লংকান স্পিনে ধরাশায়ী গেইল-পোলার্ডরা
jugantor
লংকান স্পিনে ধরাশায়ী গেইল-পোলার্ডরা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৬ মার্চ ২০২১, ১০:৫০:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আগের ম্যাচে ক্যারিবীয় অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের কাছে তুলোধোনা হয়েছিলেন লংকান স্পিনার আকিলা ধনঞ্জয়া। তার এক ওভারে ছয় বলে ছয় ছক্কা হাঁকান পোলার্ড।

সেই ধনঞ্জয়ার স্পিনঘূর্ণিতেই এবার কুপোকাত হয়েছে গেইল-পোলার্ডরা।

শনিবার আকিলা ধনঞ্জয়া, ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, লাকশান সান্দাকানরার বোলিং তোপে ৪৩ রানের বড় জয় পেয়েছে শ্রীলংকা।

অ্যান্টিগার কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় ভোরে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৬০ রান সংগ্রহ করে শ্রীলংকা। দানুশকা গুনাথিলাকা দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন।

জবাবে ১৮.৪ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১১৭ রানে থেমে যায় ক্যারিবীয়রা।

এ জয়ে সিরিজে ১-১ সমতায় ফিরল সফরকারী শ্রীলংকা।

ম্যাচে বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি খরুচে ছিলেন থিসারা পেরেরা। ২ ওভারে ৪২ রান দেন এই পেসার।

তবে অন্য পেসার দুশমন্থ চামিরা ছিলেন বেশ উজ্জ্বল। মাত্র ২৬ রানের খরচায় ২ উইকেট নেন তিনি।

উইকেট কম পেলেও নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের আটকে ফেলেছিলেন আগের ম্যাচে ৬২ রান দেওয়া আকিলা ধনাঞ্জয়া।

৪ ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন তিনি। তবে সবার চেয়ে দুর্দান্ত ছিলেন লেগ স্পিনার হাসারাঙ্গা ডি সিলভা।

মাত্র ১৭ রান দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট নেন তিনি। ব্যাট হাতেও গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন হাসারাঙ্গা।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে শ্রীলংকা। দুই ওপেনার দানুশকা গুনাথিলাকা ও পাথুম নিসাঙ্কার উড়ন্ত সূচনায় ধারণা করা হচ্ছিল টার্গেট ২০০ ছাড়িয়ে যাবে অনায়াসেই। উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ১০ ওভারেই ৯৫ রান করে ফেলেছিল শ্রীলংকা।

কিন্তু তা হতে দেয়নি ক্যারিবীয় বোলাররা। গুনাথিলাকা ৪২ বলে ৫৬ ও নিসাঙ্কা ২৩ বলে ৩৭ রান করে আউট হলে পরে বাকিরা রানের চাকা সেভাবে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেননি।

শেষদিকে ৩ চারের মারে ১১ বলে ১৯ রান করে দলীয় সংগ্রহটা দেড়শ পার করান হাসারাঙ্গা ডি সিলভা।

শ্রীলংকার ছোড়া ১৬১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে এভিন লুইস, কাইরন পোলার্ড, লেন্ডল সিমনসদের সবাই ব্যর্থ হন।

লুইস ৬ বলে ৬, সিমনস ১৯ বলে ২১ ও কাইরন পোলার্ড ১৫ বলে ১৩ রান করে আউট হন। দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ফেরা ক্রিস গেইল এই ম্যাচেও ছিলেন ব্যর্থ। দানবীয় ইনিংস দেখা যায়নি তার থেকে। ১৬ বলে ১৬ রান করে আউট হন।।

এরপর নিকোলাস পুরান ১৫ বলে ৮, জেসন হোল্ডার ৫ বলে ৯ ও ডোয়াইন ব্রাভোরা ৪ বলে ২ করলে ক্যারিবীয়দের ইনিংস থামে মাত্র ১১৭ রানে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন দশ নম্বরে নামা ওবেদ ম্যাকয়।

