পাকিস্তান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চায় ১০০ ক্রিকেটার!
jugantor
পাকিস্তান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চায় ১০০ ক্রিকেটার!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১০ মে ২০২১, ০২:০৬:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

গত বছর ক্রিকেটে ক্যারিয়ার গড়তে পাকিস্তান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান দেশটির ঘরোয়া লিগের দুর্দান্ত পারফরমার সামি আসলাম। যা ছিল সে সময়ের আলোচিত ঘটনা।

এক বছর পর পাকিস্তান ক্রিকেটকে এক সতর্কবার্তা দিলেন সামি। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান জানালেন, তার মতোআরও ১০০ জনের বেশি পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমানোর অপেক্ষায় আছেন! ইতোমধ্যে সেসব ক্রিকেটার তার সঙ্গে যোগাযোগও করেছেন।

পাকিস্তানের একটি ক্রিকেট ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমন দাবি-ই করলেন দেশটির জাতীয় দলের সামি আসলাম।

তিনি বলেন, আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে না থাকা অনেক ক্রিকেটার এখন যুক্তরাষ্ট্রে চলে আসতে চায়। একশর বেশি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারের ফোন পেয়েছি আমি। তারা সবাই আমার খোঁজখবর নিচ্ছে।কীভাবে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া যাবে সে বিষয়ে আমাকে জিজ্ঞেস করছে নিয়মিত। ওই তালিকায় পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটের সেরা পারফরমাররাও আছেন।

সামি আরও বলেন, ক্রিকেটে শক্তিশালী হতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র। অস্ট্রেলীয় ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ক্রিকেটার আনতে যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট। এই সুযোগে পাকিস্তানের অনেক ক্রিকেটার এখানে আসতে চেষ্টা করে যাচ্ছে। কয়েকজন চুক্তি স্বাক্ষর করার কাছাকাছি পর্যায়ে আছে।

ঘরোয়া লিগে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেও জাতীয় দলে ডাক না পাওয়ায় হতাশ হয়ে গত বছর যুক্তরাষ্ট্র চলে যান ২৫ বছর বয়সী এই ওপেনার।

সে সময় পাকিস্তানের কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে সাউদার্ন পাঞ্জাবের নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি চার সেঞ্চুরি আর ৭৮ গড়ে ৮৬৪ রান করে টুর্নামেন্টে চতুর্থ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন।

আর সেই মৌসুমেই তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয় দলটির হেড কোচ আবদুল রেহমান।

এর পরও জাতীয় দলে ফেরার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন সামি। কিন্তু এরপর নিউজিল্যান্ড সফরে ৩৫ জনের দলেও জায়গা না পেয়ে তার সেই স্বপ্ন ভেঙে যায়।

দলের ওপেনিংয়ে আবিদ আলি আর শান মাসুদের জায়গা হলেও ব্যাকআপ অপশন হিসেবেও বেছে নেয়া হয়নি তাকে।

এতে রাগে-ক্ষোভে ও হতাশ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান সামি আসলাম।

প্রসঙ্গত জাতীয় দলের খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে সামি আসলামের। ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে পাকিস্তানের সাদা জার্সিতে ১৩টি টেস্ট খেলেছেন তিনি। খেলেছেন ৪টি ওয়ানডেও। টেস্টে ৩১-এর ওপর গড় তাকে বলতে গেলে প্রথম পছন্দের ওপেনারই বানিয়ে দিচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎই ছিটকে পড়েন।

পাকিস্তান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চায় ১০০ ক্রিকেটার!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১০ মে ২০২১, ০২:০৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গত বছর ক্রিকেটে ক্যারিয়ার গড়তে পাকিস্তান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান দেশটির ঘরোয়া লিগের দুর্দান্ত পারফরমার সামি আসলাম। যা ছিল সে সময়ের আলোচিত ঘটনা।

এক বছর পর পাকিস্তান ক্রিকেটকে এক সতর্কবার্তা দিলেন সামি। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান জানালেন, তার মতো আরও ১০০ জনের বেশি পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমানোর অপেক্ষায় আছেন! ইতোমধ্যে সেসব ক্রিকেটার তার সঙ্গে যোগাযোগও করেছেন।

পাকিস্তানের একটি ক্রিকেট ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমন দাবি-ই করলেন দেশটির জাতীয় দলের সামি আসলাম।

তিনি বলেন, আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে না থাকা অনেক ক্রিকেটার এখন যুক্তরাষ্ট্রে চলে আসতে চায়। একশর বেশি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারের ফোন পেয়েছি আমি। তারা সবাই আমার খোঁজখবর নিচ্ছে।কীভাবে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া যাবে সে বিষয়ে আমাকে জিজ্ঞেস করছে নিয়মিত। ওই তালিকায় পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটের সেরা পারফরমাররাও আছেন।

সামি আরও বলেন, ক্রিকেটে শক্তিশালী হতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র। অস্ট্রেলীয় ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ক্রিকেটার আনতে যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট। এই সুযোগে পাকিস্তানের অনেক ক্রিকেটার এখানে আসতে চেষ্টা করে যাচ্ছে। কয়েকজন চুক্তি স্বাক্ষর করার কাছাকাছি পর্যায়ে আছে।

ঘরোয়া লিগে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেও জাতীয় দলে ডাক না পাওয়ায় হতাশ হয়ে গত বছর যুক্তরাষ্ট্র চলে যান ২৫ বছর বয়সী এই ওপেনার।

সে সময় পাকিস্তানের কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে সাউদার্ন পাঞ্জাবের নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি চার সেঞ্চুরি আর ৭৮ গড়ে ৮৬৪ রান করে টুর্নামেন্টে চতুর্থ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন।

আর সেই মৌসুমেই তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয় দলটির হেড কোচ আবদুল রেহমান। 

এর পরও জাতীয় দলে ফেরার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন সামি। কিন্তু এরপর নিউজিল্যান্ড সফরে ৩৫ জনের দলেও জায়গা না পেয়ে তার সেই স্বপ্ন ভেঙে যায়।

দলের ওপেনিংয়ে আবিদ আলি আর শান মাসুদের জায়গা হলেও ব্যাকআপ অপশন হিসেবেও বেছে নেয়া হয়নি তাকে।

এতে রাগে-ক্ষোভে ও হতাশ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান সামি আসলাম।

প্রসঙ্গত জাতীয় দলের খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে সামি আসলামের। ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে পাকিস্তানের সাদা জার্সিতে ১৩টি টেস্ট খেলেছেন তিনি। খেলেছেন ৪টি ওয়ানডেও। টেস্টে ৩১-এর ওপর গড় তাকে বলতে গেলে প্রথম পছন্দের ওপেনারই বানিয়ে দিচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎই ছিটকে পড়েন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন