যে কারণে আমিরাতে আইপিএল আয়োজন করছে ভারত
jugantor
যে কারণে আমিরাতে আইপিএল আয়োজন করছে ভারত

  স্পোর্টস ডেস্ক  

৩০ মে ২০২১, ১০:৩৪:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার প্রকোপ চলায় ৩১ ম্যাচ বাকি থাকতে স্থগিত হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) বাকি খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

কয়েক দফা এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার পর এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।

বিসিসিআইয়ের শনিবারের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের মধ্যে আইপিএলের এবারের আসর শেষ করতে চায় কর্তৃপক্ষ।

অবশ্য স্থগিত হওয়া আইপিএল ভারতে হচ্ছে না, আগেই নিশ্চিত করেছিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। ভেন্যু ঠিক করা বাকি ছিল।

ভেন্যু হিসেবে আরব আমিরাতকে বেছে নেওয়ার পেছনে কয়েকটি কারণ রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, প্রধান কারণ করোনা। দ্বিতীয়টি হচ্ছে, বৃষ্টি। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারত যখন মৃত্যুপুরীতে পরিণত, তখন সংযুক্ত আরব আমিরাতে বেশ সুরক্ষিত। বলতে গেলে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ লাগেনি দেশটিতে এখনও। অর্থাৎ ভারতের মতো করোনা সংক্রমণ ছড়ায়নি মরুভূমির দেশটিতে। না ছড়ানোয় খেলোয়াড়সহ সংশ্লিষ্টরা নিজেদের সুরক্ষিত বোধ করবেন। খেলোয়াড়রা নির্ভয়ে খোলা মনে খেলতে পারবেন। স্থগিত হওয়ার আগে করোনার ভয়ে অস্ট্রেলিয়ার বেশ কয়েকজন তারকা আইপিএল ছেড়ে দেশে ফিরে যান। এমনকি ভারতীয় খেলায়াড়দেরও কয়েকজন পরিবারের পাশে থাকতে আইপিএল ছাড়েন। সে ঘটনাগুলো ভাবনায় রেখে করোনার কম প্রাদুর্ভাবময় আমিরাতে আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই।

দ্বিতীয়ত সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরের সময়টা ভারতে বৃষ্টির মৌসুম। অনেক ম্যাচ পণ্ড হতে পারে বৃষ্টির কারণে। তাই সে সময় আরব আমিরাতে এবার আইপিএলের অবশিষ্ট ৩১ ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় বোর্ড।

বিসিসিআই ওয়েবসাইটে শনিবার সচিব জয় শাহ স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এ বছরের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে ভারতে বর্ষা মৌসুমের কথা ভেবে ২০২১ আইপিএলের অবশিষ্ট ম্যাচগুলো আরব আমিরাতে আয়োজনের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করছে বিসিসিআই।’

তৃতীয় কারণ হিসেবে জানা গেছে, অভিজ্ঞতা। করোনার কারণে আইপিএলের গত মৌসুমের পুরোটাই আমিরাতে হয়েছে। যেখানে করোনার হানা পড়েনি। একই ভেন্যু, একই পরিবেশে টুর্নামেন্টটি আয়োজন করতে আগ্রহী বিসিসিআই।

আইপিএলের নির্দিষ্ট তারিখ চূড়ান্ত না হলেও তা সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে শুরু হতে পারে টুর্নামেন্টটি।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, ভারত-ইংল্যান্ডের সিরিজ এক সপ্তাহ এগিয়ে আনার অনুরোধও ইসিবিকে করেছিল বিসিসিআই। তবে পরে ইংলিশ বোর্ডের পক্ষ থেকে এমন অনুরোধ না পাওয়ার কথা নিশ্চিত করা হয়। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষ টেস্ট। এর পর অক্টোবরের মাঝামাঝিতে ভারতে শুরু হওয়ার কথা টি২০ বিশ্বকাপ। আইপিএল শেষ করতে এর মাঝের এক মাস সময়কেই কাজে লাগাতে চায় ভারত।

প্রসঙ্গত ভারতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ভয়াবহ রূপ নিলেও জৈব সুরক্ষাবলয়ে চলছিল আইপিএল। কিন্তু এই সুরক্ষাবলয়ও ঠেকাতে পারেনি টুর্নামেন্টের মাঝে করোনার হানা। কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজির বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফ আক্রান্ত হলে গত ৪ মে বন্ধ করে দেওয়া হয় আসর।

