মরেও শান্তিতে নেই ম্যারাডোনা!
jugantor
মরেও শান্তিতে নেই ম্যারাডোনা!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮:৩৫:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের কোটি কোটি ক্রীড়াপ্রেমীকে কাঁদিয়ে গত ২৫ নভেম্বর না ফেরার দেশে পাড়ি জমান ম্যারাডোনা। পরপারে থেকেও শান্তিতে নেই আর্জেন্টাইন এই কিংবদন্তি।

তার রেখে যাওয়া ১ থেকে ৪ কোটি ডলার পরিমাণ সম্পত্তির মালিকানা নিয়ে ছেলেমেয়ে, সাবেক স্ত্রী ও বান্ধবীর মধ্যে শুরু হয়েছে ঝগড়া। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। দাবি উঠেছে, প্রমাণ সংগ্রহের জন্য দরকার হলে ম্যারাডোনার কবর খোঁড়ার।

জীবিত থাকা অবস্থায় ম্যারাডোনা যাদের সন্তান হিসেবে স্বীকৃতি দেননি এমন অনেকেই এখন নিজেকে ম্যারাডোনার সন্তান দাবি করছেন। তাদের মামলা আদালতে উঠলে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ম্যারাডোনাকে কবর থেকে উঠানো হতে পারে।

গত কয়েক বছর ধরে ম্যারাডোনার আইনজীবী হিসেবে কাজ করা মরিসিও দালেসান্দ্রো বলেছেন, জানি না কারা কারা সম্পত্তির ভাগ চাইবেন, কিন্তু তালিকাটা লম্বা হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। তবে যারা নিজেদের ম্যারাডোনার সন্তান দাবি করেন তাদের দ্রুত আদালতের দ্বারস্থ হতে হবে।

ম্যারাডোনার সঠিক সম্পত্তির পরিমাণ জানা যায়নি। তবে ফোর্বস ম্যাগাজিন সূত্রে জানা যায়, সাবেক এই কিংবদন্তির সম্প্রতির পরিমাণ ১ থেকে ৪ কোটি ডলার হতে পারে। তার মধ্যে রয়েছে জমি, বাড়ি, বিলাসবহুল গাড়ি ও গহনা।

ম্যারাডোনার সম্পত্তির অংশীদারিত্বের দাবি জানাতে পারেন তার স্বীকৃত পাঁচ সন্তান। এদের চারজন আর্জেন্টিনায়, একজন ইতালিতে থাকেন। এছাড়া ছয়জন নিজেদের ম্যারাডোনার সন্তান বলে দাবি করেছেন।

তবে ম্যারাডোনা জীবিত থাকা অবস্থায় বলেছিলেন জিয়ানিনা (৩১) এবং দলমা (৩৩) ছাড়া তার আর কোনো সম্তান নেই। এই দুজনই ম্যারাডোনার সাবেক স্ত্রী ক্লদিয়া ভিলাফেনের সন্তান।

মরেও শান্তিতে নেই ম্যারাডোনা!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের কোটি কোটি ক্রীড়াপ্রেমীকে কাঁদিয়ে গত ২৫ নভেম্বর না ফেরার দেশে পাড়ি জমান ম্যারাডোনা। পরপারে থেকেও শান্তিতে নেই আর্জেন্টাইন এই কিংবদন্তি। 

তার রেখে যাওয়া ১ থেকে ৪ কোটি ডলার পরিমাণ সম্পত্তির মালিকানা নিয়ে ছেলেমেয়ে, সাবেক স্ত্রী ও বান্ধবীর মধ্যে শুরু হয়েছে ঝগড়া। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। দাবি উঠেছে, প্রমাণ সংগ্রহের জন্য দরকার হলে ম্যারাডোনার কবর খোঁড়ার। 

জীবিত থাকা অবস্থায় ম্যারাডোনা যাদের সন্তান হিসেবে স্বীকৃতি দেননি এমন অনেকেই এখন নিজেকে ম্যারাডোনার সন্তান দাবি করছেন। তাদের মামলা আদালতে উঠলে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ম্যারাডোনাকে কবর থেকে উঠানো হতে পারে। 

গত কয়েক বছর ধরে ম্যারাডোনার আইনজীবী হিসেবে কাজ করা মরিসিও দালেসান্দ্রো বলেছেন, জানি না কারা কারা সম্পত্তির ভাগ চাইবেন, কিন্তু তালিকাটা লম্বা হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। তবে যারা নিজেদের ম্যারাডোনার সন্তান দাবি করেন তাদের দ্রুত আদালতের দ্বারস্থ হতে হবে। 

ম্যারাডোনার সঠিক সম্পত্তির পরিমাণ জানা যায়নি। তবে ফোর্বস ম্যাগাজিন সূত্রে জানা যায়, সাবেক এই কিংবদন্তির সম্প্রতির পরিমাণ ১ থেকে ৪ কোটি ডলার হতে পারে। তার মধ্যে রয়েছে জমি, বাড়ি, বিলাসবহুল গাড়ি ও গহনা।

ম্যারাডোনার সম্পত্তির অংশীদারিত্বের দাবি জানাতে পারেন তার স্বীকৃত পাঁচ সন্তান। এদের চারজন আর্জেন্টিনায়, একজন ইতালিতে থাকেন। এছাড়া ছয়জন নিজেদের ম্যারাডোনার সন্তান বলে দাবি করেছেন।

তবে ম্যারাডোনা জীবিত থাকা অবস্থায় বলেছিলেন জিয়ানিনা (৩১) এবং দলমা (৩৩) ছাড়া তার আর কোনো সম্তান নেই। এই দুজনই ম্যারাডোনার সাবেক স্ত্রী ক্লদিয়া ভিলাফেনের সন্তান।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ম্যারাডোনা আর নেই