চতুর্থ টেস্টেও অক্ষর প্যাটেলের স্পিনে কুপোকাত ইংল্যান্ড
jugantor
চতুর্থ টেস্টেও অক্ষর প্যাটেলের স্পিনে কুপোকাত ইংল্যান্ড

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৪ মার্চ ২০২১, ১৬:১৪:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

এ যেন তৃতীয় টেস্টের পুনরাবৃত্তি। সেই অক্ষর-অশ্বিনের ঘূর্ণিবলে ধরাশায়ী ইংল্যান্ড।

অবশ্য এমনটা হওয়ারই কথা। ভেন্যু যে একই। অক্ষর প্যাটেল ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনের স্পিনবিষে এখন পর্যন্ত প্রথম দিনের খেলায় ৯ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে সফরকারীরা। স্কোরবোর্ডে জমা করেছে ১৯১ রান।

শেষ বিকেলে ভারতীয় বোলারদের মোকাবিলা করে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের লেজের দিকের দুই ব্যাটসম্যান।

প্রথম ইনিংস দুইশ পার হয় কি না সেটাই এখন প্রশ্ন। তবুও তৃতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসের চেয়ে বেশি রানই সংগ্রহ হয়েছে ইংল্যান্ডের।

সেই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১১২ রানেই গুটিয়ে যায় জো রুটের দল।

আজ ইংল্যান্ড দলের এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান এসেছে অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের। ১২১ বলে ৫৫ রান করে পেসার মোহাম্মদ সিরাজের শিকারে পরিণত হন। এখন পর্যন্ত অর্ধশতকে পৌঁছুতে পারেননি আর কেউ।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ইনিংসটি এসেছে টেলএন্ডার ডন লরেন্সের ব্যাট থেকে। ৪৬ রান করে অক্ষরের স্পিনে থেমে গেছেন লরেন্স।

স্টোকস ছাড়া দুইয়ের অঙ্কে পৌঁছে আউট হয়েছেন জনি বেয়ারস্টো ও অলিপপ। বাকিরা সবাই সিঙ্গেল ডিজিটেই সাজঘরে ফিরেছেন।

বৃহস্পতিবার টসে জিতে ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ড। শুরুটা একেবারেই ভালো হয়নি সফরকারীদের। স্কোরবোর্ডে ১০ রান তুলতেই ওপেনার ডম সিবলিকে হারায় ইংল্যান্ড।

তৃতীয় টেস্ট জয়ের নায়ক সেই অক্ষর প্যাটেলের ঘূর্ণিতেই কুপোকাত সিবলি। ৬ বলে ২ রান করে আউট হন তিনি।

ইশান্ত শর্মার পেস আক্রমণ সামলে নিয়ে অক্ষরের পরের ওভারেই ধরাশায়ী আরেক ওপেনার জ্যাক ক্রলি। এবার অক্ষরের বলে মিড-অফে দাঁড়ানো মোহাম্মদ সিরাজের হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরেন ক্রলি। ৩০ বল মোকাবিলা করে ৯ রানে আউট হয়েছেন ক্রলি।

এমন পরিস্থিতিতে দলের হাল ধরতে নামেন অধিনায়ক জো রুট। কিন্তু কিছুই করতে পারেননি অধিনায়ক। অক্ষরের স্পিনকে সামলে নিলেও সিরাজের পেসে পরাস্ত হন রুট। এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে রুট জমা করতে পারেন মাত্র ৫ রান।

অর্থাৎ ৩০ রানেই প্রথমসারির ৩ উইকেট হাওয়া ইংল্যান্ডের।

অবশ্য এরপর বেয়ারস্টো-স্টোকস জুটি বিপর্যয় কিছুটা কাটিয়ে উঠে মধ্যাহ্নবিরতিতে যায় সফরকারীরা। কিন্তু বিরতির পর মাঠে ফিরে ৪ রান যোগ করেই আউট বেয়ারেস্টো। অর্থাৎ এ জুটি যোগ করে ৪৮ রান।

৬৭ বল খেলে ২৮ রান করে সিরাজের পেসে এলবিডব্লিউ হন বেয়ারস্টো। অলরাউন্ডার স্টোকস ৫৫ পার হয়ে ওয়াশিংটন সুন্দরের স্পিনে পরাস্ত হন।
এরপর ড্যান লরেন্স ছাড়া বাকিরা সবাই আসছেন আর গেছেন।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় শেষ উইকেট নিয়ে লড়ছে ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ৭২ ওভার খেলা শেষে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৯ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান। ২৪ ওভার বল করে ৭ মেডেনে ৫৯ রানের খরচায় ৪ উইকেট নিয়েছেন অক্ষর। পেসার সিরাজ ও স্পিনার অশ্বিন নিয়েছেন দুটি করে।

