৩৬-এ টেস্টে অভিষিক্ত পাক পেসার উইকেট তুলে নিলেন প্রথম ওভারেই
jugantor
৩৬-এ টেস্টে অভিষিক্ত পাক পেসার উইকেট তুলে নিলেন প্রথম ওভারেই

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৯ মে ২০২১, ১৩:০২:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

৩৬ বছর বয়সে যেখানে ক্রিকেটাররা অবসরে চলে যান, সেখানে পাকিস্তান টেস্ট দলে অভিষেক ঘটল এক পেসারের। তার নাম তাবিশ খান।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টেস্ট ক্যাপ পেলেন এই পেসার। আর হারারে টেস্টে অভিষিক্ত এ পেসার নিজের প্রথম ওভারেই পেয়ে গেলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে উইকেটের স্বাদ! সেই ওভারটি মেডেন নেন তিনি।

মেডেন-উইকেট ওভার দিয়ে টেস্ট তথা আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু হলো তাবিশের। দুর্দান্ত এক অভিষেকই বটে।

পাকিস্তান নিজেদের প্রথম ইনিংসে আজহার আলির সেঞ্চুরি ও আবিদ আলির ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে ৮ উইকেটে ৫১০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে।

দ্বিতীয় দিনের শেষ বেলায় জিম্বাবুয়ে ব্যাট করতে নামলে শাহিন আফ্রিদির সঙ্গে নতুন বলে জুটি বেঁধে বল করেন তাবিশ খান। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে জিম্বাবুয়ের ওপেনার তারিসাই মুসাকান্দাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তাবিশ।

পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটের দুর্দান্ত পারফরমার তাবিশ খান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৫৯৮ উইকেট শিকার করেছেন। অর্থাৎ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের ম্যাচেই ৬০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলতে পারেন এই পেসার।

জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় দিনের শেষে ৩০ ওভার ব্যাট করে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ৫২ রান তুলেছে। তাবিশ ছাড়াও ১টি করে উইকেট পেয়েছেন শাহিন আফ্রিদি, হাসান আলি ও সাজিদ খান।

৩৬-এ টেস্টে অভিষিক্ত পাক পেসার উইকেট তুলে নিলেন প্রথম ওভারেই

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৯ মে ২০২১, ০১:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

৩৬ বছর বয়সে যেখানে ক্রিকেটাররা অবসরে চলে যান, সেখানে পাকিস্তান টেস্ট দলে অভিষেক ঘটল এক পেসারের। তার নাম তাবিশ খান।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টেস্ট ক্যাপ পেলেন এই পেসার। আর হারারে টেস্টে অভিষিক্ত এ পেসার নিজের প্রথম ওভারেই পেয়ে গেলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে উইকেটের স্বাদ! সেই ওভারটি মেডেন নেন তিনি।

মেডেন-উইকেট ওভার দিয়ে টেস্ট তথা আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু হলো তাবিশের।  দুর্দান্ত এক অভিষেকই বটে। 

পাকিস্তান নিজেদের প্রথম ইনিংসে আজহার আলির সেঞ্চুরি ও আবিদ আলির ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে ৮ উইকেটে ৫১০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে। 

দ্বিতীয় দিনের শেষ বেলায় জিম্বাবুয়ে ব্যাট করতে নামলে শাহিন আফ্রিদির সঙ্গে নতুন বলে জুটি বেঁধে বল করেন তাবিশ খান। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে জিম্বাবুয়ের ওপেনার তারিসাই মুসাকান্দাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তাবিশ।

পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটের দুর্দান্ত পারফরমার তাবিশ খান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৫৯৮ উইকেট শিকার করেছেন। অর্থাৎ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের ম্যাচেই ৬০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলতে পারেন এই পেসার।

জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় দিনের শেষে ৩০ ওভার ব্যাট করে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ৫২ রান তুলেছে। তাবিশ ছাড়াও ১টি করে উইকেট পেয়েছেন শাহিন আফ্রিদি, হাসান আলি ও সাজিদ খান।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন