ক্রাইস্টচার্চে নূর মসজিদে আবারও হামলার হুমকি
jugantor
ক্রাইস্টচার্চে নূর মসজিদে আবারও হামলার হুমকি

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৫ মার্চ ২০২১, ১৩:২৭:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফর মানেই আতঙ্কের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। দুই বছর আগে ক্রাইস্টচার্চের নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে যাওয়ার সময় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার মুখে পড়ে বাংলাদেশ দল।

উগ্রবাদী অস্ট্রেলীয় নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারেন্ট গুলি চালিয়ে হত্যা করেন অর্ধশতাধিক মুসল্লিকে। সেই যাত্রায় অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

দুই বছর পর ফের নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে একই রকম হামলার আশঙ্কায় ভুগছে বাংলাদেশ দল।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান বলছে, ওই ন্যক্কারজনক হামলার দুই বছর পূর্তিতে আবারও সেই নূর মসজিদে হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে।

নিউজিল্যান্ড পুলিশ জানিয়েছে, অনলাইনের মাধ্যমে আল নূর মসজিদের পাশাপাশি লিংহুড ইসলামিক সেন্টারেও হামলার এ হুমকি দেওয়া হয়। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার আগেই ক্রাইস্টচার্চ থেকে শুক্রবার এক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

আটক হওয়া ব্যক্তির বয়স ২৭ বছর জানালেও তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করেনি নিউজিল্যান্ড পুলিশ।

এমন খবরে বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কারণ ক্রাইস্টচার্চেই এখন অবস্থান করছেন টাইগাররা।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিউজিল্যান্ড পৌঁছে ক্রাইস্টচার্চের শ্যাডো বাই পার্ক হোটেলে ঠাঁই নিয়েছে বাংলাদেশ দল।

এরই মধ্যে নিউজিল্যান্ডে ৭.৩ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়েছে। দেওয়া হয়েছে সুনামি সতর্কতাও। এতে বাংলাদেশ দল নিরাপদে রইলেও মানসিকভাবে বিচলিত তো অবশ্যই।

এদিকে আজ শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের সেই আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেছে বাংলাদেশ দল।

অনলাইনে দেওয়া হুমকি মোতাবেক, ওই হামলার দুই বছর পূর্তি দিবস পালন করতে চায় সন্ত্রাসীরা। সে হিসাবে এখনও ১০ দিন বাকি।

তবে এর আগেই ক্রাইস্টচার্চ ছাড়বে টিম বাংলাদেশ। আগামী ১০ মার্চ টাইগাররা চলে যাবে কুইনসটাউনে।

ক্রাইস্টচার্চে নূর মসজিদে আবারও হামলার হুমকি

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৫ মার্চ ২০২১, ০১:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফর মানেই আতঙ্কের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। দুই বছর আগে ক্রাইস্টচার্চের নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে যাওয়ার সময় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার মুখে পড়ে বাংলাদেশ দল। 

উগ্রবাদী অস্ট্রেলীয় নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারেন্ট গুলি চালিয়ে হত্যা করেন অর্ধশতাধিক মুসল্লিকে।  সেই যাত্রায় অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। 

দুই বছর পর ফের নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে একই রকম হামলার আশঙ্কায় ভুগছে বাংলাদেশ দল।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান বলছে, ওই ন্যক্কারজনক হামলার দুই বছর পূর্তিতে আবারও সেই নূর মসজিদে হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। 

নিউজিল্যান্ড পুলিশ জানিয়েছে, অনলাইনের মাধ্যমে আল নূর মসজিদের পাশাপাশি লিংহুড ইসলামিক সেন্টারেও হামলার এ হুমকি দেওয়া হয়। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার আগেই ক্রাইস্টচার্চ থেকে শুক্রবার এক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।  

আটক হওয়া ব্যক্তির বয়স ২৭ বছর জানালেও তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করেনি নিউজিল্যান্ড পুলিশ। 

এমন খবরে বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কারণ ক্রাইস্টচার্চেই এখন অবস্থান করছেন টাইগাররা।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিউজিল্যান্ড পৌঁছে ক্রাইস্টচার্চের শ্যাডো বাই পার্ক হোটেলে ঠাঁই নিয়েছে বাংলাদেশ দল। 

এরই মধ্যে নিউজিল্যান্ডে ৭.৩ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়েছে। দেওয়া হয়েছে সুনামি সতর্কতাও।  এতে বাংলাদেশ দল নিরাপদে রইলেও মানসিকভাবে বিচলিত তো অবশ্যই।

এদিকে আজ শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের সেই আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেছে বাংলাদেশ দল।

অনলাইনে দেওয়া হুমকি মোতাবেক, ওই হামলার দুই বছর পূর্তি দিবস পালন করতে চায় সন্ত্রাসীরা।  সে হিসাবে এখনও ১০ দিন বাকি। 

তবে এর আগেই ক্রাইস্টচার্চ ছাড়বে টিম বাংলাদেশ। আগামী ১০ মার্চ  টাইগাররা চলে যাবে কুইনসটাউনে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ ২০২১