তামিমের দায়িত্ব ‘১০০’ আর লিটনের ‘১০’, মানেন না সুজন
jugantor
তামিমের দায়িত্ব ‘১০০’ আর লিটনের ‘১০’, মানেন না সুজন

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৪৬:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে খেলার সম্ভাবনা নেই পঞ্চপাণ্ডবের একজন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। আইপিএলের কারণে সিরিজে নেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অনুপস্থিত ছিলেন পঞ্চপাণ্ডবের অন্যতম উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

অর্থাৎ শ্রীলংকা টেস্টে বাংলাদেশ দলের জ্যেষ্ঠ খেলোয়াড়দের নৈপুণ্য দেখা থেকে বঞ্চিত হবেন নিযুত ক্রিকেটভক্ত।

এই সফরে অধিনায়ক মুমিনুল ও ওপেনার তামিম ইকবালের ওপর চাপটা বেশিই থাকবে।

এমনটিই জানাচ্ছেন দেশের ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। যদিও বিশ্লেষকদের এমন বক্তব্য মানতে নারাজ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান বোর্ড পরিচালকদের অন্যতম খালেদ মাহমুদ সুজন।

এ ক্ষেত্রে সুজনের প্রশ্ন— সিনিয়রদেরই বা কেন সবসময় বাড়তি চাপ নিতে হবে? দলের জয়ে সিনিয়র-জুনিয়রের সমান অবদান থাকা উচিত বলে মনে করেন তিনি।

সুজনের মতে, তামিম-মুশফিকদের পাশাপাশি লিটন-সৌম্যদেরও দায়িত্ব নেওয়া উচিত।

বুধবার সাংবাদিকদের সুজন বলেন, ‘জুনিয়ররা যে দায়িত্ব নিতে পারছে না ব্যাপারটি তেমন নয়। তারাও অনেক ম্যাচ ভালো খেলেছে, ম্যাচ জিতিয়েছে। কিন্তু আমি মনে করি দলে সিনিয়র-জুনিয়র সবাকেই দায়িত্ব নিতে হবে। এটা কোনো সিনিয়র-জুনিয়রের খেলা না। আপনি যখন জাতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করবেন, তখন সিনিয়র-জুনিয়র— সবারই সমান দায়িত্ব থাকে। এর মানে এই না যে, তামিমের দায়িত্ব থাকবে ‘১০০’ আর লিটনের দায়িত্ব ‘১০’। আমি মনে করি তামিম, লিটন দুজনেরই দায়িত্ব ‘১০০’। এখানে তুলনা করা বোকামো। একার পারফরম্যান্সে ম্যাচ জেতানোর ভাবনাটি দূরে ঠেলতে হবে। আমাদের ১১ জনকেই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়তে হবে।’

তামিমের দায়িত্ব ‘১০০’ আর লিটনের ‘১০’, মানেন না সুজন

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৮ এপ্রিল ২০২১, ০২:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে খেলার সম্ভাবনা নেই পঞ্চপাণ্ডবের একজন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের।  আইপিএলের কারণে সিরিজে নেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।  

ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অনুপস্থিত ছিলেন পঞ্চপাণ্ডবের অন্যতম উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

অর্থাৎ শ্রীলংকা টেস্টে বাংলাদেশ দলের জ্যেষ্ঠ খেলোয়াড়দের নৈপুণ্য দেখা থেকে বঞ্চিত হবেন নিযুত ক্রিকেটভক্ত। 

এই সফরে অধিনায়ক মুমিনুল ও ওপেনার তামিম ইকবালের ওপর চাপটা বেশিই থাকবে। 

এমনটিই জানাচ্ছেন দেশের ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। যদিও বিশ্লেষকদের এমন বক্তব্য মানতে নারাজ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান বোর্ড পরিচালকদের অন্যতম খালেদ মাহমুদ সুজন।

এ ক্ষেত্রে সুজনের প্রশ্ন— সিনিয়রদেরই বা কেন সবসময় বাড়তি চাপ নিতে হবে? দলের জয়ে সিনিয়র-জুনিয়রের সমান অবদান থাকা উচিত বলে মনে করেন তিনি।

সুজনের মতে, তামিম-মুশফিকদের পাশাপাশি লিটন-সৌম্যদেরও দায়িত্ব নেওয়া উচিত।

বুধবার সাংবাদিকদের সুজন বলেন, ‘জুনিয়ররা যে দায়িত্ব নিতে পারছে না ব্যাপারটি তেমন নয়। তারাও অনেক ম্যাচ ভালো খেলেছে, ম্যাচ জিতিয়েছে।  কিন্তু আমি মনে করি দলে সিনিয়র-জুনিয়র সবাকেই দায়িত্ব নিতে হবে। এটা কোনো সিনিয়র-জুনিয়রের খেলা না। আপনি যখন জাতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করবেন, তখন সিনিয়র-জুনিয়র— সবারই সমান দায়িত্ব থাকে। এর মানে এই না যে, তামিমের দায়িত্ব থাকবে ‘১০০’ আর লিটনের দায়িত্ব ‘১০’। আমি মনে করি তামিম, লিটন দুজনেরই দায়িত্ব ‘১০০’। এখানে তুলনা করা বোকামো। একার পারফরম্যান্সে ম্যাচ জেতানোর ভাবনাটি দূরে ঠেলতে হবে। আমাদের ১১ জনকেই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়তে হবে।’
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন