেসার নভিনকে থামানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছুতেই কাজ হচ্ছিল না।

ক্যান্ডির বিপক্ষে ১৯৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৫ রানে হেরে যায় শহীদ আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন গল গ্ল্যাডিয়েটর্স। খেলা শেষ হওয়ার পরও দুই দলের ক্রিকেটাররা যখন লাইনে দাঁড়িয়ে হাত মেলাচ্ছিলেন, তখন শহীদ আফ্রিদি ক্যান্ডির আফগান পেসারকে জিজ্ঞেস করেন 'কেয়া হুয়া-কী হয়েছে!

আফ্রিদির এমন জিজ্ঞাসায় আপত্তিকর ভাষায় জবাব দেন আফগান ২১ বছর ৬৯ দিন বয়সী পেসার নাভিন উল হক। তখন আফ্রিদি বলেন, ‘ছেলে, তোমার জন্মের আগ থেকে আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করছি।’

১৯৯৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় নাভিন উল হকের। আফগান এ তরুণের জন্মের তিন বছর আগেই জাতীয় দলে অভিষেক হয় শহীদ আফ্রিদির। তার চেয়েও বড় কথা নাভিনের জন্মের আগ থেকেই ক্রিকেটে সুপারস্টার আফ্রিদি। ১৯৯৬ সালে ৪ অক্টোবর শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে মাত্র ৩৭ বলে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছিলেন শহীদ আফ্রিদি।

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির সঙ্গে তরুণ নাভিন-উল-হকের এমন অসম্মানজনক ও আপত্তিকর আচরণে হতাশ ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। একজন সিনিয়র ক্রিকেটারের সঙ্গে আফগান তরুণের এমন আচরণ ভালোভাবে নেননি অনেকেই।