নার্ভাস নাইনটিতে সেঞ্চুরি মিস তামিমের
jugantor
নার্ভাস নাইনটিতে সেঞ্চুরি মিস তামিমের

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২১ এপ্রিল ২০২১, ১৫:০০:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্দান্ত ব্যাট করছিলেন তামিম ইকবাল। হাফসেঞ্চুরির পর ইনিংসটাকে শতকের দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন। খেলছিলেন লম্বা শট। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো ড্যাশিং এই ওপেনারের।

ক্যান্ডিতে আজ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নাভার্স নাইনটিতে আউট হয়ে গেলেন তামিম। বিশ্ব ফার্নান্ডোর বলে লাহিরু থিরিমান্নের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তামিম।

১০১ বলে ১৫ বাউন্ডারিতে তামিম বিদায় নিলেন ৯০ রান নিয়ে। সেঞ্চুরি মিস করলেও টেস্টে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা নিজের করে নিয়েছেন তামিম। সতীর্ত মুশফিকুর রহীমকে পেছনে ফেলে এদিন অনন্য রেকর্ড গড়েন এই ওপেনার।

আর হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনিও সেঞ্চুরির পথে ছুটছেন। ইতোমধ্যে ৭১ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে ফেলেছেন। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিচ্ছেন অধিনায়ক মুমিনুল, ব্যাট করছেন ১৬ রানে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর ১৮৮ দুই উইকেটে। ৫০ ওভারের খেলা চলছে।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ওভারের প্রথম বলে ফার্নান্দোর বলে এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে ফেরেন ওপেনার সাইফ। অবশ্য ফার্নান্দোর এলবির আবেদনে প্রথমে সাড়া দেননি আম্পায়ার। এরপর অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে রিভিউ নেন। ফার্নান্দোর লেংথ বল সোজা সাইফের সামনের প্যাডে আঘাত করেছিল। দেখার ছিল, বলটি লেগ স্টাম্পে লাগবে না কি বেরিয়ে যাবে। রিভিউতে দেখা যায় বলটি সোজা স্টাম্পেই হিট করত। দলীয় ৮ রানে প্রথম উইকেটের পতন হয় বাংলাদেশের।

তবে শুরুতে উইকেট হারানোর ধাক্কা ভালোভাবে সামাল দেন তামিম। তার ইনিংস ১৫ চারে সাজানো।

ম্যাচটিতে ছয় ব্যাটসম্যান ও পাঁচ বিশেষজ্ঞ বোলার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে বাংলাদেশ। তিন পেসারের সঙ্গে আছেন দুই স্পিনার তাইজুল ইসলাম ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার একাদশে ফিরেছেন সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ইনজুরির কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলতে পারেননি তিনি। স্বাগতিকদের একাদশে জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ দিনেশ চান্দিমালের। দুই তরুণ ওশাদা ফার্নান্দো ও পাথুম নিশানকাকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। একাদশে তাদের বিশেষজ্ঞ পেসার তিনজন। সঙ্গে স্পিনিং অলরাউন্ডার হিসেবে আছেন ভানিন্দু হাসারাঙ্গা।

ক্রিকেটে বর্তমান সময়টা মোটেই ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশের। সাদা পোশাকে অবস্থা আরও মলিন। তবুও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভালো করতে আশাবাদী বাংলাদেশ। এখন পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। জিতেছে মাত্র একটিতে। হেরেছে ১৬টিতে। তবে শেষ পাঁচ ম্যাচের একটি জয়ের সঙ্গে দুটিতে ড্রও করেছে। শ্রীলঙ্কার মাটিতে টাইগারদের জয়টি এসেছিল ২০১৭ সালে। যা ছিল বাংলাদেশের শততম টেস্ট

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অধীনে প্রথম পয়েন্টের খোঁজে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ রাহী ও ইবাদত হোসেন চৌধুরী।

শ্রীলঙ্কা একাদশ: দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), লাহিরু থিরিমান্নে, ওশাদা ফার্নান্ডো, পাথুম নিসানকা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকভেলা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, সুরাঙ্গা লাকমাল, লাহিরু কুমারা ও বিশ্ব ফার্নান্ডো।