তথ্যসূত্র: ক্রিকইনফো

চতুর্থ টেস্টেও অক্ষর প্যাটেলের স্পিনে কুপোকাত ইংল্যান্ড

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৪ মার্চ ২০২১, ০৪:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এ যেন তৃতীয় টেস্টের পুনরাবৃত্তি। সেই অক্ষর-অশ্বিনের ঘূর্ণিবলে ধরাশায়ী ইংল্যান্ড।

অবশ্য এমনটা হওয়ারই কথা।  ভেন্যু যে একই।  অক্ষর প্যাটেল ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনের স্পিনবিষে এখন পর্যন্ত প্রথম দিনের খেলায় ৯ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে সফরকারীরা। স্কোরবোর্ডে জমা করেছে ১৯১ রান।

শেষ বিকেলে ভারতীয় বোলারদের মোকাবিলা করে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের লেজের দিকের দুই ব্যাটসম্যান।

প্রথম ইনিংস দুইশ পার হয় কি না সেটাই এখন প্রশ্ন।  তবুও তৃতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসের চেয়ে বেশি রানই সংগ্রহ হয়েছে ইংল্যান্ডের।

সেই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১১২ রানেই গুটিয়ে যায় জো রুটের দল।

আজ ইংল্যান্ড দলের এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান এসেছে অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের।  ১২১ বলে ৫৫ রান করে পেসার মোহাম্মদ সিরাজের শিকারে পরিণত হন। এখন পর্যন্ত অর্ধশতকে পৌঁছুতে পারেননি আর কেউ।  

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ইনিংসটি এসেছে টেলএন্ডার ডন লরেন্সের ব্যাট থেকে।  ৪৬ রান করে অক্ষরের স্পিনে থেমে গেছেন লরেন্স। 

স্টোকস ছাড়া দুইয়ের অঙ্কে পৌঁছে আউট হয়েছেন জনি বেয়ারস্টো ও অলিপপ। বাকিরা সবাই সিঙ্গেল ডিজিটেই সাজঘরে ফিরেছেন।

বৃহস্পতিবার টসে জিতে ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ড। শুরুটা একেবারেই ভালো হয়নি সফরকারীদের। স্কোরবোর্ডে ১০ রান তুলতেই ওপেনার ডম সিবলিকে হারায় ইংল্যান্ড।  

তৃতীয় টেস্ট জয়ের নায়ক সেই অক্ষর প্যাটেলের ঘূর্ণিতেই কুপোকাত সিবলি। ৬ বলে ২ রান করে আউট হন তিনি।

ইশান্ত শর্মার পেস আক্রমণ সামলে নিয়ে অক্ষরের পরের ওভারেই ধরাশায়ী আরেক ওপেনার জ্যাক ক্রলি। এবার অক্ষরের বলে মিড-অফে দাঁড়ানো মোহাম্মদ সিরাজের হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরেন ক্রলি। ৩০ বল মোকাবিলা করে ৯ রানে আউট হয়েছেন ক্রলি। 

এমন পরিস্থিতিতে দলের হাল ধরতে নামেন অধিনায়ক জো রুট।  কিন্তু কিছুই করতে পারেননি অধিনায়ক। অক্ষরের স্পিনকে সামলে নিলেও সিরাজের পেসে পরাস্ত হন রুট। এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে রুট জমা করতে পারেন মাত্র ৫ রান।

অর্থাৎ ৩০ রানেই প্রথমসারির ৩ উইকেট হাওয়া ইংল্যান্ডের।

অবশ্য এরপর বেয়ারস্টো-স্টোকস জুটি বিপর্যয় কিছুটা কাটিয়ে উঠে মধ্যাহ্নবিরতিতে যায় সফরকারীরা।  কিন্তু বিরতির পর মাঠে ফিরে ৪ রান যোগ করেই আউট বেয়ারেস্টো।  অর্থাৎ এ জুটি যোগ করে ৪৮ রান। 

৬৭ বল খেলে ২৮ রান করে সিরাজের পেসে এলবিডব্লিউ হন বেয়ারস্টো। অলরাউন্ডার স্টোকস ৫৫ পার হয়ে ওয়াশিংটন সুন্দরের স্পিনে পরাস্ত হন। 
এরপর ড্যান লরেন্স ছাড়া বাকিরা সবাই আসছেন আর গেছেন।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় শেষ উইকেট নিয়ে লড়ছে ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ৭২ ওভার খেলা শেষে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৯ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান। ২৪ ওভার বল করে ৭ মেডেনে ৫৯ রানের খরচায় ৪ উইকেট নিয়েছেন অক্ষর।  পেসার সিরাজ ও স্পিনার অশ্বিন নিয়েছেন দুটি করে। 

তথ্যসূত্র: ক্রিকইনফো

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন