মাশরাফিকে ছুঁয়ে ওয়াসিম আকরামের পাশে সাকিব
jugantor
মাশরাফিকে ছুঁয়ে ওয়াসিম আকরামের পাশে সাকিব

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৬ মে ২০২১, ১৬:১৪:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

হোম সিরিজে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে দুই ম্যাচেই ব্যর্থ হয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তবে বহু দিন পরে ক্রিকেটে ফিরলেও বোলিংয়ে ছন্দ ঠিকই ধরে রেখেছেন।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৯ ওভার হাত ঘুরিয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। এর মধ্য দিয়ে তিনটি রেকর্ড গড়েছেন সাকিব।

একটি বাংলাদেশের রেকর্ড, দুটি বিশ্বরেকর্ড।

একটিতে তিনি স্পর্শ করলেন মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। আরেকটিতে পাকিস্তানের কিংবদন্তি অলরাউন্ডার ওয়াসিম আকরামকে। অন্যটিতে তিনি সবাইকে ছাড়িয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার খ্যাতি অক্ষুণ্ন রেখেছেন।

বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডে উইকেটের তালিকায় মাশরাফির সঙ্গে এখন যুগ্মভাবে শীর্ষে সাকিব। দেশের হয়ে দুজনের উইকেটই ২৬৯টি।

বিশ্বরেকর্ডটি এক মাঠে সর্বোচ্চ উইকেটের। শারজাহতে ১২২ উইকেট নিয়ে এতদিন এককভাবে শীর্ষে ছিলেন ওয়াসিম আকরাম। এখন সাকিবও সঙ্গী এই পাকিস্তানি কিংবদন্তির।

শারজাহতে আকরামের ১২২ উইকেট ৭৭ ম্যাচে। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে সাকিবের ১২২ উইকেট হলো ৮৪ ম্যাচে।

এক ভেন্যুতে উইকেটের সেঞ্চুরি ওয়ানডেতে আছে কেবল আর ওয়াকার ইউনুসের। শারজাহতেই ৬১ ম্যাচে ১১৪ উইকেট সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলারের।

এদিকে অলরাউন্ডারদের মধ্যে সাকিব আল হাসান যথারীতি শীর্ষস্থানে অবস্থান করছেন। আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে আজ দেখা গেছে এই চিত্র।

দেশের হয়ে মাশরাফির চেয়ে তিন উইকেট পেছনে থেকে এই সিরিজ শুরু করেন সাকিব। প্রথম ওয়ানডেতে নেন তিনি এক উইকেট। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে পাথুম নিসানকাকে এলবিডব্লিউ করে এগিয়ে যান এক ধাপ। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে এলবিডব্লিউ করে ছুঁয়ে ফেলেন মাশরাফিকে।

মাশরাফির মোট ওয়ানডে উইকেট অবশ্য ২৭০টি, ২০০৭ আফ্রো-এশিয়া কাপে একটি উইকেট আছে তার এশিয়া একাদশের হয়ে।

বাংলাদেশের হয়ে ২০০ উইকেট শিকারি প্রথম বোলার আব্দুর রাজ্জাক ২০৭ উইকেট নিয়ে আছেন তালিকার তিন নম্বরে। ১২৯ উইকেট নিয়ে চারে রুবেল হোসেন, পাঁচে মুস্তাফিজুর রহমান ১২৪ উইকেট নিয়ে।

বাঁহাতি স্পিনে সাকিবের চেয়ে বেশি উইকেট আছে ওয়ানডে ইতিহাসে কেবল দুই জনের, ড্যানিয়েল ভেটোরি (৩০৫) ও সনাৎ জয়াসুরিয়া (৩২৩)।

মাশরাফিকে ছুঁয়ে ওয়াসিম আকরামের পাশে সাকিব

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৬ মে ২০২১, ০৪:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হোম সিরিজে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে দুই ম্যাচেই ব্যর্থ হয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।  তবে বহু দিন পরে ক্রিকেটে ফিরলেও বোলিংয়ে ছন্দ ঠিকই ধরে রেখেছেন।   

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৯ ওভার হাত ঘুরিয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।  এর মধ্য দিয়ে তিনটি রেকর্ড গড়েছেন সাকিব।

একটি বাংলাদেশের রেকর্ড, দুটি বিশ্বরেকর্ড। 

একটিতে তিনি স্পর্শ করলেন মাশরাফি বিন মুর্তজাকে।  আরেকটিতে পাকিস্তানের কিংবদন্তি অলরাউন্ডার ওয়াসিম আকরামকে।  অন্যটিতে তিনি সবাইকে ছাড়িয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার খ্যাতি অক্ষুণ্ন রেখেছেন।

বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডে উইকেটের তালিকায় মাশরাফির সঙ্গে এখন যুগ্মভাবে শীর্ষে সাকিব।  দেশের হয়ে দুজনের উইকেটই ২৬৯টি।

বিশ্বরেকর্ডটি এক মাঠে সর্বোচ্চ উইকেটের।  শারজাহতে ১২২ উইকেট নিয়ে এতদিন এককভাবে শীর্ষে ছিলেন ওয়াসিম আকরাম।  এখন সাকিবও সঙ্গী এই পাকিস্তানি কিংবদন্তির।

শারজাহতে আকরামের ১২২ উইকেট ৭৭ ম্যাচে।  মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে সাকিবের ১২২ উইকেট হলো ৮৪ ম্যাচে।

এক ভেন্যুতে উইকেটের সেঞ্চুরি ওয়ানডেতে আছে কেবল আর ওয়াকার ইউনুসের।  শারজাহতেই ৬১ ম্যাচে ১১৪ উইকেট সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলারের।

এদিকে অলরাউন্ডারদের মধ্যে সাকিব আল হাসান যথারীতি শীর্ষস্থানে অবস্থান করছেন।  আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে আজ দেখা গেছে এই চিত্র। 

দেশের হয়ে মাশরাফির চেয়ে তিন উইকেট পেছনে থেকে এই সিরিজ শুরু করেন সাকিব।  প্রথম ওয়ানডেতে নেন তিনি এক উইকেট।  দ্বিতীয় ওয়ানডেতে পাথুম নিসানকাকে এলবিডব্লিউ করে এগিয়ে যান এক ধাপ। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে এলবিডব্লিউ করে ছুঁয়ে ফেলেন মাশরাফিকে।

মাশরাফির মোট ওয়ানডে উইকেট অবশ্য ২৭০টি, ২০০৭ আফ্রো-এশিয়া কাপে একটি উইকেট আছে তার এশিয়া একাদশের হয়ে।

বাংলাদেশের হয়ে ২০০ উইকেট শিকারি প্রথম বোলার আব্দুর রাজ্জাক ২০৭ উইকেট নিয়ে আছেন তালিকার তিন নম্বরে। ১২৯ উইকেট নিয়ে চারে রুবেল হোসেন, পাঁচে মুস্তাফিজুর রহমান ১২৪ উইকেট নিয়ে।

বাঁহাতি স্পিনে সাকিবের চেয়ে বেশি উইকেট আছে ওয়ানডে ইতিহাসে কেবল দুই জনের, ড্যানিয়েল ভেটোরি (৩০৫) ও সনাৎ জয়াসুরিয়া (৩২৩)।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ওয়ানডে সিরিজ, ঢাকা-২০২১