লংকান স্পিনে ধরাশায়ী গেইল-পোলার্ডরা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৬ মার্চ ২০২১, ১০:৫০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আগের ম্যাচে ক্যারিবীয় অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের কাছে তুলোধোনা হয়েছিলেন লংকান স্পিনার আকিলা ধনঞ্জয়া। তার এক ওভারে ছয় বলে ছয় ছক্কা হাঁকান পোলার্ড।

সেই ধনঞ্জয়ার স্পিনঘূর্ণিতেই এবার কুপোকাত হয়েছে গেইল-পোলার্ডরা।

শনিবার আকিলা ধনঞ্জয়া, ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, লাকশান সান্দাকানরার বোলিং তোপে ৪৩ রানের বড় জয় পেয়েছে শ্রীলংকা।

অ্যান্টিগার কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় ভোরে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৬০ রান সংগ্রহ করে শ্রীলংকা। দানুশকা গুনাথিলাকা দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন।

জবাবে ১৮.৪ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১১৭ রানে থেমে যায় ক্যারিবীয়রা। 

এ জয়ে সিরিজে ১-১ সমতায় ফিরল সফরকারী শ্রীলংকা।

ম্যাচে বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি খরুচে ছিলেন থিসারা পেরেরা। ২ ওভারে ৪২ রান দেন এই পেসার।

তবে অন্য পেসার দুশমন্থ চামিরা ছিলেন বেশ উজ্জ্বল। মাত্র ২৬ রানের খরচায় ২ উইকেট নেন তিনি।

উইকেট কম পেলেও নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের আটকে ফেলেছিলেন আগের ম্যাচে ৬২ রান দেওয়া আকিলা ধনাঞ্জয়া। 

৪ ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন তিনি। তবে সবার চেয়ে দুর্দান্ত ছিলেন লেগ স্পিনার হাসারাঙ্গা ডি সিলভা। 

মাত্র ১৭ রান দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট নেন তিনি। ব্যাট হাতেও গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন হাসারাঙ্গা।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে শ্রীলংকা।  দুই ওপেনার দানুশকা গুনাথিলাকা ও পাথুম নিসাঙ্কার উড়ন্ত সূচনায় ধারণা করা হচ্ছিল টার্গেট ২০০ ছাড়িয়ে যাবে অনায়াসেই।  উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ১০ ওভারেই ৯৫ রান করে ফেলেছিল শ্রীলংকা।

কিন্তু তা হতে দেয়নি ক্যারিবীয় বোলাররা।  গুনাথিলাকা ৪২ বলে ৫৬ ও নিসাঙ্কা ২৩ বলে ৩৭ রান করে আউট হলে পরে বাকিরা রানের চাকা সেভাবে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেননি। 

শেষদিকে ৩ চারের মারে ১১ বলে ১৯ রান করে দলীয় সংগ্রহটা দেড়শ পার করান হাসারাঙ্গা ডি সিলভা।
 
শ্রীলংকার ছোড়া ১৬১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে এভিন লুইস, কাইরন পোলার্ড, লেন্ডল সিমনসদের সবাই ব্যর্থ হন। 

লুইস ৬ বলে ৬, সিমনস ১৯ বলে ২১ ও কাইরন পোলার্ড ১৫ বলে ১৩ রান করে আউট হন।  দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ফেরা ক্রিস গেইল এই ম্যাচেও ছিলেন ব্যর্থ।  দানবীয় ইনিংস দেখা যায়নি তার থেকে। ১৬ বলে ১৬ রান করে আউট হন।। 

এরপর নিকোলাস পুরান ১৫ বলে ৮, জেসন হোল্ডার ৫ বলে ৯ ও ডোয়াইন ব্রাভোরা ৪ বলে ২ করলে ক্যারিবীয়দের ইনিংস থামে মাত্র ১১৭ রানে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন দশ নম্বরে নামা ওবেদ ম্যাকয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন