ডাগআউটের ফ্রিজ ভাঙলেন বেয়ারস্টো, সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় (ভিডিও)
jugantor
ডাগআউটের ফ্রিজ ভাঙলেন বেয়ারস্টো, সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় (ভিডিও)

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৮ এপ্রিল ২০২১, ১৫:১১:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলের ১৪তম আসরে এখনো জয়ের মুখ দেখেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

শনিবার মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে ৫ উইকেটে ১৫০ রানে বেঁধে ফেলেও টানা তৃতীয় হার এড়াতে পারল না ডেভিড ওয়ার্নারের দল।

চেন্নাইয়ের মন্থর উইকেটে বুমরাহ, রাহুল চাহার ও বোল্টের আগুনঝরা বোলিংয়ে ১৩৭ রানে অলআউট হয়ে ১৩ রানে হেরেছে হায়দরাবাদ।

হায়দরাবাদের পক্ষে ম্যাচে সর্বোচ্চ রান এসেছে ইংলিশ তারকা জনি বেয়ারস্টোর ব্যাট থেকে। ফিফটিবিহীন ম্যাচে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন এই হায়দরাবাদের ওপেনার।

ম্যাচ হারলে একটি ঘটনায় আলোচনার শীর্ষে রয়েছে বেয়ারস্টো। সেটি হচ্ছে— এক ছক্কা হাঁকিয়ে নিজে দলের ফ্রিজের কাঁচ ভেঙে ফেললেন তিনি। ফ্রিজটিই এখন বেকার বস্তুতে পরিণত, যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মজার মজার টুইটে সয়লাব।

মুম্বাইয়ের ছুড়ে দেওয়া ১৫১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা ভালোই করেন বেয়ারস্টো। তৃতীয় ওভারে চড়াও হন মুম্বাইয়ের কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্টের ওপর। প্রথম দুই বলে চার হাঁকিয়ে তৃতীয় বলে হাঁকান ছক্কা।

বেয়ারস্টোর সেই ছক্কা মিডঅফের ওপর দিয়ে গিয়ে আঘাত করে ডাগআউটে রাখা সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ফ্রিজে। ফ্রিজের ভেতর রাখা ছিল পানীয়। বলের আঘাতে মুহূর্তেই চুরমার হয়ে যায় ফ্রিজের কাঁচের দরজা।

বেয়ারস্টো আউটের পর ১৩ রানে হেরে যায় হায়দরাবাদ।

তবে সেই হারকে ছাপিয়ে টুইটারে আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে বেয়ারস্টোর ফ্রিজ ‘ভাঙচুরের’ বিষয়টি।

ফ্রিজ ভাঙার পর অষ্টম ওভারে ক্রুনাল পান্ডিয়ার বল খেলতে গিয়ে ব্যাট দিয়ে স্টাম্পও ভেঙে ফেলেন বেয়ারস্টো।

বিষয়টি সামনে এনে টুইটারে অনেকেই লিখেছেন— ফ্রিজ ভেঙেই খুশি হননি বেয়ারস্টো, তাই নিজের স্টাম্পও ভেঙেছেন।

একজন লিখেছেন— ভাঙচুর করতেই আজ নেমেছিলেন বেয়ারস্টো। তার ব্যাট থেকে বল, স্টাম্প, ফ্রিজ কিছুই রেহাই পায়নি।

একজন রসিকতা করেছেন, মাঠের বাইরে ডাগআউটে ফ্রিজ রাখা পছন্দ করেন না জনি বেয়ারস্টো।

বল, ফ্রিজ ও স্টাম্পের পর আর কিছু ভাঙার ইচ্ছা ছিল কি বেয়ারস্টোর? এমন প্রশ্নও তুলেছেন অনেকেই।

ডাগআউটের ফ্রিজ ভাঙলেন বেয়ারস্টো, সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় (ভিডিও)

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৩:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আইপিএলের ১৪তম আসরে এখনো জয়ের মুখ দেখেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। 

শনিবার মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে ৫ উইকেটে ১৫০ রানে বেঁধে ফেলেও টানা তৃতীয় হার এড়াতে পারল না ডেভিড ওয়ার্নারের দল। 

চেন্নাইয়ের মন্থর উইকেটে বুমরাহ, রাহুল চাহার ও বোল্টের আগুনঝরা বোলিংয়ে ১৩৭ রানে অলআউট হয়ে ১৩ রানে হেরেছে হায়দরাবাদ। 

হায়দরাবাদের পক্ষে ম্যাচে সর্বোচ্চ রান এসেছে ইংলিশ তারকা জনি বেয়ারস্টোর ব্যাট থেকে। ফিফটিবিহীন ম্যাচে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন এই হায়দরাবাদের ওপেনার। 

ম্যাচ হারলে একটি ঘটনায় আলোচনার শীর্ষে রয়েছে বেয়ারস্টো। সেটি হচ্ছে— এক ছক্কা হাঁকিয়ে নিজে দলের ফ্রিজের কাঁচ ভেঙে ফেললেন তিনি। ফ্রিজটিই এখন বেকার বস্তুতে পরিণত, যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মজার মজার টুইটে সয়লাব।

মুম্বাইয়ের ছুড়ে দেওয়া ১৫১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা ভালোই করেন বেয়ারস্টো। তৃতীয় ওভারে চড়াও হন মুম্বাইয়ের কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্টের ওপর।  প্রথম দুই বলে চার হাঁকিয়ে তৃতীয় বলে হাঁকান ছক্কা।

বেয়ারস্টোর সেই ছক্কা মিডঅফের ওপর দিয়ে গিয়ে আঘাত করে ডাগআউটে রাখা সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ফ্রিজে।  ফ্রিজের ভেতর রাখা ছিল পানীয়। বলের আঘাতে মুহূর্তেই চুরমার হয়ে যায় ফ্রিজের কাঁচের দরজা।

বেয়ারস্টো আউটের পর ১৩ রানে হেরে যায় হায়দরাবাদ।

 

তবে সেই হারকে ছাপিয়ে টুইটারে আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে বেয়ারস্টোর ফ্রিজ ‘ভাঙচুরের’ বিষয়টি। 

ফ্রিজ ভাঙার পর অষ্টম ওভারে ক্রুনাল পান্ডিয়ার বল খেলতে গিয়ে ব্যাট দিয়ে স্টাম্পও ভেঙে ফেলেন বেয়ারস্টো।

বিষয়টি সামনে এনে টুইটারে অনেকেই লিখেছেন— ফ্রিজ ভেঙেই খুশি হননি বেয়ারস্টো, তাই নিজের স্টাম্পও ভেঙেছেন।

একজন লিখেছেন— ভাঙচুর করতেই আজ নেমেছিলেন বেয়ারস্টো। তার ব্যাট থেকে বল, স্টাম্প, ফ্রিজ কিছুই রেহাই পায়নি।

একজন রসিকতা করেছেন, মাঠের বাইরে ডাগআউটে ফ্রিজ রাখা পছন্দ করেন না জনি বেয়ারস্টো। 

বল, ফ্রিজ ও স্টাম্পের পর আর কিছু ভাঙার ইচ্ছা ছিল কি বেয়ারস্টোর? এমন প্রশ্নও তুলেছেন অনেকেই।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন