কে এগিয়ে, বাংলাদেশ না উইন্ডিজ?
jugantor
কে এগিয়ে, বাংলাদেশ না উইন্ডিজ?

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৯ জানুয়ারি ২০২১, ২২:৪১:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

ওয়ানডে পরিসংখ্যানে বাংলাদেশের চেয়ে একধাপ এগিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুই দল একদিনের ক্রিকেটে অতীতে ৩৮ ম্যাচে মুখোমুখি হয়। তার মধ্যে বাংলাদেশ জিতে মাত্র ১৫ ম্যাচে, ২১ ম্যাচে জয় পায় উইন্ডিজ। দুই দলের দুই ম্যাচে ফল হয়নি।

তবে কাগজে-কলমে এগিয়ে বাংলাদেশ দল। করোনার অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের জাতীয় দলের ১০ জন তারকা ক্রিকেটার। বলতে গেলে তারুণ্যনির্ভর দল নিয়েই সফরে এসেছে ক্যারিবীয়রা। উইন্ডিজের এই দলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে জিততে না পারলে হতাশই হবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

দুই দলের অতীত সাক্ষাতে দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর বাংলাদেশ-৩২২/৩ রান। ২০১৯ সালে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে এ স্কোর গড়ে টাইগাররা।

আর ২০১৪ সালে নিজেদের মাঠে সেন্ট কিটসে বাংলাদেশের বিপক্ষে দলীয় সর্বোচ্চ ৩৩৮/৭ রান করে ক্যারিবীয়রা।

তবে সর্বনিম্ন রানের হিসেবে ২০১১ সালে ক্যারিবীয় দলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ৫৮ রানের লজ্জায় পড়ে বাংলাদেশ। একই বছর চট্টগ্রামে উইন্ডিজকে ৬১ রানের লজ্জা দেয় টাইগাররা।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে সফল বাংলাদেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকাব। তিনি উইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৯৩৩ রান সংগ্রহ করেছেন। ক্যারিবীয় তারকা ব্যাটসম্যান শাই হোপ করেন ৭৫৮ রান। করোনার অজুহাতে তিনি এ সফরে আসেননি।

দুই দলের সাক্ষাতে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন বাংলাদেশ সেরা সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি ৩০ উইকেট শিকার করেন। এ সিরিজের দলে নেই নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত তারকা পেসার। উইন্ডিজের হয়ে কেমার রোচ শিকার করেন ৩০ উইকেট।

কে এগিয়ে, বাংলাদেশ না উইন্ডিজ?

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১০:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ওয়ানডে পরিসংখ্যানে বাংলাদেশের চেয়ে একধাপ এগিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুই দল একদিনের ক্রিকেটে অতীতে ৩৮ ম্যাচে মুখোমুখি হয়। তার মধ্যে বাংলাদেশ জিতে মাত্র ১৫ ম্যাচে, ২১ ম্যাচে জয় পায় উইন্ডিজ। দুই দলের দুই ম্যাচে ফল হয়নি।

তবে কাগজে-কলমে এগিয়ে বাংলাদেশ দল। করোনার অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের জাতীয় দলের ১০ জন তারকা ক্রিকেটার। বলতে গেলে তারুণ্যনির্ভর দল নিয়েই সফরে এসেছে ক্যারিবীয়রা। উইন্ডিজের এই দলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে জিততে না পারলে হতাশই হবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। 

দুই দলের অতীত সাক্ষাতে দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর বাংলাদেশ-৩২২/৩ রান। ২০১৯ সালে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে এ স্কোর গড়ে টাইগাররা। 

আর ২০১৪ সালে নিজেদের মাঠে সেন্ট কিটসে বাংলাদেশের বিপক্ষে দলীয় সর্বোচ্চ ৩৩৮/৭ রান করে ক্যারিবীয়রা।

তবে সর্বনিম্ন রানের হিসেবে ২০১১ সালে ক্যারিবীয় দলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ৫৮ রানের লজ্জায় পড়ে বাংলাদেশ। একই বছর চট্টগ্রামে উইন্ডিজকে ৬১ রানের লজ্জা দেয় টাইগাররা। 

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে সফল বাংলাদেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকাব। তিনি  উইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৯৩৩ রান সংগ্রহ করেছেন। ক্যারিবীয় তারকা ব্যাটসম্যান শাই হোপ করেন ৭৫৮ রান। করোনার অজুহাতে তিনি এ সফরে আসেননি। 

দুই দলের সাক্ষাতে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন বাংলাদেশ সেরা সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি ৩০ উইকেট শিকার করেন। এ সিরিজের দলে নেই নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত তারকা পেসার। উইন্ডিজের হয়ে কেমার রোচ শিকার করেন ৩০ উইকেট।

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ ২০২১ ঢাকা

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১