অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আগ্রহী আমির
jugantor
অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আগ্রহী আমির

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৮ জানুয়ারি ২০২১, ২২:৫৫:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের এ সময়ের অন্যতম সেরা পেসার মোহাম্মদ আমির।

জাতীয় দলের বর্তমান কোচিং স্টাফদের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় গত মাসে অভিমান করেই মাত্র ২৮ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে গুডবাই জানান আমির।

এই তারকা পেসার এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, যদি পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কোচিং স্টাফে পরিবর্তন আসে তাহলে অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আগ্রহী আছেন।

মিসবাহ ও ওয়াকার পাকিস্তানের কোচিং স্টাফে থাকলে খেলা অসম্ভব জানিয়ে আমির বলেছেন, ওয়াকার ইউনুস অবশ্যই একজন কিংবদন্তি, মিসবাহ দুর্দান্ত অধিনায়ক ছিলেন। কিন্তু কোচিংয়ের ব্যাপারটি সম্পূর্ণ আলাদা। মাঠে কোচিং করানোর আগে শেখা জরুরি, প্রয়োজনীয় শিক্ষা নেওয়া জরুরি। আমি বলছি না যে, পিসিবির উচিত তাদের সরিয়ে দেওয়া। তবে এখনকার কোচিং স্টাফদের যে মানসিকতা, এ অবস্থায় আমি জাতীয় দলে খেলতে পারব না।
গত মাসে নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ফেরার পর পাকিস্তানের প্রধান কোচ মিসবাহ দাবি করেন ৮৭-৮৮ মাইল গতিতে বোলিং করার সামর্থ্য থাকলেও আমির ৮১ মাইল গতিতে বোলিং করেছেন। পারফরম্যান্সের কারণেই নির্বাচক ও অধিনায়ক মিলে আমিরকে বাদ দিয়েছে।

প্রধান কোচের এসব মন্তব্যের জবাবে বৃহস্পতিবার আমির বলেছেন, পারফরম্যান্স এখানে কোনো ঘটনাই নয়, কারণ আমি জানি যে আমার সামর্থ্য আছে। কিন্তু তারা ক্রিকেটারদের যেভাবে মানসিক নির্যাতনের মধ্যে রাখে সেখানে ভালো করা আদৌ সম্ভব না।

মাত্র ২৮ বছর বয়সে অবসর নেয়া আমির বলেছেন, ক্রিকেটারদের স্বাধীনভাবে নিঃশ্বাস নেওয়ার সুযোগ দেয়া হয় না। পাকিস্তানের ড্রেসিংরুমে কোনো স্বাধীনতা নেই। ড্রেসিং রুমের এই ভীতিজাগা আবহ সরিয়ে ফেলুন। দেখবেন ক্রিকেটাররা পারফর্ম করবে ও ম্যাচ জেতাবে।

আমির আরও বলেছেন, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ২১ উইকেট নেওয়ার পরের ম্যাচেই আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। এটা যদি ব্যক্তিগত ইস্যু না হয়, তাহলে কোনটি ব্যক্তিগত? কিছুদিন আগে আমি শ্রীলংকা প্রিমিয়ার লিগে ১৪৫ কিলোমিটার (৯০ মাইলের বেশি) গতিতে বোলিং করেছি।

পাকিস্তানের হয়ে ৬১ ওয়ানডে, ৫০ টি-টোয়েন্টি আর ৩৬ টেস্টে অংশ নিয়ে ২৫৯ উইকেট শিকার করা আমির আরও বলেছেন, বোলিং কোচ বলেছেন- গতি কোনো ব্যাপার নয়, ২০ উইকেট নিতে পারাই গুরুত্বপূর্ণ। আরেক কোচ বলেছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে গতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা কার কথা বিশ্বাস করব? আগে নিজেরা ভাবুন যে, কী বলতে চান, তারপর আমিরকে শেখাতে আসবেন।

অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আগ্রহী আমির

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১০:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের এ সময়ের অন্যতম সেরা পেসার মোহাম্মদ আমির। 

জাতীয় দলের বর্তমান কোচিং স্টাফদের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় গত মাসে অভিমান করেই মাত্র ২৮ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে গুডবাই জানান আমির। 

এই তারকা পেসার এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, যদি পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কোচিং স্টাফে পরিবর্তন আসে তাহলে অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আগ্রহী আছেন।

মিসবাহ ও ওয়াকার পাকিস্তানের কোচিং স্টাফে থাকলে খেলা অসম্ভব জানিয়ে আমির বলেছেন, ওয়াকার ইউনুস অবশ্যই একজন কিংবদন্তি, মিসবাহ দুর্দান্ত অধিনায়ক ছিলেন। কিন্তু কোচিংয়ের ব্যাপারটি সম্পূর্ণ আলাদা। মাঠে কোচিং করানোর আগে শেখা জরুরি, প্রয়োজনীয় শিক্ষা নেওয়া জরুরি। আমি বলছি না যে, পিসিবির উচিত তাদের সরিয়ে দেওয়া। তবে এখনকার কোচিং স্টাফদের যে মানসিকতা, এ অবস্থায় আমি জাতীয় দলে খেলতে পারব না।
গত মাসে নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ফেরার পর পাকিস্তানের প্রধান কোচ মিসবাহ দাবি করেন ৮৭-৮৮ মাইল গতিতে বোলিং করার সামর্থ্য থাকলেও আমির ৮১ মাইল গতিতে বোলিং করেছেন। পারফরম্যান্সের কারণেই নির্বাচক ও অধিনায়ক মিলে আমিরকে বাদ দিয়েছে।

প্রধান কোচের এসব মন্তব্যের জবাবে বৃহস্পতিবার আমির বলেছেন, পারফরম্যান্স এখানে কোনো ঘটনাই নয়, কারণ আমি জানি যে আমার সামর্থ্য আছে। কিন্তু তারা ক্রিকেটারদের যেভাবে মানসিক নির্যাতনের মধ্যে রাখে সেখানে ভালো করা আদৌ সম্ভব না। 

মাত্র ২৮ বছর বয়সে অবসর নেয়া আমির বলেছেন, ক্রিকেটারদের স্বাধীনভাবে নিঃশ্বাস নেওয়ার সুযোগ দেয়া হয় না। পাকিস্তানের ড্রেসিংরুমে কোনো স্বাধীনতা নেই। ড্রেসিং রুমের এই ভীতিজাগা আবহ সরিয়ে ফেলুন। দেখবেন ক্রিকেটাররা পারফর্ম করবে ও ম্যাচ জেতাবে।

আমির আরও বলেছেন, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ২১ উইকেট নেওয়ার পরের ম্যাচেই আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। এটা যদি ব্যক্তিগত ইস্যু না হয়, তাহলে কোনটি ব্যক্তিগত? কিছুদিন আগে আমি শ্রীলংকা প্রিমিয়ার লিগে ১৪৫ কিলোমিটার (৯০ মাইলের বেশি) গতিতে বোলিং করেছি।

পাকিস্তানের হয়ে ৬১ ওয়ানডে, ৫০ টি-টোয়েন্টি আর ৩৬ টেস্টে অংশ নিয়ে ২৫৯ উইকেট শিকার করা আমির আরও বলেছেন, বোলিং কোচ বলেছেন- গতি কোনো ব্যাপার নয়, ২০ উইকেট নিতে পারাই গুরুত্বপূর্ণ। আরেক কোচ বলেছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে গতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা কার কথা বিশ্বাস করব? আগে নিজেরা ভাবুন যে, কী বলতে চান, তারপর আমিরকে শেখাতে আসবেন।