সেই নটরাজনের বোলিংয়েই অস্ট্রেলিয়াকে হারাল ভারত
jugantor
সেই নটরাজনের বোলিংয়েই অস্ট্রেলিয়াকে হারাল ভারত

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:০৭:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্যারিয়ারের শুরুতে ঘরোয়া লিগের বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটির কারণে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) কর্তৃক এক বছর নিষিদ্ধ হয়েছিলেন থাঙ্গারসু নটরাজন। তামিলনাড়ুর সালেম থেকে ৩৬ কিমি. দূরে এক অজোপাড়া গাঁয়ে দিনমজুর পরিবারে জন্ম নেয়া এই পেসারের নৈপুণ্যেই অস্ট্রেলিয়ার মাঠে জয় পেল ভারত।

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম খেলায় শুক্রবার ক্যানবেরার মঙ্গানুউয়ের ওভালে ১৬১ রান করে ১১ রানের জয় পেল বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন দলটি। এই জয়ে সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল ভারত।

টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় ভারত। দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে একাই লড়াই করে যান ওপেনার লোকেশ রাহুল। দলীয় ৯২ রানে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন তিনি। তার আগে ৪০ বলে পাঁচটি চার ও এক ছক্কায় ৫১ রান করেন রাহুল।

ইনিংসের শেষদিকে রবিন্দ্র জাদেজা রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান। তার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৭ উইকেটে ১৬১ রান তুলতে সক্ষম হয় ভারত। মাত্র ২৩ বলে পাঁচটি চার ও এক ছক্কায় অপরাজিত ৪৪ রান করেন জাদেজা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নেন মোয়েস হেনরিক্স। এছাড়া দুই উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৫৬ রান করেন দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও ডি আর্চি শর্ট। এরপর ভারতীয় তরুণ পেসার নটরাজন আর লেগ স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহালের বলে বিভ্রান্ত হয়ে শেষপর্যন্ত ১১ রানে হেরে যায় অস্ট্রেলিয়া। অসিদের হয়ে ২৬ বলে ৩৫ রান করেন অ্যারন ফিঞ্চ। ৩৮ বলে ৩৪ রান করেন আর্চি শর্ট। ৩০ রান করেন হেনরিক্স। ভারতের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন নটরাজন ও চাহাল।

সেই নটরাজনের বোলিংয়েই অস্ট্রেলিয়াকে হারাল ভারত

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৭:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্যারিয়ারের শুরুতে ঘরোয়া লিগের বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটির কারণে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) কর্তৃক এক বছর নিষিদ্ধ হয়েছিলেন থাঙ্গারসু নটরাজন। তামিলনাড়ুর সালেম থেকে ৩৬ কিমি. দূরে এক অজোপাড়া গাঁয়ে দিনমজুর পরিবারে জন্ম নেয়া এই পেসারের নৈপুণ্যেই অস্ট্রেলিয়ার মাঠে জয় পেল ভারত।

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম খেলায় শুক্রবার ক্যানবেরার মঙ্গানুউয়ের ওভালে ১৬১ রান করে ১১ রানের জয় পেল বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন দলটি। এই জয়ে সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল ভারত।

টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় ভারত। দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে একাই লড়াই করে যান ওপেনার লোকেশ রাহুল। দলীয় ৯২ রানে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন তিনি। তার আগে ৪০ বলে পাঁচটি চার ও এক ছক্কায় ৫১ রান করেন রাহুল।

ইনিংসের শেষদিকে রবিন্দ্র জাদেজা রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান। তার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৭ উইকেটে ১৬১ রান তুলতে সক্ষম হয় ভারত। মাত্র ২৩ বলে পাঁচটি চার ও এক ছক্কায় অপরাজিত ৪৪ রান করেন জাদেজা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নেন মোয়েস হেনরিক্স। এছাড়া দুই উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৫৬ রান করেন দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও ডি আর্চি শর্ট। এরপর ভারতীয় তরুণ পেসার নটরাজন আর লেগ স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহালের বলে বিভ্রান্ত হয়ে শেষপর্যন্ত ১১ রানে হেরে যায় অস্ট্রেলিয়া। অসিদের হয়ে ২৬ বলে ৩৫ রান করেন অ্যারন ফিঞ্চ। ৩৮ বলে ৩৪ রান করেন আর্চি শর্ট। ৩০ রান করেন হেনরিক্স। ভারতের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন নটরাজন ও চাহাল।