এশিয়া কাপে খেলতে পারবেন না কোহলিরা
jugantor
এশিয়া কাপে খেলতে পারবেন না কোহলিরা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৮ মার্চ ২০২১, ১৮:০৯:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

বিরাট কোহলির মতো ভারতীয় তারকা ক্রিকেটারদের এশিয়া কাপে খেলা অনিশ্চিত। এশিয়া কাপে ভারত অংশ নিলেও খেলতে পারবেন না রোহিত শর্মারা।

আগামী জুনে এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেই সময়ে ইংল্যান্ডের মাঠে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেমুখোমুখি হবে ভারত-নিউজিল্যান্ড। এরপর জো রুটের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ডদলের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারত।

এমন ব্যস্ত সূচির কারণেই এশিয়া কাপে অংশ নিতে পারবে না ভারতীয় জাতীয় দল। তাই বাধ্য হয়েই সেই সময়ে এশিয়া কাপের জন্য দ্বিতীয় সারির দল পাঠানোর চিন্তা ভাবনা করছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। ভারতের জনপ্রিয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়ায় এমন আভাস দেয়া হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা বলেছেন, আমরা সেই সময়ে ইংল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতিতে ঝুঁকি নিতে চাই না। তাছাড়া ক্রিকেটারদের পক্ষেও একসঙ্গে দুইবার কোয়ারেন্টিনে থাকা সম্ভব নয়। যদি এশিয়া কাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তাহলে দ্বিতীয় সারির দল পাঠানো ছাড়া আমাদের আর কোনো অপশন নেই।

সর্বশেষ এশিয়া কাপ হয়েছিল ২০১৮ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এরপর ২০২০ সালে এশিয়া কাপ মাঠে গড়ার কথা থাকলেও করোনায় তা পিছিয়ে যায় ২০২১ সালে। এ বছর এশিয়া কাপ আয়োজনের কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়াবে কি না তা নিয়ে রয়েছে শঙ্কা।

তার কারণ এ বছর ব্যস্ত সূচি রয়েছে ভারতের। এপ্রিলে আইপিএল শুরু হয়ে শেষ হবে মে মাসে। এরপর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে কোহলিরা চলে যাবে ইংল্যান্ডে। ২২ জুন ফাইনাল ম্যাচ শেষ হলে আগস্টে শুরু হবে ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার টেস্ট সিরিজ।

কোহলিদের এমন ব্যস্ত সূচির কারণে এবছর এশিয়া কাপ না হলে আগামী বছর আইপিএলের পরে আয়োজন করা হতে পারে এশিয়ার এ জনপ্রিয় টুর্নামেন্টটি।

এশিয়া কাপে খেলতে পারবেন না কোহলিরা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৮ মার্চ ২০২১, ০৬:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিরাট কোহলির মতো ভারতীয় তারকা ক্রিকেটারদের এশিয়া কাপে খেলা অনিশ্চিত। এশিয়া কাপে ভারত অংশ নিলেও খেলতে পারবেন না রোহিত শর্মারা।

আগামী জুনে এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেই সময়ে ইংল্যান্ডের মাঠে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত-নিউজিল্যান্ড। এরপর জো রুটের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারত।

এমন ব্যস্ত সূচির কারণেই এশিয়া কাপে অংশ নিতে পারবে না ভারতীয় জাতীয় দল। তাই বাধ্য হয়েই সেই সময়ে এশিয়া কাপের জন্য দ্বিতীয় সারির দল পাঠানোর চিন্তা ভাবনা করছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। ভারতের জনপ্রিয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়ায় এমন আভাস দেয়া হয়েছে। 

ওই প্রতিবেদনে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা বলেছেন, আমরা সেই সময়ে ইংল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতিতে ঝুঁকি নিতে চাই না। তাছাড়া ক্রিকেটারদের পক্ষেও একসঙ্গে দুইবার কোয়ারেন্টিনে থাকা সম্ভব নয়। যদি এশিয়া কাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তাহলে দ্বিতীয় সারির দল পাঠানো ছাড়া আমাদের আর কোনো অপশন নেই।

সর্বশেষ এশিয়া কাপ হয়েছিল ২০১৮ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এরপর ২০২০ সালে এশিয়া কাপ মাঠে গড়ার কথা থাকলেও করোনায় তা পিছিয়ে যায় ২০২১ সালে। এ বছর এশিয়া কাপ আয়োজনের কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়াবে কি না তা নিয়ে রয়েছে শঙ্কা। 

তার কারণ এ বছর ব্যস্ত সূচি রয়েছে ভারতের। এপ্রিলে আইপিএল শুরু হয়ে শেষ হবে মে মাসে। এরপর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে কোহলিরা চলে যাবে ইংল্যান্ডে। ২২ জুন ফাইনাল ম্যাচ শেষ হলে আগস্টে শুরু হবে ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার টেস্ট সিরিজ।

কোহলিদের এমন ব্যস্ত সূচির কারণে এবছর এশিয়া কাপ না হলে আগামী বছর আইপিএলের পরে আয়োজন করা হতে পারে এশিয়ার এ জনপ্রিয় টুর্নামেন্টটি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন