‘মোস্তাফিজকে ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারছেন না রোহিত’

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৩:২১ | অনলাইন সংস্করণ

মোস্তাফিজ,

এবারের আইপিএলে এখন পর্যন্ত জয়ের মুখ দেখেনি মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। তিন ম্যাচ খেলে সবকটিতেই নাটকীয়ভাবে হেরেছে দলটি। অথচ জয় পেতে পারত তিনটিতেই। এমন রোমাঞ্চকর হারের জন্য রোহিত শর্মাকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন কিংবদন্তিতুল্য পেসার জহির খান! তার মতে, ডেথ ওভারে মোস্তাফিজুর রহমান ও জাসপ্রিত বুমরাহকে বল করানোয় হারতে হচ্ছে মুম্বাইকে!

ডেথ ওভারে সময়ের দুই সেরা পেসার মোস্তাফিজ ও বুমরাহর হাতে বল তুলে দেন রোহিত। জয়ের প্রত্যাশাতেই এ সিদ্ধান্ত নেন তিনি। কিন্তু এতে ঘটে হিতে বিপরীত।

জহির বলেন, ইনিংসের শেষ মুহূর্তে ফিজকে বল করিয়ে ভুল সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন মুম্বাই অধিনায়ক। একই কথা বলব বুমরাহর ক্ষেত্রেও। প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যানরা ধরেই নিচ্ছেন, শেষ দিকে এ দুই বোলারকে তাদের মোকাবেলা করতে হবে। ফলে কৌশলী ব্যাটিংয়ে কার্যসিদ্ধি উদ্ধার করে ছাড়ছেন তারা।

চলমান আইপিএলে ম্যাচ বিশ্লেষকের দায়িত্ব পালন করছেন ভারতের সাবেক এ বাঁহাতি পেসার। তিনি মনে করেন, মোস্তাফিজ ও বুমরাহকে প্রথম দিকে আক্রমণে আনলে বেশি লাভবান হতো মুম্বাই। এতে করে প্রতিপক্ষের ওপর চাপ সৃষ্টি হতো। রানের চাকা শ্লথ হতো। ফলে শেষ দিকে চাপের মুখে যে কাউকে দিয়ে বল করালে পক্ষেই ফল আসতে পারত।

জহির খান বলেন, ইনিংসের শুরুর দিকে মোস্তাফিজ-বুমরাহকে ব্যবহার করছেন না রোহিত। স্লগ ওভারের জন্য তাদের রেখে দিচ্ছেন। অথচ প্রথম দিকে সেরা দুই বোলারকে বল করালে শুরুটাও ভালো হতো। এতে পরে দুজনের ওপর বাড়তি চাপ পড়ত না। প্রথমে উইকেট তুলে নিয়ে প্রতিপক্ষের ওপরই চাপ থাকত।

শুরুতে মোস্তাফিজ-বুমরাহকে বল করালে প্রতিপক্ষের রান আটকানো সম্ভব হতো। একই সঙ্গে দ্রুত উইকেট তুলে নিয়ে তাদের ওপর আধিপত্য বিস্তার করত। তিনি বলেন, শুরুর দিকে দুজনকে বল করালে শেষ ওভারে ১৭-১৮ রান দরকার হতো। প্রথম দিকে হার্দিক পান্ডিয়া ও আকিলা ধনাঞ্জয়াকে দিয়ে বল করিয়েছেন রোহিত। তারা কিন্তু মুম্বাইয়ের স্ট্রাইক বোলার নন। শুরুর দিকে উইকেট পড়ে গেলে শেষের দিকের ব্যাটসম্যানরা স্বাভাবিকভাবেই চাপে থাকে।

প্রতি ম্যাচেই অসাধারণ বল করেও পরাজিত দলের সদস্য মোস্তাফিজ। এতে আক্ষেপে পুড়তে পারেন তিনি। তবে আর সবার মতো জহিরের কাছ থেকেও বাহ্বা পাচ্ছেন কাটার মাস্টার, প্রতি ম্যাচেই দুর্দান্ত করছে ফিজ। এতেই ইঙ্গিত পাওয়া যায়, প্রথম দিকে তছনছ করে দেয়ার মতো বোলার সে।

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল ২০১৮

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.