মশার অত্যাচারে নাকাল মোস্তাফিজরা

  স্পোর্টস ডেস্ক ১২ এপ্রিল ২০১৮, ১১:১০ | অনলাইন সংস্করণ

মোস্তাফিজ,

সানরাইজারস্ হায়দরাবাদের বিপক্ষে আজ ম্যাচ রয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের। স্বাভাবিকভাবেই ভুবনেশ্বর, রশিদ খান, সাকিবদের কাছে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে রোহিত, ধাওয়ান ও মোস্তাফিজদের। তার আগে আরেক কঠিন প্রতিপক্ষের মুখে পড়েছেন রোহিতরা। মশার অত্যাচারে নাকাল তারা।

ময়দানে লড়তে এখন হায়দরাবাদে মোস্তাফিজরা। সেখানেই ঘটেছে যত বিপত্তি। রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের ড্রেসিংরুমে মশার অত্যাচারে অতিষ্ঠ তারা। পুরো ড্রেসিংরুম মশায় ভর্তি। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে কর্তৃপক্ষের কাছে মশা মারার র‌্যাকেট চেয়ে পাঠান রোহিতরা। ক্রিকেটে মনোযোগ বাদ দিয়ে তা মারতে মন নিবিষ্ট করেন ওরা।

দুর্দশা এখানেই শেষ নয়, অনুশীলন করতে গিয়ে মশার অত্যাচারে নাজেহাল হয়ে পালানোর মতো অবস্থা মুম্বাই ক্রিকেটারদের। কেউ জায়গায় দাঁড়িয়ে প্র্যাকটিস করতে পারেননি। এমন পরিস্থিতিতে হতভম্ব হয়ে পড়েন তারা।

মুম্বাইয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বললেন, গোটা দেশে মশার কামড় থেকে নানা ধরনের রোগ হচ্ছে। কিছু একটা হয়ে গেলে তো আমাদের সব যাবে! আমরা এখন শরণাপন্ন ফিজিওর। মশার কামড়ে যাতে রোগ না হয় সেজন্য তার সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

তিনি বলেন, গতকালই মলম আনতে বলেছিলাম। তা ফিজিওর ব্যাগে থাকছে। গোটা শরীরে মেখে নামছেন ক্রিকেটাররা।

এমন ন্যক্কারজনক অব্যবস্থার জন্য হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থার দিকেই অভিযোগের আঙুল উঠছে। কর্তৃপক্ষ জানাল, মুম্বাইয়ের তরফে মৌখিকভাবে প্রতিবাদ জানানোর পর বুধবারই গোটা স্টেডিয়ামে মশা তাড়ানোর স্প্রে করা হয়েছে।

কেবল ড্রেসিংরুম, মাঠেই নয়, গ্যালারিতেও মশার উপদ্রব প্রবল। তা দর্শকদের চরম ভোগান্তির কারণ হবে বলে শঙ্কা করা হচ্ছে।

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.