লজ্জাজনক পরাজয়ের পর যা বললেন অধিনায়ক লিটন দাস
jugantor
লজ্জাজনক পরাজয়ের পর যা বললেন অধিনায়ক লিটন দাস

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০১ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৫৯:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

লজ্জাজনক পরাজয়ে টি-টোয়েন্টিতেও হোয়াইটওয়াশ হলো বাংলাদেশ। আজ একাদশে ছিলেন না দলের সিনিয়র কয়েকজন খেলোয়াড়।

ঊড়ুর মাংসপেশিতে আঘাত পেয়ে শেষ ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছেন নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যে কারণে নেতৃত্বের ভার পড়ে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন দাসের কাঁধে।

আর লিটনের নেতৃত্বেই দলের ভরাডুবি দেখল টাইগার সমর্থকরা।

এমন বিবর্ণ ও মলিন পারফরম্যান্সের পর অধিনায়ক লিটন জানালেন, নিউজিল্যান্ডে এখনো শিখছে তার দল।

নিউজিল্যান্ডের ওপেনার অ্যালেন ফিন একাই করেছেন ৭১ রান। আর বাংলাদেশ পুরো দল মিলে করেছে ৭৬ রান।

এমন পারফরম্যান্সের জন্য ব্যাটিং ও ফিল্ডিংকেই দোষারোপ করছেন লিটন।

ম্যাচ শেষে বলেন, ‘ব্যাটিং ও ফিল্ডিংয়ে আমরা ভালো করতে পারছি না। এটার মাশুলই গুনতে হয়েছে। আসলে উপমহাদেশের উইকেটে খেলে আমরা অভ্যস্ত। কিন্তু একইসঙ্গে এটাও জানতে হবে বাউন্সি উইকেটে কীভাবে খেলতে হয়। আমরা শিখছি। শিখছি এখানকার উইকেট ও কন্ডিশনে কীভাবে খেলতে হয়। আশা করি পরেরবার ভালো করব।’

অকল্যান্ডে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ফিন ও গাপটিল ঝড়ে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

জবাবে ৯.৩ ওভারে ৭৬ রানেই অলআউট হয় বাংলাদেশ। অর্থাৎ ৬৫ রানে জিতে ৩-০তে সিরিজ নিশ্চিত করল স্বাগতিকরা।

ফলে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে ডবল হোয়াইটওয়াশ হলো বাংলাদেশ।

লজ্জাজনক পরাজয়ের পর যা বললেন অধিনায়ক লিটন দাস

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০১ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লজ্জাজনক পরাজয়ে টি-টোয়েন্টিতেও হোয়াইটওয়াশ হলো বাংলাদেশ। আজ একাদশে ছিলেন না দলের সিনিয়র কয়েকজন খেলোয়াড়।

ঊড়ুর মাংসপেশিতে আঘাত পেয়ে শেষ ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছেন নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।  যে কারণে নেতৃত্বের ভার পড়ে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন দাসের কাঁধে।

আর লিটনের নেতৃত্বেই দলের ভরাডুবি দেখল টাইগার সমর্থকরা।

এমন বিবর্ণ ও মলিন পারফরম্যান্সের পর অধিনায়ক লিটন জানালেন, নিউজিল্যান্ডে এখনো শিখছে তার দল।

নিউজিল্যান্ডের ওপেনার অ্যালেন ফিন একাই করেছেন ৭১ রান। আর বাংলাদেশ পুরো দল মিলে করেছে ৭৬ রান।

এমন পারফরম্যান্সের জন্য ব্যাটিং ও ফিল্ডিংকেই দোষারোপ করছেন লিটন। 

ম্যাচ শেষে বলেন, ‘ব্যাটিং ও ফিল্ডিংয়ে আমরা ভালো করতে পারছি না। এটার মাশুলই গুনতে হয়েছে।  আসলে উপমহাদেশের উইকেটে খেলে আমরা অভ্যস্ত। কিন্তু একইসঙ্গে এটাও জানতে হবে বাউন্সি উইকেটে কীভাবে খেলতে হয়। আমরা শিখছি। শিখছি এখানকার উইকেট ও কন্ডিশনে কীভাবে খেলতে হয়। আশা করি পরেরবার ভালো করব।’

অকল্যান্ডে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ফিন ও গাপটিল ঝড়ে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

জবাবে ৯.৩ ওভারে ৭৬ রানেই অলআউট হয় বাংলাদেশ। অর্থাৎ ৬৫ রানে জিতে ৩-০তে সিরিজ নিশ্চিত করল স্বাগতিকরা।

ফলে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে ডবল হোয়াইটওয়াশ হলো বাংলাদেশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ ২০২১