নার্ভাস নাইনটিতে সেঞ্চুরি মিস তামিমের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্দান্ত ব্যাট করছিলেন তামিম ইকবাল। হাফসেঞ্চুরির পর ইনিংসটাকে শতকের দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন। খেলছিলেন লম্বা শট। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো ড্যাশিং এই ওপেনারের।

ক্যান্ডিতে আজ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নাভার্স নাইনটিতে আউট হয়ে গেলেন তামিম। বিশ্ব ফার্নান্ডোর বলে লাহিরু থিরিমান্নের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তামিম।

১০১ বলে ১৫ বাউন্ডারিতে তামিম বিদায় নিলেন ৯০ রান নিয়ে। সেঞ্চুরি মিস করলেও টেস্টে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা নিজের করে নিয়েছেন তামিম। সতীর্ত মুশফিকুর রহীমকে পেছনে ফেলে এদিন অনন্য রেকর্ড গড়েন এই ওপেনার। 

আর হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনিও সেঞ্চুরির পথে ছুটছেন। ইতোমধ্যে ৭১ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে ফেলেছেন। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিচ্ছেন অধিনায়ক মুমিনুল, ব্যাট করছেন ১৬ রানে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর ১৮৮ দুই উইকেটে। ৫০ ওভারের খেলা চলছে। 

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ওভারের প্রথম বলে ফার্নান্দোর বলে এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে ফেরেন ওপেনার সাইফ। অবশ্য ফার্নান্দোর এলবির আবেদনে প্রথমে সাড়া দেননি আম্পায়ার। এরপর  অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে রিভিউ নেন। ফার্নান্দোর লেংথ বল সোজা সাইফের সামনের প্যাডে আঘাত করেছিল। দেখার ছিল, বলটি লেগ স্টাম্পে লাগবে না কি বেরিয়ে যাবে। রিভিউতে দেখা যায় বলটি সোজা স্টাম্পেই হিট করত। দলীয় ৮ রানে প্রথম উইকেটের পতন হয় বাংলাদেশের।

তবে শুরুতে উইকেট হারানোর ধাক্কা ভালোভাবে সামাল দেন তামিম। তার ইনিংস ১৫ চারে সাজানো।

ম্যাচটিতে ছয় ব্যাটসম্যান ও পাঁচ বিশেষজ্ঞ বোলার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে বাংলাদেশ। তিন পেসারের সঙ্গে আছেন দুই স্পিনার তাইজুল ইসলাম ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার একাদশে ফিরেছেন সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ইনজুরির কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলতে পারেননি তিনি।  স্বাগতিকদের একাদশে জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ দিনেশ চান্দিমালের। দুই তরুণ ওশাদা ফার্নান্দো ও পাথুম নিশানকাকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। একাদশে তাদের বিশেষজ্ঞ পেসার তিনজন। সঙ্গে স্পিনিং অলরাউন্ডার হিসেবে আছেন ভানিন্দু হাসারাঙ্গা।

ক্রিকেটে বর্তমান সময়টা মোটেই ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশের। সাদা পোশাকে অবস্থা আরও মলিন। তবুও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভালো করতে আশাবাদী বাংলাদেশ। এখন পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। জিতেছে মাত্র একটিতে। হেরেছে ১৬টিতে। তবে শেষ পাঁচ ম্যাচের একটি জয়ের সঙ্গে দুটিতে ড্রও করেছে। শ্রীলঙ্কার মাটিতে টাইগারদের জয়টি এসেছিল ২০১৭ সালে। যা ছিল বাংলাদেশের শততম টেস্ট

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অধীনে প্রথম পয়েন্টের খোঁজে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ রাহী ও ইবাদত হোসেন চৌধুরী।

শ্রীলঙ্কা একাদশ: দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), লাহিরু থিরিমান্নে, ওশাদা ফার্নান্ডো, পাথুম নিসানকা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকভেলা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, সুরাঙ্গা লাকমাল, লাহিরু কুমারা ও বিশ্ব ফার্নান্ডো।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : শ্রীলংকায় বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজ ২০২১