‘দর্শকহীন মাঠে খেলা খুবই কঠিন’
jugantor
‘দর্শকহীন মাঠে খেলা খুবই কঠিন’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৩ ডিসেম্বর ২০২০, ২২:২০:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

আর্জেন্টিনার সুপারস্টার লিওনেল মেসি বলেছেন, দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলাটা দুঃসহ অভিজ্ঞতা। ভক্তদের ছাড়া ফুটবল খেলা কুৎসিত ব্যাপার। মাঠে নেমে কোনো দর্শককে না দেখলে মনে হয় ম্যাচের আগে অনুশীলন করছি। দর্শক ছাড়া মাঠে খেলা মানিয়ে নেয়া সত্যিই খুব কঠিন।

মহামারী করোনাভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কায় দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ফুটবলসহ বিভিন্ন ইভেন্টের খেলা হচ্ছে। তবে দর্শকহীন মাঠে পারফরম্যান্স করা কঠিন বলছেন বার্সেলোনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি।

স্পেনের একটি সংবাদমাধ্যমকে মেসি বলেছেন, দর্শকহীন মাঠে ফুটবল খেলার মধ্যে কোনো আমেজ নেই। মাঠে দর্শক না থাকায় ম্যাচগুলোতে তেমন প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে না। যাদের বিরুদ্ধেই খেলি না কেন, দর্শকহীন মাঠে জেতা খুবই কঠিন।

তিনি আরও বলেছেন, করোনায় ফুটবলের চিত্র পাল্টে গেছে। আমি আশা করি, খুব দ্রুতই সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে এবং আবার মাঠভর্তি স্টেডিয়ামে ফুটবল খেলতে পারব।

বার্সেলোনার হয়ে ৬৪৩ গোলের রেকর্ড গড়ে কিংবদন্তি পেলের পাশে স্থান করে নিয়েছেন মেসি। ১৯৫৬ থেকে ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত স্বদেশি ক্লাব সান্তোসে খেলে ৬৪৩ গোল করেছিলেন পেলে। অন্যদিকে ২০০৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বার্সার হয়ে খেলে ৬৪৩ গোল করেছেন মেসি।

পেলের রেকর্ডে ভাগ বসানো প্রসঙ্গে মেসি বলেছেন, আমি খুবই ভাগ্যবান যে, গোল করে উনার মতো ব্যক্তিত্বকে সম্মান জানাতে পেরেছি। আগে থেকেই চিন্তা ছিল উনাকে এভাবে সম্মান জানানোর।

‘দর্শকহীন মাঠে খেলা খুবই কঠিন’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আর্জেন্টিনার সুপারস্টার লিওনেল মেসি বলেছেন, দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলাটা দুঃসহ অভিজ্ঞতা। ভক্তদের ছাড়া ফুটবল খেলা কুৎসিত ব্যাপার। মাঠে নেমে কোনো দর্শককে না দেখলে মনে হয় ম্যাচের আগে অনুশীলন করছি। দর্শক ছাড়া মাঠে খেলা মানিয়ে নেয়া সত্যিই খুব কঠিন।

মহামারী করোনাভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কায় দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ফুটবলসহ বিভিন্ন ইভেন্টের খেলা হচ্ছে। তবে দর্শকহীন মাঠে পারফরম্যান্স করা কঠিন বলছেন বার্সেলোনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। 

স্পেনের একটি সংবাদমাধ্যমকে মেসি বলেছেন, দর্শকহীন মাঠে ফুটবল খেলার মধ্যে কোনো আমেজ নেই। মাঠে দর্শক না থাকায় ম্যাচগুলোতে তেমন প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে না। যাদের বিরুদ্ধেই খেলি না কেন, দর্শকহীন মাঠে জেতা খুবই কঠিন। 

তিনি আরও বলেছেন, করোনায় ফুটবলের চিত্র পাল্টে গেছে। আমি আশা করি, খুব দ্রুতই সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে এবং আবার মাঠভর্তি স্টেডিয়ামে ফুটবল খেলতে পারব।

বার্সেলোনার হয়ে ৬৪৩ গোলের রেকর্ড গড়ে কিংবদন্তি পেলের পাশে স্থান করে নিয়েছেন মেসি। ১৯৫৬ থেকে ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত স্বদেশি ক্লাব সান্তোসে খেলে ৬৪৩ গোল করেছিলেন পেলে। অন্যদিকে ২০০৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বার্সার হয়ে খেলে ৬৪৩ গোল করেছেন মেসি। 

পেলের রেকর্ডে ভাগ বসানো প্রসঙ্গে মেসি বলেছেন, আমি খুবই ভাগ্যবান যে, গোল করে উনার মতো ব্যক্তিত্বকে সম্মান জানাতে পেরেছি। আগে থেকেই চিন্তা ছিল উনাকে এভাবে সম্মান জানানোর।