শফিউলের ইনজুরিতে কপাল খুলল খালেদের
jugantor
শফিউলের ইনজুরিতে কপাল খুলল খালেদের

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৫০:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

পিঠের ইনজুরিতে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ থেকে ছিটকে পড়েছেন পেসার শফিউল ইসলাম।

এই টুর্নামেন্টে আর খেলতে পারবেন না তিনি।

যে কারণে নতুন পেসার নিতে বাধ্য হচ্ছে শফিউলের দল জেমকন খুলনা।

জানা গেছে, শফিউলের ইনজুরিতে কপাল খুলেছে পেসার খালেদ আহমেদের। বদলি হিসেবে এই ডানহাতি পেসারকে দলে ভিড়িয়েছে খুলনা।

দলটির ম্যানেজার নাফিজ ইকবাল জানিয়েছেন, ইনজুরির কারণে পেসার শফিউলকে টুর্নামেন্টের বাকি সব ম্যাচে মিস করব আমরা। তাই পেসার খালেদ আহমেদকে তার স্থলাভিষিক্ত বেছে নিতে হচ্ছে আমাদের।

তবে এখনই খালেদকে পাচ্ছে না খুলনা। দলের সঙ্গে যোগ দিতে হলে আগে করোনা টেস্ট করাতে হবে খালেদকে। সে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে মাঠে নামতে পারবেন এই পেসার।

২০১৮ সালের নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক অভিষেক খালেদের। নিউজিল্যান্ড সফরেও খেলেছেন একটি টেস্ট। তবে থেকেছেন উইকেটশূন্য। তবে দুর্দান্ত গতিতে বল করতে পারেন এই পেসার। যে কারণে নির্বাচকদের সুনজরে আছেন খালেদ।

চলতি টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত খেলা চার ম্যাচের মধ্যে দুটিতে জিতেছে খুলনা। ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তিন নম্বরে তারা। দলটির সেরা তারকা সাকিব আল হাসান এখনও জ্বলে উঠতে পারেননি। চার ম্যাচে তার সর্বোচ্চ রান ১৫। উইকেট মাত্র ১টি। সাকিবের এমন পারফরম্যান্সে খুলনাও চমক দেখাতে পারছে না।

সাকিবের ফর্ম নিয়ে চিন্তা করছেন না খুলনার সহকারী কোচ আফতাব আহমেদ। তিনি বলেন, ‘একটা বছর গ্যাপ ছিল। সেখান থেকে ফিরে শতভাগ পাওয়া কঠিন। সাকিব চেষ্টা করছে। ম্যাচে ফিরেছে। বাকি চার ম্যাচে হয়তো সে ভালো কিছু করবে।’

বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘সাকিব অনেক দিন পর ক্রিকেটে ফিরল। সে নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার। ব্যাট হাতে তাকে সেভাবে দেখিনি এখনও। ব্যাট হাতে তার কাছ থেকে প্রত্যাশা অনেক বেশি। আমি বিশ্বাস করি, সে কামব্যাক করবে। হয়তো সময় নিচ্ছে।’

শফিউলের ইনজুরিতে কপাল খুলল খালেদের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পিঠের ইনজুরিতে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ থেকে ছিটকে পড়েছেন পেসার শফিউল ইসলাম। 

এই টুর্নামেন্টে আর খেলতে পারবেন না তিনি।

যে কারণে নতুন পেসার নিতে বাধ্য হচ্ছে শফিউলের দল জেমকন খুলনা।

জানা গেছে, শফিউলের ইনজুরিতে কপাল খুলেছে পেসার খালেদ আহমেদের। বদলি হিসেবে এই ডানহাতি পেসারকে দলে ভিড়িয়েছে খুলনা।  

দলটির ম্যানেজার নাফিজ ইকবাল জানিয়েছেন, ইনজুরির কারণে পেসার শফিউলকে টুর্নামেন্টের বাকি সব ম্যাচে মিস করব আমরা। তাই পেসার খালেদ আহমেদকে তার স্থলাভিষিক্ত বেছে নিতে হচ্ছে আমাদের।

তবে এখনই খালেদকে পাচ্ছে না খুলনা। দলের সঙ্গে যোগ দিতে হলে আগে করোনা টেস্ট করাতে হবে খালেদকে। সে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে মাঠে নামতে পারবেন এই পেসার।

২০১৮ সালের নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক অভিষেক খালেদের। নিউজিল্যান্ড সফরেও খেলেছেন একটি টেস্ট। তবে থেকেছেন উইকেটশূন্য। তবে দুর্দান্ত গতিতে বল করতে পারেন এই পেসার। যে কারণে নির্বাচকদের সুনজরে আছেন খালেদ। 

চলতি টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত খেলা চার ম্যাচের মধ্যে দুটিতে জিতেছে খুলনা। ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তিন নম্বরে তারা। দলটির সেরা তারকা সাকিব আল হাসান এখনও জ্বলে উঠতে পারেননি। চার ম্যাচে তার সর্বোচ্চ রান ১৫। উইকেট মাত্র ১টি। সাকিবের এমন পারফরম্যান্সে খুলনাও চমক দেখাতে পারছে না।

সাকিবের ফর্ম নিয়ে চিন্তা করছেন না খুলনার সহকারী কোচ আফতাব আহমেদ। তিনি বলেন, ‘একটা বছর গ্যাপ ছিল। সেখান থেকে ফিরে শতভাগ পাওয়া কঠিন। সাকিব চেষ্টা করছে। ম্যাচে ফিরেছে। বাকি চার ম্যাচে হয়তো সে ভালো কিছু করবে।’

বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘সাকিব অনেক দিন পর ক্রিকেটে ফিরল। সে নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার। ব্যাট হাতে তাকে সেভাবে দেখিনি এখনও। ব্যাট হাতে তার কাছ থেকে প্রত্যাশা অনেক বেশি। আমি বিশ্বাস করি, সে কামব্যাক করবে। হয়তো সময় নিচ্ছে।’