যে কারণে আমিরাতে আইপিএল আয়োজন করছে ভারত

 স্পোর্টস ডেস্ক 
৩০ মে ২০২১, ১০:৩৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার প্রকোপ চলায় ৩১ ম্যাচ বাকি থাকতে স্থগিত হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) বাকি খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।
 
কয়েক দফা এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার পর এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।

বিসিসিআইয়ের শনিবারের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের মধ্যে আইপিএলের এবারের আসর শেষ করতে চায় কর্তৃপক্ষ।

অবশ্য স্থগিত হওয়া আইপিএল ভারতে হচ্ছে না, আগেই নিশ্চিত করেছিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।  ভেন্যু ঠিক করা বাকি ছিল।  

ভেন্যু হিসেবে আরব আমিরাতকে বেছে নেওয়ার পেছনে কয়েকটি কারণ রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, প্রধান কারণ করোনা। দ্বিতীয়টি হচ্ছে, বৃষ্টি। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারত যখন মৃত্যুপুরীতে পরিণত, তখন সংযুক্ত আরব আমিরাতে বেশ সুরক্ষিত। বলতে গেলে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ লাগেনি দেশটিতে এখনও। অর্থাৎ ভারতের মতো করোনা সংক্রমণ ছড়ায়নি মরুভূমির দেশটিতে।  না ছড়ানোয় খেলোয়াড়সহ সংশ্লিষ্টরা নিজেদের সুরক্ষিত বোধ করবেন। খেলোয়াড়রা নির্ভয়ে খোলা মনে খেলতে পারবেন।  স্থগিত হওয়ার আগে করোনার ভয়ে অস্ট্রেলিয়ার বেশ কয়েকজন তারকা আইপিএল ছেড়ে দেশে ফিরে যান। এমনকি ভারতীয় খেলায়াড়দেরও কয়েকজন পরিবারের পাশে থাকতে আইপিএল ছাড়েন। সে ঘটনাগুলো ভাবনায় রেখে করোনার কম প্রাদুর্ভাবময় আমিরাতে আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই।

দ্বিতীয়ত সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরের সময়টা ভারতে বৃষ্টির মৌসুম। অনেক ম্যাচ পণ্ড হতে পারে বৃষ্টির কারণে। তাই সে সময় আরব আমিরাতে এবার আইপিএলের অবশিষ্ট ৩১ ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় বোর্ড।

বিসিসিআই ওয়েবসাইটে শনিবার সচিব জয় শাহ স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এ বছরের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে ভারতে বর্ষা মৌসুমের কথা ভেবে ২০২১ আইপিএলের অবশিষ্ট ম্যাচগুলো আরব আমিরাতে আয়োজনের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করছে বিসিসিআই।’

তৃতীয় কারণ হিসেবে জানা গেছে, অভিজ্ঞতা। করোনার কারণে আইপিএলের গত মৌসুমের পুরোটাই আমিরাতে হয়েছে। যেখানে করোনার হানা পড়েনি। একই ভেন্যু, একই পরিবেশে টুর্নামেন্টটি আয়োজন করতে আগ্রহী বিসিসিআই।

আইপিএলের নির্দিষ্ট তারিখ চূড়ান্ত না হলেও তা সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে শুরু হতে পারে টুর্নামেন্টটি।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, ভারত-ইংল্যান্ডের সিরিজ এক সপ্তাহ এগিয়ে আনার অনুরোধও ইসিবিকে করেছিল বিসিসিআই। তবে পরে ইংলিশ বোর্ডের পক্ষ থেকে এমন অনুরোধ না পাওয়ার কথা নিশ্চিত করা হয়। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষ টেস্ট। এর পর অক্টোবরের মাঝামাঝিতে ভারতে শুরু হওয়ার কথা টি২০ বিশ্বকাপ। আইপিএল শেষ করতে এর মাঝের এক মাস সময়কেই কাজে লাগাতে চায় ভারত।

প্রসঙ্গত ভারতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ভয়াবহ রূপ নিলেও জৈব সুরক্ষাবলয়ে চলছিল আইপিএল। কিন্তু এই সুরক্ষাবলয়ও ঠেকাতে পারেনি টুর্নামেন্টের মাঝে করোনার হানা। কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজির বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফ আক্রান্ত হলে গত ৪ মে বন্ধ করে দেওয়া হয় আসর।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২১